কালার ইনসাইড

ঈদ নাটক, যা থাকছে এবারের আনন্দ আয়োজনে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৬:৩০ এএম, ২১ জুলাই, ২০২১


Thumbnail

একটা সময় ছিলো যখন নাটক বলতে আমরা শুধুই বিটিভির নাটকটাই বুঝতাম। ঈদ কিংবা কোন জাতীয় অনুষ্ঠানে সারা বাংলাদেশের মানুষের চোখ থাকতো বিটিভির নাটকের পর্দায়। প্রতি ঈদে তারকা বহুল নাটকগুলো আমাদের ঈদ আনন্দকে আরো বহুগুণে বাড়িয়ে দিতো। দিন যত গড়িয়েছে দেশে স্যাটেলাইট টিভির দৌরাত্ম্য বেড়ে গেছে নাটকের সংখ্যাটাও কিন্ত আস্তে নষ্ট হয়েছে নাটকের মান। কিন্তু তবুও ঈদ মানেই এখনো আমাদের জন্য আনন্দের আরেক নাম বাংলা নাটক। বহু নাটকের ভিড়ে এখনো অনেক গুণী নির্মাতা আর অভিনয় শিল্পীরা আমাদের আনন্দ দিয়ে যাচ্ছেন প্রতি মুহূর্তে। এবারের ঈদে মুক্তির অপেক্ষায় আছে প্রায় কয়েক শত নাটক। এর মাঝে কিছু জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নাটক নিয়েই আমাদের এই ঈদ আনন্দের বিশেষ সংখ্যা। 

মোশারফ করিম: বাংলা নাটকের কয়েকজন কিংবদন্তীর নাম নিলে মোশারফ করিমের নামটিও উচ্চারিত হবে প্রথম দিকেই। সবার প্রিয় এই গুণী অভিনেতা এবার হাজির হচ্ছে ১৫টি নাটক নিয়ে। তার মাঝে উল্লেখযোগ্য কিছু নাটক হচ্ছে, তুলা মীন মকর, যেকোনো প্রয়োজনে কল করুন, সমস্যা কি?, বউ ভীষণ পাওয়ার ফুল, আলাদিন চাচার রাজনৈতিক দৈত্য, প্রচ্ছদের মত নাটক দিয়ে তিনি এবারো দর্শকদের মত মাতাবেন। 

আফরান নিশো: বর্তমান নাটকের বাজারে সবচেয়ে আলোচিত এবং জনপ্রিয় যদি কোন অভিনেতা থেকে থাকে তবে তিনি সবার শীর্ষে। প্রতিটি নাটকে তার ভিন্ন ভিন্ন রূপ দর্শকে দিয়েছে নতুন কিছু খুঁজে পাওয়ার আনন্দ। এবারে ঈদে সময়ের সবচেয়ে সেরা এই অভিনেতার উল্লেখযোগ্য নাটকের মাঝে আছে, প্লাস ফোর পয়েন্ট ফাইভ, কায়কোবাদ, হ্যালো শুনছেন, ঘটনা সত্য, কুয়াশা, শুষ্কং কাষ্ঠং, প্রেমে পড়া বারন, এক মুঠো প্রেম।  

তৌসিফ মাহবুব: তরুণ এই গুণী অভিনেতা বেশ কিছু বছর ধরেই ভালো ভালো নাটকে কাজ করে সবার নজর কেঁড়ে চলেছেন। তার অভিনীত প্রতিটি নাটক টিভি কিংবা ইউটিউবে বেশ সাড়া ফেলে। এবারের ঈদেও তার কিছু কাজ যে দর্শক হৃদয় জয় করতে প্রস্তুত তা খুব সহজেই অনুমেয়। ঈদুল আযহায় এবার তার প্রায় ২২টির মত নাটকের মাঝে উল্লেখযোগ্য কিছু নাটক হল- তামাশা, সোবাহান সাহেবের বড় ফ্ল্যাট, মায়ের ডাক, মজনু ভাই, ঢাকাইয়া ওয়েডিং, প্রেম ফ্যাশন, ফরেন বাবুর্চি, ফাইস্যা গেছে দুলাভাই, বাইসাইকেল প্রেম ২, লাইফ গেইম। 

