ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১৯-এর খুঁটিনাটি

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ০৪:৫০ পিএম
ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১৯-এর খুঁটিনাটি

আজ (১১ জানুয়ারি) থেকে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১৯। এই উৎসবের আয়োজক রেইনবো চলচ্চিত্র সংসদ। ১৯৯২ সাল থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসবটি আয়োজন করছে সংগঠনটি।

উৎসব শুরুর সময়

‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে আয়োজিত হচ্ছে এবারের ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’। আজ বিকেলে উৎসবের উদ্বোধন করবেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক। সভাপতিত্ব করবেন উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। এবারের উৎসবে মোট ৭২টি দেশের ২১৮টি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। টানা ৮ দিন ব্যাপি এই উৎসব চলবে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত।

যেসব দেশ অংশ নিচ্ছে

চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নেওয়া দেশগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে আজারবাইজান, বাহরাইন, বেলজিয়াম, ভুটান, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, কিউবা, সাইপ্রাস, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, প্যালেস্টাইন, জার্মানি, গ্রিস, হংকং, হাঙ্গেরি, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, ইতালি, জাপান, কাজাখস্তান, কসোভো, কিরগিস্তান, লাটভিয়া, লেবানন, লুক্সেমবার্গ, মালয়েশিয়া, মেক্সিকো, নেপাল, নরওয়ে, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, কাতার, রাশিয়া, স্লোভেনিয়া, স্পেন, দক্ষিণ কোরিয়া, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, সিরিয়া, তাইওয়ান, তাজিকিস্তান, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, আরব-আমিরাত, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, ভেনিজুয়েলা এবং স্বাগতিক বাংলাদেশ।

উৎসবের ভেন্যু

রাজধানীর ছয়টি ভেন্যুতে মোট আটটি বিভাগে ছবিগুলো প্রদর্শন করা হবে। উৎসবে শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিনামূল্যে ছবি দেখতে পারবে। তবে যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমা হলে দেখতে হলে অবশ্যই নির্ধারিত ফি দিতে হবে। উৎসবের ভেন্যুগুলো সম্পর্কে যেনে নেওয়া যাক-

জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তন:

জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে সকাল ১০টা থেকে চলবে শিশুতোষ চলচ্চিত্র। তবে ছবি দেখতে চাইলে শিশুদের সঙ্গে অভিভাবকরাও আসতে পারবেন। এখানে সকাল ১০টা, দুপুর ১টা ও বিকাল ৩টার প্রদর্শনী শিক্ষার্থীরা পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিনামূল্যে দেখতে পারবেন। তবে সাধারণ দর্শকদের জন্য ৫০ টাকা ফি নির্ধারিত হয়েছে।

কেন্দ্রীয় গণগ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তন:

এখানেও সকাল ১০টা থেকে শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। সব নিয়ম কানুনও জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনের মতো।

জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তন:

এই মিলনায়তনের সব প্রদর্শনী সবাই বিনামূল্যে উপভোগ করতে পারবেন। এখানে বিদেশী ও দেশী ভাষার পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবিগুলো দেখানো হবে।

অঁলিয়াস ফ্রঁসেজ মিলনায়তন: 

অঁলিয়াস ফ্রঁসেজেও চাইলে যে কেউ সিনেমা দেখতে পারবেন। এর জন্য কোনো টাকা খরচ করতে হবে না।

শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা:

জাতীয় চিত্রশালায় বিশাল হলঘরে দেখানো হবে উৎসবের ছবি। এখানেও কোনো টাকা খরচ করতে হবে না।

যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমা:

যমুনা ফিউচার পার্কের ব্লকবাস্টার সিনেমা হলে অনেকগুলো ছবি প্রদর্শিত হবে। তবে এখানে ছবি দেখতে হলে সেখানকার নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ করতে হবে।

বাংলাদেশের অভিজাত মাল্টিপ্লেক্সগুলোর একটি যমুনা ব্লকবাস্টার। এবারের উৎসবের অনেকগুলো সিনেমা দেখানো হবে এখানে। তবে ব্লকবাস্টারে ছবি দেখতে হলে সিনেমা হলটির নির্ধারিত ফি গুণতে হবে দর্শণার্থীদের।

 

বাংলা ইনসাইডার/এইচপি/এমআর