ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ৬ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

তারকাদের যত বদ অভ্যাস

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০১৯ শুক্রবার, ০৯:০০ পিএম
তারকাদের যত বদ অভ্যাস

কোন মানুষের বদ অভ্যাস নেই? কিছু না কিছু তো আছেই। হয়তো সেটা অনেকে নিজে অনুধাবন করতে পারে না। অভ্যাসের পাশাপাশি বদ অভ্যাস নিয়েই আমাদের জীবনযাপন। তবে সবাই কিন্তু অকপটে নিজের অবঅভ্যাসের কথা স্বীকার করতে পারে না। সেই মনোবল থাকে না। অনেক তারকার সঙ্গে যোগাযোগ করে কয়েকজনের বদ অভ্যাসের কথা শোনা গেছে। তা জানানো হল... 

আফরান নিশো

সিগারেটের নেশাটা একটু বেশিই মনে হয় আমার। যা আসলে ছাড়তে চাইলেও ছাড়তে পারি না। এরজন্য পরিবারের কাছেও বকাঝকা শুনতে হয়। আমার একটা ছেলে আছে। আমি ধুমপান করি বলে ওরও ক্ষতি হয়। কিন্তু ছাড়তে পারি না। এই বদ অভ্যাসটা পরিবর্তন করতে চাই।

অপু বিশ্বাস

ভালো খাবার দেখলে আর নিজেকে সামলাতে পারি না। বিশেষ করে পোলাও, খিচুড়ি আমার ভীষণ প্রিয়। একবাক্যে বললে আমাকে খাদক বলা চলে। নায়িকা হয়েছি, বেশি তো খাওয়া যাবে না। যতটা না জিমে গিয়ে শরীর কমাই, ততটাই আবার খাই। ফলে আমি আমার মতো থেকে যাই। এই পোলাও, মাংস এমন সব খাবার এড়িয়ে চলতে পারলে হয়তো আমি স্লিম থাকতে পারতাম। খাওয়াটাই আমার বদ অভ্যাস বলবো।

মাহিয়া মাহি

প্রচণ্ড রাগি আমি। কথায় কথায় রেগে যাই। তবে সেটা যে সবার সঙ্গে তা নয়। আর রাগটা খুব বেশি সময়ের জন্যও থাকে না। কোনো কারণে পান থেকে চুন খসলেই আমি চিল্লচিল্লী করি ছোটবেলা থেকে। এর জন্য আমার এক বান্ধবীকেও হারাতে হয়েছে। একবার এক বান্ধবীর সঙ্গে খুব রাগ করি। ও অন্য কোন কারণে হয়তো ডিস্টার্ব ছিল। আর আমি ওর ক্লোজ হয়েও যেহেতু এমন রাগারাগি করি। ও সুইসাইড করে। আমার সঙ্গে স্কুলে পড়তো। আমাদের উত্তরাতেই বাসা। ওর মৃত্যুর পর ভেবেছিলাম জীবনে আর কারো সঙ্গে রাগ করবো না। কিন্তু নিজেকে তো বশে আনতে পারি না। এই বদ অভ্যাসটা পরিবর্তন হয়তো হবে আরও বড় কিছু হারালে। আর এই রাগের জন্য ইন্ডাস্ট্রির অনেকের সঙ্গেই ভালো সম্পর্ক নেই। অনেক সময় কাজ হাতছাড়া করি। রাগটা আসলে যেমন আমার ব্যাক্তিগত জীবনের জন্য অসহনীয় তেমনি প্রফেশনেও।

তৌসিফ মাহবুব

আমার অনেক বদভ্যাস আছে। তার মধ্যে একটি হচ্ছে আমার অতিরিক্ত ঘুমাই। এর জন্য তো অনেকের সঙ্গে মনোমালিন্যও হয়। ২০১৫ সালের একটা ঘটনা শেয়ার করি, পরিচালক নির্মাতা ইমরাউল রাফাত ভাইয়ের একটি নাটকের শুটিং। আমার যাওয়ার কথা ছিল সকাল ৮টায়। অ্যালার্মও বেজেছিল। কিন্তু কখন যে অ্যালার্ম বন্ধ করে মনের সুখে ঘুমিয়ে থাকলাম। দুপুর ১২ টায় ঘুম ভাঙলো। বুঝেন অবস্থা স্পটে আমার জন্য কি হয়েছে? অবশ্য তার আগের রাতে অনেক রাত পর্যন্ত শুটিং করেছি। রাফাত ভাই সেদিন বকা একটা দিয়েছিল। তবে গিয়ে দেখি তারা সময়টা অন্য আর্টিস্ট দিয়ে শুটিং করে ম্যানেজ করে নিয়েছে। তবে এখন বউ আছে বলে এটা আর অতটা হয় না। তবে ঘুমটা আমার এক নাম্বার বদ অভ্যাস ধরবো। আর সিগারেট ছিল বদ অভ্যাসের মধ্যে। তবে সেটা এখন অনেক কমিয়েছি। আগে তো প্রতিদিন ছাড়তাম আর ধরতাম।

কুসুম শিকদার

রাত জাগাটা আমার একটা বদ অভ্যাস। অনেক রাত পর্যন্ত জেগে থাকা হয়। প্রায়ই ফজরের আজানের পর ঘুমাতে যাওয়া হয়। তার আগে ঘুমই আসে না। যার কোন কাজ কর্ম আছে। সে তো এইটা মেইনটেইন করতে পারে না। ফলশ্রুতিতে যেটা হয়। অনেক সময় দিনে কাজ না থাকলে ঘুমাই। আর কাজ থাকলে ঘুম ঘুম চোখে ঘুরতে হয়। তবে রাতে জাগার একটা কারণও আছে। আমি যেহেতু লিখি, রাতে কনসেনট্রেশন কিংবা অ্যাটেনশন লেভেলটা অনেক সহজে বাড়ানো যায়। কারণ কোনো ডিস্ট্রার্বনেস থাকে না। এজন্যই রাত জাগাটা প্রিয়। রাতে প্রচুর মুভিও দেখি। তবে সব মিলিয়ে অন্ধকারটা আমার প্রিয়। এটাই আমার বদ অভ্যাস বলবো।

সিয়াম আহমেদ

মানুষজনকে প্রয়োজনের বেশি উপকার করি। এটা খুব বাজে একটা বদভ্যাস আমার, যার জন্য আমাকে ভুগতেও হয়। আর যাদের উপকার করি, তাদের আবার কাজের সময় পাই না। মানুষের উপকার করা বন্ধ করে দেওয়া তো কোনো সমাধান না। তাই আমি আমার মতোই থাকি। এটা যদি বদভ্যাস হয়, এটাকে সঙ্গী করেই পথ চলতে হবে। আরেকটা বদভ্যাস আছে, সেটা নিজের মেজাজ হারিয়ে ফেলি। কেউ একটা অন্যায় করছে, সেটা একবার বা দুইবার দেখতে পারি। তৃতীয়বার সে আমার যত সিনিয়রওই হোক। জবাব দিয়ে ফেলি। তার যেটা করণীয়, সেটা তাকে বলবোই। এই আপষটুকু করতে পারি না নিজের সঙ্গে। পরিবারের মানুষ তো বলে এটা বদ অভ্যাস। আমার মনে হয় না এটা বদ অভ্যাস।


বাংলা ইনসাইডার/এমআরএইচ