অপূর্ব: অনেক দিন থেকেই বাংলা নাটকের অন্যতম ফ্যাশন সচেতন একজন অভিনেতা অপূর্ব। তার কথা বলা কিংবা প্রেম নিবেদন সব কিছুই দর্শক মহলে বেশ আলোচনার। শুরু থেকেই কাজের ক্ষেত্রে বেশ সচেতন এই অভিনেতার প্রায় প্রতিটি নাটকি বেশ সাড়া ফেলে আসছে। ঈদে আলোচিত এই অভিনেতা প্রায় ২৭টি নাটকে অভিনয় করেছেন। এবার ঈদে অপূর্ব অভিনীত কিছু নাটকের মাঝে আছে- ২১ বছর পরে, না হবে না কিছু তে, ভালোবাসা প্রমাণিত, মিঃ এন্ড মিসেস চাপাবাজ আনলিমিটেড, শোকসভা, পান্তা ভাতে ঘি, স্বামীর ১০টি বদ অভ্যাস, ভালোবাসার বটি কাবাব, শুভ+নীলা। 

মিশু সাব্বির: বাংলাদেশের নাটকের ইতিহাসে অন্যতম জনপ্রিয় নাটক ‘হাউজফুল’। জীবনের প্রথম ধারাবাহিক নাটক দিয়েই মানুষের মনে জায়গা করে নেন ছোট খাটো গড়নের এই অভিনেতা। নিজের সাবলীল অভিনয় দিয়ে ইতিমধ্যে বাংলা নাটকের অন্যতম সেরা মুখ হয়ে উঠেছেন মিশু সাব্বির। তার অভিনয় মানেই একরাশ হাসি। প্রতি ঈদের মত এবার তিনি হাজির হচ্ছেন আইরন ম্যান, ঘটি গরম, গোল্ড ডিগার, লুঙ্গিবাজ, লাশঘর, পাবজি বাবা, নক মি বেবি, সুইট রোবটের মত নাটক নিয়ে।
 
জাকিয়া বারি মম: ২০০৬ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার নিয়ে যাত্রা শুরু। নীলপরী নিলাঞ্জনা, নীল প্রজাপতি, রংতুলির একের পর এক জনপ্রিয় নাটকে নিজের রূপ আর অভিনয় প্রতিভা দিয়ে মম ইতিমধ্যে হয়ে উঠেছেন দেশের অন্যতম জনপ্রিয় মুখ। এবারের ঈদে মমর যে নাটক গুলি আমাদের আনন্দ দিতে আসছে, তুলা মীন মকর, মায়ের ডাক, ভেলকি, শেষ প্রান্তে, বদলে যাওয়া মানুষ, নীলা ডেকেছিলো, আমার বউ কমিশনার। 

তাসনিয়া ফারিণ: এই সময়ের তরুণ অভিনেত্রীদের মাঝে সবচেয়ে জনপ্রিয় তাসনিয়া ফারিণ। গত কয়েক বছর ধরেই তার অভিনীত নাটক গুলি থাকছে জনপ্রিয়তার শীর্ষে। ২০২১ সালের কোরবানির ঈদে তিনি হাজির হচ্ছেন মন দরিয়া, আপন, আদরে, ডাকাতের বংশ, আমাদের বিয়ে, আমার বাপের অনেক টাকা, মায়ের ডাক, বাবা তোমায় ভালোবাসি, সিনেমাটিক প্রেম, হোম পলিটিক্স, ফ্র্যাকচারের মত নাটক গুলি। 

মেহজাবিন: বাংলা নাটকের হাসৌজ্বল নায়িকা তিনি। তবে সবার নজর আটকে যায় বড় ছেলে নাটকে তার কান্নার দৃশ্যতে। নাটকে তার মত এত সহজাত হাসি আর কান্নার সমন্বয় বোধহয় আর কোন নায়িকার নেই। সবার প্রিয় এই অভিনেত্রী ঈদ আনন্দে বেশকিছু নাটক নিয়ে হাজির হচ্ছেন যার মাঝে অন্যতম হল চুমকি চলেছে, শনির দশা, চিরকাল আজ, দ্বিতীয় সূচনা, আলো, পুনর্জন্ম, ভাগ্যক্রমে, যদি কোনদিন। 

