ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শুভ জন্মদিন মিম

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮ শনিবার, ১২:১৮ পিএম
শুভ জন্মদিন মিম

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। একই সঙ্গে তিনি একজন মডেল, নৃত্যশিল্পী, অভিনেত্রী ও লেখিকা। আজ ১০ নভেম্বর তাঁর জীবনের বিশেষ একটি দিন। ১৯৯২ সালের ঠিক এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন জনপ্রিয় এই তারকা।

মিমের জন্ম রাজশাহী জেলায়। পেশায় শিক্ষক বাবার চাকরীসূত্রে দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় কেটেছে তাঁর শৈশব, কৈশোর। ছোটবেলা কেটেছে ভোলায়। এরপর কুমিল্লায় পেরিয়েছেন স্কুল, কলেজর গণ্ডি। ছোটবেলা থেকেই তিনি একটি সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে বেড়ে উঠেছেন।

শোবিজে আসার ক্ষেত্রে পরিবারের ইতিবাচক সাড়া মিমকে আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। ২০০৭ সালে ‘লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ের মুকুট লাভ করলে তাঁর জন্য শোবিজের দরজা খুলে যায়। ফলে সুযোগ পেয়ে জান মূল ধারার চলচ্চিত্রে। ওই একই বছরে হুমায়ুন আহমেদ পরিচালিত ‘আমার আছে জল’ ছবির মাধ্যমে তাঁর চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। এই ছবিতে দর্শক তাঁকে বেশ ভালোভাবে গ্রহণ করে। তখনো পর্যন্ত তিনি ছোট পর্দার কোনো কাজে হাত দেননি। ২০০৯ সালের দিকে তাঁর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ছবি ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’ মুক্তি পায়। এই ছবিতেও তিনি প্রশংসা কুড়ান। এরপর নিয়মিত বিরতিতে ‘জোনাকির আলো’, ‘তারকাঁটা’, ‘পদ্ম পাতার জল’সহ বেশকিছু ছবিতে অভিনয় করেন।

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘ব্ল্যাক’ এর মাধ্যমে ওপার বাংলায় পৌঁছে জান মিম। কলকাতার মূল ধারার নির্মাতা রাজা চন্দ’র পরিচালনায় ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৫ সালে।

টেলিভিশনে মিম প্রথম পা রাখেন ২০১২ সালে ‘এক হাজার টাকা’ শিরোনামের একটি নাটকের মাধ্যমে। এরপর বেশকিছু নাটক ও টেলিছবিতে কাজ করলেও, তাঁর ভাবনার বেশীরভাগ জায়গা জুড়ে রয়েছে চলচ্চিত্র। এক্ষেত্রে সফলও হয়েছেন তিনি। অভিনয়ের স্বীকৃতি স্বরূপ পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং মেরিল প্রথম আলো পুরস্কারের মতো দেশসেরা স্বীকৃতি।

বাংলা সাহিত্যে স্নাতক সম্পন্ন করা এই অভিনেত্রীর লেখালেখির প্রতিভার বিচ্ছুরণও ঘটেছে। এ পর্যন্ত তাঁর লেখা ‘শ্রাবণের বৃষ্টিতে ভেজা’ ও পূর্ণতা শিরোনামে দুটি উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলা ইনসাইডার/এইচপি/জেডএ