সাফা কবির: এই সময়ের নাটকে আরেক মিষ্টি মুখ সাফা কবির। কাজের প্রতি নিবেদিত শীল এই অভিনেত্রী খুবি সজাগ থাকেন কাজ বাছাই এবং অভিনয়ের ব্যাপারে। কাজের প্রতি আগ্রহই তাকে নিয়ে এসেছে সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয়তার শিখরে। ঈদুল আযহা উপলক্ষে তিনি হাজির হচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় কিছু অভিনেতাদের সাথে নতুন কিছু গল্প নিয়ে। রঙিন কাগজ, কন্ট্রাক্ট ভাই, বেবি আপুর লাইভ-২, ভাইরাল ভাইরাস, অবশেষে বৃষ্টি, মুন্নার গার্লফ্রেন্ড, মেজাজ খারাপ, চিলেকোঠার ভালোবাসা মত নাটক। 

তানজিন তিশা: অভিনয়,হাসি সৌন্দর্য এই তিনের মিশেল তানজিন তিশা। তার হাসিতে দিওয়ানা এদেশের অনেক ছেলে। এবারের ঈদে তার হাসিতে মুগ্ধ করতে নিয়ে আসছেন সাহসিকা, অবসর, পাপ্পু ওয়েডস পিংকি, ক্রাইম পার্টনার, ব্যাংকার গার্লফ্রেন্ড, সব চরিত্র বাস্তব, ওভার এক্সপেকটেশন, লাভ অর ওয়ারের মত নাটক। গল্প নির্ভর এসব নাটক দর্শকদের কাছে জনপ্রিয় হবে বলে বিশ্বাস করেন তিশা। 

ওটিটি: এছাড়া ওটিটি প্লাটফর্ম চরকিতে ঈদের দিন মুক্তি দেওয়া হবে তারকা বহুল ঈদ ছবি “ইউটিউমার”। ছবিটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রিতম হাসান এবং জিয়াউল হক পলাশ। 

দেশের আরেক জনপ্রিয় ওটিটি প্লাটফর্ম বঙ্গবিডিতেও থাকছে ঈদ আয়োজন। প্লাটফর্মটিতে ঈদের দিন মুক্তি দেওয়া হবে গার্লস স্কোয়াড VS বয়েজ গ্যাং। ঈদের দ্বিতীয় দিন মুক্তি পাবে এক দশকের বেশি সময় ধরে চলা সিআইএর থ্রিলিং মিশনের গল্প নিয়ে বাংলা ডাবড হলিউডের অ্যাকশন মুভি Zero Dark thirty। ঈদের তৃতীয় দিন মুক্তি পাবে ‘একটি গল্প’। নাটকটিতে অভিনয় করেছে মনোজ কুমার প্রামাণিক ও কেয়া পায়েল।



মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

অনন্ত জলিলের নামে মামলা করবেন ইরানি নির্মাতা!

প্রকাশ: ০৫:১০ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail অনন্ত জলিলের নামে মামলা করবেন ইরানি নির্মাতা!

এবারের ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়েছে অনন্ত জলিলের নতুন সিনেমা  ‘দিন-দ্য ডে’। সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই অনন্ত জলিল ও তার স্ত্রী-নায়িকা বর্ষার নানান মন্তব্যের কারণে আলোচনা-সমালোচায় আছেন সিনেমাটি। তবে এবার মুখ খুললেন ‘দিন-দ্য ডে’র রিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম।

এবার মুখ খুললেন ‘দিন-দ্য ডে’র পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম। বিস্ফোরক অভিযোগ তুলেছেন অনন্তের বিরুদ্ধে। চুক্তিভঙ্গের অভিযোগে অনন্ত জলিলের নামে মামলা করার কথাও বলেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, এ বিষয়ে একজন আন্তর্জাতিক আইনজীবীও নিয়োগ দেবেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দিয়ে এসব কথা জানান নির্মাতা জমজম। তিনি বলেন, ‘শুধুমাত্র বাংলাদেশ ও ইরানের মানুষের মধ্যে শক্ত বন্ধন তৈরির উদ্দেশ্যে আমি যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। যাতে দুই দেশের মানুষ একে-অপরের ভাষা ও সংস্কৃতি সম্পর্কে জানতে পারে। কেননা শিল্পই হলো সেই ভাষা, যেটা কাঁটাতার ভেদ করতে পারে।’

নির্মাতা জমজমের মতে, ‘দিন-দ্য ডে’ সিনেমার ক্ষেত্রে পরিকল্পনা মাফিক কিছুই হয়নি। অনন্ত জলিল চুক্তিভঙ্গ করে সব নিজের মতো করেছেন। নির্মাতার দাবি, ‘তিনি চুক্তি ভেঙেছেন এবং নিজের দায়িত্ব পালন করেননি। বরং তিনি আমার অর্ধনির্মিত সিনেমা নিয়ে নষ্ট করে ফেলেন; যদিও আমি মূল প্রযোজক ছিলাম। তিনি তার মতো করে সিনেমা বানিয়ে ফেলেন।’

সমস্যাটি আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের কোনো পথ নেই বলে জানালেন জমজম। তাই তিনি আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তেহরান আদালতে মামলা ঠুকবেন তিনি। একইসঙ্গে নিয়োগ দেবেন আন্তর্জাতিক আইনজীবী।

কিছুদিনের মধ্যে ‘দিন-দ্য ডে’ সিনেমার চুক্তি ও যাবতীয় তথ্য প্রকাশ্যে আনবেন বলেও জানিয়েছেন নির্মাতা জমজম। তিনি মনে করেন, পুরো বিষয়টি দর্শক ও গণমাধ্যমের জানা উচিত।

অনন্ত জলিল   মামলা   ইরানি নির্মাতা   ‘দিন-দ্য ডে’  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

জয়,বাবা-মাকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত শাকিব

প্রকাশ: ০৪:৩২ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail জয়, বাবা-মাকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত শাকিব

দীর্ঘ নয় মাস পর গতকাল দেশে ফিরেন ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান। বুধবার (১৭ আগস্ট) বেলা ১২টার পর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পা রাখেন তিনি। তাকে বরণ করে নেয় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা শত শত ভক্ত। দীর্ঘদিন পর বাবা-মা-সন্তানকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বসিত শাকিব।

দেশে ফিরেই বিমানবন্দর থেকে গুলশানের বাসায় যান শাকিব। বাসায় ফিরেই বাবা-মায়ের পা ছুঁয়ে সালাম করেন তিনি। ছেলেকে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরেন তারা।

জানা যায়, ছেলের দেশে ফেরার খবরে শাকিবের মা রেজিয়া বেগম ছেলের পছন্দের নানা পদের খাবার রান্না করেন। সেই খাবারের তালিকায় ছিল- টমেটো দিয়ে টেংরা মাছ, লাউশাক, চিংড়ি দিয়ে বরবটি এবং আলু দিয়ে গরুর মাংস।

এর আগে বিমানবন্দর থেকে বাসায় ফেরার পথে শাকিবকে ফোন করে তার ছেলে আব্রাম খান জয়। ছেলের সঙ্গে ভিডিওকলে কথাও বলেন তিনি। বিকেল ৪টার পর বাবার সঙ্গে দেখা করতে গুলশানের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয় জয়কে।

উল্লেখ্য, গত বছরের নভেম্বরে ঢাকা থেকে যুক্তরাষ্ট্রে উড়াল দিয়েছিলেন শাকিব খান। সেখানকার নাগরিকত্ব লাভের জন্য টানা ছয় মাস মার্কিন মুলুকে থাকেন। এর মধ্যে নিউইয়র্ক থেকেই ‘রাজকুমার’ নামের নতুন সিনেমার ঘোষণা দেন, মহরত করেন। যেখানে তার নায়িকা যুক্তরাষ্ট্রের কোর্টনি কফি।

শাকিব খান   আব্রাম খান জয়  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

চলতি বছর মুক্তি পাচ্ছে না পরী-সিয়ামের ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’

প্রকাশ: ০৪:১৫ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail চলতি বছর মুক্তি পাচ্ছে না পরী-সিয়ামের ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’

সিয়াম ও পরীমণি জুটি অভিনীত সিনেমা ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’। ড. জাফর ইকবালের কিশোর উপন্যাস ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত। সরকারি অনুদানে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন পরিচালক আবু রায়হান জুয়েল। গত সপ্তাহে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে ছাড়পত্রও পেয়েছে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’।

চলতি বছরেই সিনেমাটি মুক্তির কথা জানিয়েছিলেন পরিচালক। তবে এবার জানা গেল সিনেমাটি এ বছর আর মুক্তিই পাচ্ছে না। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর এসএসসি ও ২২ আগস্ট এইচএসসি পরীক্ষা শুরু। পরীক্ষার কারণে সিনেমাটির মুক্তি পিছিয়ে দিয়েছেন পরিচালক ও প্রযোজক। আগামী ২০২৩ সালের ২০ জানুয়ারি সিনেমাটি সারাদেশে মুক্তি পাবে নিশ্চিত করেছেন পরিচালক নিজেই।

এ সম্পর্কে আবু রায়হান জুয়েল বলেন, বাচ্চাদের এসএসসি পরীক্ষা সামনে। এই সিনেমাটি শিশুদের জন্য নির্মিত। তারাই যদি সিনেমাটি দেখার সময় ও সুযোগ না পায় তাহলে আমার ২ বছরের পরিশ্রম সার্থক হবে না। তাই আমি ও আমার সহযোগী প্রযোজক বঙ্গ মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামী বছর এটি মুক্তি দেবো।

জুয়েল আরও বলেন, সিয়ামের আর একটি ছবি এ বছরই মহাসমারোহে মুক্তি পাবে। তাই আমার সিনেমার সংবাদে সিয়ামকে হাইলাইট করলে দুটিরই প্রচারে কনফিউশন দেখা দিতে পারে।

ছবিতে সিয়াম আহমেদ পরীমনি ছাড়াও ১৮ জন শিশুশিল্পী অভিনয় করেছে। আরও আছেন শহীদুল আলম সাচ্চু, আজাদ আবুল কালাম, কচি খন্দকার, মুনিরা মিঠু, আশিষ খন্দকার।

পরীমনি   সিয়াম   চলচ্চিত্র  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নতুন খবর জানালেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর অতুল

প্রকাশ: ০৩:৫৬ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail নতুন খবর জানালেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর অতুল

ঝরাজীর্ণ প্রেক্ষাগৃহের আবার প্রাণ ফিরে পেয়েছে। দীর্ঘদিন পরে প্রেক্ষাগৃহে দশর্ককের ভিড় আর টিকেটের জন্য দীর্ঘ লাইন দেখা গিয়েছে। আর এর শুরুটা হয়েছে ঈদে মুক্তি পাওয়া ‘পরাণ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে। এই সিনেমাটির চলচ্চিত্র শিল্পের গতি এনে দিয়েছে। এবার দেশের গন্ডি পার হয়ে শিঘ্রই ‘পরাণ’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে যুক্ত্ররাষ্ট্র, কানাডা, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, ইতালী এবং মধ্যপ্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর তামজীদ অতুল।  
 
তিনি বলেন, দেশের বাইরে বাঙালী দর্শকদের পাশাপাশি ‘পরাণ’ ছবিটি সার্বজনীন দর্শক দেখার সুযোগ পাবে। উপরোল্লিখিত দেশগুলোতেও আমাদের সিনেমা 'পরাণ' দেশের বাজারের মতই বাম্পারহিট হবে ইনশাআল্লাহ। আমরা সেই আভাস অনেক আগে থেকেই পাচ্ছি। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়াতে আমাদের পরাণ ছবিটি বাম্পার সেল হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা স্বপ্ন দেখছি খুব শিঘ্রই গার্মেন্টস শিল্প এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের কষ্টার্জিত আয়ের পরে বাংলাদেশী কনটেন্ট বিদেশ থেকে মূল্যবান রেমিটেন্স আয় করে এনে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড়ো ভুমিকা রাখতে সক্ষম হবে। আর সেখানেও আমরা লাইভ টেকনোলজিস হবো অন্যতম অংশীদার। কনটেন্টের এই অনির্বাণ পথচলায় আমাদের পাশে থাকুন। দয়াকরে আমাদেরকে আপনাদের ভালবাসায় রাখুন। আল্লাহ সবাইকে সবসময় সুস্থ ওবং সুন্দর রাখুক।

এদিকে নেক্সট উইকে লাইভ টেকনোলজিস প্রযোজিত নতুন তিনটা ফিল্ম/ কনটেন্ট এর ঘোষণা আসবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ইতোমধ্যে প্লট এবং ডিরেক্টর  নির্বাচন শেষ। এখন শুধু ঘোষণার পালা। 


পরাণ   লাইভ টেকনোলজিস  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’

প্রকাশ: ০৩:২৫ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’

ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে দেশের অন্যতম শীর্ষ অডিও-ভিডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জি-সিরিজ নিবেদিত এবং আলী হাসানের গাওয়া তুমুল সাড়া জাগানো গান ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’। সম্প্রতি গানটি জি সিরিজের ইউটিউব ও ফেসবুক পেইজে অবমুক্ত হলে অন্তর্জালে ব্যাপক সাড়া ফেলে।

এক গানেই ভাইরাল নারায়ণগঞ্জের হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী আলী হাসান। সমসাময়িক সময়ের গানটি প্রশংসা কুড়াচ্ছে সব মহলে। মুক্তির পর এক সপ্তাহ পেরুতেই গানটি ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ে ১ এ জায়গা করে নিয়েছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গানটির ইউটিউব ভিউ ৮১ লাখ ৩৭ হাজার। ক্রমেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভিউ সংখ্যা।

উপশহরে হার্ডওয়্যারের দোকান। ব্যবসায়ী দোকান খুললেন। একের পর এক আসতে শুরু করল নানা ধরনের ক্রেতা। ক্রেতার সঙ্গে দোকানদারের আলাপ হয়ে গেল গান! ব্যবসা ও ব্যবসায়ীর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে গড়া এই র‌্যাপ গান ইউটিউবে আপলোডের সঙ্গে সঙ্গে ছড়িয়ে পড়ল নেট দুনিয়ায়।

এই গানে উঠে এসেছে মহামারির ধকল সামলে এক ব্যবসায়ীর টিকে থাকার চেষ্টার কথা। উঠে এসেছে যাপিত জীবনের নানাবিধ যন্ত্রণার কথা। ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা গানের কথায় খুঁজে পাচ্ছেন নির্মম বাস্তবতা।

গানটি লিখেছেন, সুর দিয়েছেন আলী হাসান নিজেই। গাওয়ার পাশাপাশি ভিডিওতে অভিনয়ও করেছেন। দোকানদারের চরিত্রে তার সাবলীল অভিনয় প্রশংসিত হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে আলী হাসান বলেন, ‘ভাইরাল হওয়ার জন্য গানটি আমি করিনি। বরং নিজের পরিস্থিতি তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। দেড় বছর আগে আমার দোকানে বসেই গানটি লিখেছি। তবে গানটি প্রকাশ্যে আসতেই ভাইরাল হয়ে যায়। সবাই গানটির প্রশংসা করছেন। সবার ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ।’

আলী হাসান নিজেও একজন ব্যর্থ হার্ডওয়্যার দোকানের মালিক। আট মাস আগে দোকান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন। সেই অভাব আর অভিজ্ঞতা থেকেই গানটি তৈরি করেন।

গানটিতে আলী হাসানের সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন সাদি, মানাম, আমিন আলী, উদয়, রাকিব হাসান, মারুফ, সিয়াম হাওলাদার ও রিজন। গায়কদের ক্যামেরার সামনে এনে ভিডিও বানিয়েছেন নাসিমুল মোরসালিন স্বাক্ষর। ইশা খান দূরের তত্ত্বাবধানে প্রকাশিত হয়েছে র‍্যাপ গানটি।

ব্যবসার পরিস্থিতি   গান   ভাইরাল  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন