কালার ইনসাইড

টাইগার থ্রি’তে আসবেন শাহরুখ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৯:৪৪ এএম, ২২ জুলাই, ২০২১


Thumbnail

সালমান খানের “টাইগার” চরিত্রটি দর্শকদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়। ভারতীয় র (RAW) এজেন্ট টাইগারের কীর্তিকলাপ দেখেননি, এমন দর্শক বোধহয় নেই। এক থা টাইগার ছবির পর টাইগার জিন্দা হ্যায় ছবিটি মুক্তি পাবার পর দর্শকেরা বেশ পছন্দ করে ছবিটি।

পর্দায় সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফের জুটিও সকলের বেশ মনে ধরেছে। স্বামী ভারতীয় এজেন্টের সাথে স্ত্রী পাকিস্তানি এজেন্ট জোট বেঁধে পর্দায় আবারও কী করতে আসছে, তা নিয়ে দর্শকদের মনে প্রশ্নের অন্ত নেই। তাছাড়া কিছুদিন আগে তৃতীয় কিস্তির খল এমরান হাশমির নাম প্রকাশিত হবার পর দর্শকের প্রত্যাশার পারদ আরও উঁচুতে উঠে গিয়েছে।

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমের একটি সূত্র থেকে জানা যায়, টাইগার থ্রি-তে কাজ করবেন বলিউড কিং শাহরুখ খান। তবে তিনি ক্যামিও হিসেবে আসবেন নাকি গুরুত্বপূর্ণ কোনো চরিত্রে, তা এখনও জানা যায়নি। জিরো ছবিটি মুক্তি পাবার প্রায় আড়াই বছর পর শাহরুখ এখন পাঠান ছবির শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত। এই ছবিতে তার বিপরীতে খলের ভূমিকায় অভিনয় করছেন জন আব্রাহাম।

জিরো ছবিতে একটি গানে শাহরুখ ও সালমানকে একসাথে দেখা গিয়েছিল। আশা করা যায়, টাইগার থ্রি-তে তাদেরকে এরচেয়েও জোরদারভাবে দেখা যাবে।

বর্তমানে সালমান খান মুম্বাইয়ের যশরাজ ফিল্মস স্টুডিওতে চলতি মাসের ২৩ তারিখ থেকে শুটিং শুরু করবেন। গতকাল নিজের ফেসবুক পেইজে ২৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও আপলোড করেন সালমান, যেখানে তাকে বেশ কঠোর অনুশীলন করতে দেখা গিয়েছে। তার আসন্ন সিনেমা `টাইগার থ্রি` -এর জন্য ইতিমধ্যে শুটিং সেটও প্রস্তুত হয়ে গেছে।



মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

চলতি বছর মুক্তি পাচ্ছে না পরী-সিয়ামের ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’

প্রকাশ: ০৪:১৫ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail চলতি বছর মুক্তি পাচ্ছে না পরী-সিয়ামের ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’

সিয়াম ও পরীমণি জুটি অভিনীত সিনেমা ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’। ড. জাফর ইকবালের কিশোর উপন্যাস ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত। সরকারি অনুদানে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন পরিচালক আবু রায়হান জুয়েল। গত সপ্তাহে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে ছাড়পত্রও পেয়েছে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’।

চলতি বছরেই সিনেমাটি মুক্তির কথা জানিয়েছিলেন পরিচালক। তবে এবার জানা গেল সিনেমাটি এ বছর আর মুক্তিই পাচ্ছে না। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর এসএসসি ও ২২ আগস্ট এইচএসসি পরীক্ষা শুরু। পরীক্ষার কারণে সিনেমাটির মুক্তি পিছিয়ে দিয়েছেন পরিচালক ও প্রযোজক। আগামী ২০২৩ সালের ২০ জানুয়ারি সিনেমাটি সারাদেশে মুক্তি পাবে নিশ্চিত করেছেন পরিচালক নিজেই।

এ সম্পর্কে আবু রায়হান জুয়েল বলেন, বাচ্চাদের এসএসসি পরীক্ষা সামনে। এই সিনেমাটি শিশুদের জন্য নির্মিত। তারাই যদি সিনেমাটি দেখার সময় ও সুযোগ না পায় তাহলে আমার ২ বছরের পরিশ্রম সার্থক হবে না। তাই আমি ও আমার সহযোগী প্রযোজক বঙ্গ মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামী বছর এটি মুক্তি দেবো।

জুয়েল আরও বলেন, সিয়ামের আর একটি ছবি এ বছরই মহাসমারোহে মুক্তি পাবে। তাই আমার সিনেমার সংবাদে সিয়ামকে হাইলাইট করলে দুটিরই প্রচারে কনফিউশন দেখা দিতে পারে।

ছবিতে সিয়াম আহমেদ পরীমনি ছাড়াও ১৮ জন শিশুশিল্পী অভিনয় করেছে। আরও আছেন শহীদুল আলম সাচ্চু, আজাদ আবুল কালাম, কচি খন্দকার, মুনিরা মিঠু, আশিষ খন্দকার।

পরীমনি   সিয়াম   চলচ্চিত্র  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নতুন খবর জানালেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর অতুল

প্রকাশ: ০৩:৫৬ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail নতুন খবর জানালেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর অতুল

ঝরাজীর্ণ প্রেক্ষাগৃহের আবার প্রাণ ফিরে পেয়েছে। দীর্ঘদিন পরে প্রেক্ষাগৃহে দশর্ককের ভিড় আর টিকেটের জন্য দীর্ঘ লাইন দেখা গিয়েছে। আর এর শুরুটা হয়েছে ঈদে মুক্তি পাওয়া ‘পরাণ’ সিনেমার মধ্য দিয়ে। এই সিনেমাটির চলচ্চিত্র শিল্পের গতি এনে দিয়েছে। এবার দেশের গন্ডি পার হয়ে শিঘ্রই ‘পরাণ’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে যুক্ত্ররাষ্ট্র, কানাডা, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, ইতালী এবং মধ্যপ্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লাইভ টেকনোলজিস'র ডিরেক্টর তামজীদ অতুল।  
 
তিনি বলেন, দেশের বাইরে বাঙালী দর্শকদের পাশাপাশি ‘পরাণ’ ছবিটি সার্বজনীন দর্শক দেখার সুযোগ পাবে। উপরোল্লিখিত দেশগুলোতেও আমাদের সিনেমা 'পরাণ' দেশের বাজারের মতই বাম্পারহিট হবে ইনশাআল্লাহ। আমরা সেই আভাস অনেক আগে থেকেই পাচ্ছি। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়াতে আমাদের পরাণ ছবিটি বাম্পার সেল হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা স্বপ্ন দেখছি খুব শিঘ্রই গার্মেন্টস শিল্প এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের কষ্টার্জিত আয়ের পরে বাংলাদেশী কনটেন্ট বিদেশ থেকে মূল্যবান রেমিটেন্স আয় করে এনে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বড়ো ভুমিকা রাখতে সক্ষম হবে। আর সেখানেও আমরা লাইভ টেকনোলজিস হবো অন্যতম অংশীদার। কনটেন্টের এই অনির্বাণ পথচলায় আমাদের পাশে থাকুন। দয়াকরে আমাদেরকে আপনাদের ভালবাসায় রাখুন। আল্লাহ সবাইকে সবসময় সুস্থ ওবং সুন্দর রাখুক।

এদিকে নেক্সট উইকে লাইভ টেকনোলজিস প্রযোজিত নতুন তিনটা ফিল্ম/ কনটেন্ট এর ঘোষণা আসবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ইতোমধ্যে প্লট এবং ডিরেক্টর  নির্বাচন শেষ। এখন শুধু ঘোষণার পালা। 


পরাণ   লাইভ টেকনোলজিস  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’

প্রকাশ: ০৩:২৫ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’

ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে দেশের অন্যতম শীর্ষ অডিও-ভিডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জি-সিরিজ নিবেদিত এবং আলী হাসানের গাওয়া তুমুল সাড়া জাগানো গান ‘ব্যবসার পরিস্থিতি’। সম্প্রতি গানটি জি সিরিজের ইউটিউব ও ফেসবুক পেইজে অবমুক্ত হলে অন্তর্জালে ব্যাপক সাড়া ফেলে।

এক গানেই ভাইরাল নারায়ণগঞ্জের হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী আলী হাসান। সমসাময়িক সময়ের গানটি প্রশংসা কুড়াচ্ছে সব মহলে। মুক্তির পর এক সপ্তাহ পেরুতেই গানটি ইউটিউব র‌্যাংকিংয়ে ১ এ জায়গা করে নিয়েছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গানটির ইউটিউব ভিউ ৮১ লাখ ৩৭ হাজার। ক্রমেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ভিউ সংখ্যা।

উপশহরে হার্ডওয়্যারের দোকান। ব্যবসায়ী দোকান খুললেন। একের পর এক আসতে শুরু করল নানা ধরনের ক্রেতা। ক্রেতার সঙ্গে দোকানদারের আলাপ হয়ে গেল গান! ব্যবসা ও ব্যবসায়ীর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে গড়া এই র‌্যাপ গান ইউটিউবে আপলোডের সঙ্গে সঙ্গে ছড়িয়ে পড়ল নেট দুনিয়ায়।

এই গানে উঠে এসেছে মহামারির ধকল সামলে এক ব্যবসায়ীর টিকে থাকার চেষ্টার কথা। উঠে এসেছে যাপিত জীবনের নানাবিধ যন্ত্রণার কথা। ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা গানের কথায় খুঁজে পাচ্ছেন নির্মম বাস্তবতা।

গানটি লিখেছেন, সুর দিয়েছেন আলী হাসান নিজেই। গাওয়ার পাশাপাশি ভিডিওতে অভিনয়ও করেছেন। দোকানদারের চরিত্রে তার সাবলীল অভিনয় প্রশংসিত হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে আলী হাসান বলেন, ‘ভাইরাল হওয়ার জন্য গানটি আমি করিনি। বরং নিজের পরিস্থিতি তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। দেড় বছর আগে আমার দোকানে বসেই গানটি লিখেছি। তবে গানটি প্রকাশ্যে আসতেই ভাইরাল হয়ে যায়। সবাই গানটির প্রশংসা করছেন। সবার ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ।’

আলী হাসান নিজেও একজন ব্যর্থ হার্ডওয়্যার দোকানের মালিক। আট মাস আগে দোকান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন। সেই অভাব আর অভিজ্ঞতা থেকেই গানটি তৈরি করেন।

গানটিতে আলী হাসানের সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন সাদি, মানাম, আমিন আলী, উদয়, রাকিব হাসান, মারুফ, সিয়াম হাওলাদার ও রিজন। গায়কদের ক্যামেরার সামনে এনে ভিডিও বানিয়েছেন নাসিমুল মোরসালিন স্বাক্ষর। ইশা খান দূরের তত্ত্বাবধানে প্রকাশিত হয়েছে র‍্যাপ গানটি।

ব্যবসার পরিস্থিতি   গান   ভাইরাল  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

অবশেষে পরকীয়ার অভিযোগে মুখ খুললেন পরমব্রত

প্রকাশ: ০১:৩০ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail অবশেষে পরকীয়ার অভিযোগে মুখ খুললেন পরমব্রত

অনেক দিন ধরে টলিপাড়ায় জোর গুঞ্জন উড়ছে, টলিউড অভিনেতা পরমব্রত চ্যাটার্জির সঙ্গে পিয়ার পরকীয়া সম্পর্কের কারণে সংসার ভেঙেছে অনুপমের। যার কারণে পিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে দীর্ঘ ছয় বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টেনেছেন সংগীতশিল্পী অনুপম রায়। যদিও বিবাহবিচ্ছেদের সুনির্দিষ্ট কারণ ব্যাখ্যা করেননি এই দম্পতি। 

পরকীয়া প্রেম নিয়ে টলিপাড়া ফিসফাস চললেও এতদিন বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেননি পরমব্রত। অবশেষে এ নিয়ে কথা বললেন তিনি। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে পরমব্রত চ্যাটার্জি বলেন, দু’জন মানুষ বিচ্ছেদের ঘোষণা করেছে, সেখানে হামলে পড়ে তৃতীয় ব্যক্তিকে নিয়ে সেনসেশন তৈরি করাটা কাঙ্খিত নয়। প্রথমে শুনে খুব বিরক্ত হয়েছিলাম; খুব খারাপ লেগেছিল।

এ সময় পালটা প্রশ্ন করা হয় আপনার বন্ধুরাও তো এ নিয়ে কথা বলেছে। নিজেকে সামলে নিয়ে পরমব্রত বলেন, আমার সামনে তো বন্ধুরা কিছু বলেনি, বললে তো আমি তাদের থামিয়ে দিতাম। তবে পিয়ার সঙ্গে তার গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে তা স্বীকার করে পরমব্রত বলেন, ‘দু’জন মানুষ স্বাধীন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার মধ্যে পিয়ার সঙ্গে আমার বন্ধুত্বের রেশ টেনে আনাটা অপ্রয়োজনীয়।

পিয়ার সঙ্গে তার এই বন্ধুত্ব কোনো স্থায়ী সম্পর্কের দিকে এগুচ্ছে কিনা? এ প্রশ্নের জবাবে পরমব্রত বলেন, এটা বন্ধুত্ব। সত্যি জানি না আমি বিয়ের জন্য প্রস্তুত কিনা, দীর্ঘস্থায়ী কোনো সম্পর্কের জন্য নিজে তৈরি কিনা তাও এই মুহূর্তে বলতে পারব না। 

পরমব্রত   সংগীতশিল্পী   অনুপম রায়  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

রায়ের বিরুদ্ধে আপিল, নতুন আইনজীবী নিয়োগ দিলেন অ্যাম্বার হার্ড

প্রকাশ: ০১:১৭ পিএম, ১৮ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রায়ের বিরুদ্ধে আপিল, নতুন আইনজীবী নিয়োগ দিলেন অ্যাম্বার হার্ড

প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের বিরুদ্ধে মানহানি মামলায় হেরে নিজের আইনজীবী এলেন ব্রেডহফ্টকে বরখাস্ত করেছেন অ্যাম্বার হার্ড। গত জুন মাসে এই অভিনেত্রী তাঁর প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের বিরুদ্ধে মানহানির মামলায় হেরে যান। বিচারটি ছয় সপ্তাহ ধরে চলে এবং অবশেষে অ্যাম্বারকে আদেশ দেওয়া হয় জনিকে ১০.৫৩ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে। বর্তমানে অ্যাম্বার নতুন করে মামলাটি এগিয়ে নিতে চান এবং তিনি এই মামলায় তাঁর পুরনো আইনজীবীদের বরখাস্ত করেছেন।

হাই প্রোফাইল এই মামলায় রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে নতুন এক দল অ্যাটর্নি নিয়োগ করেছেন অ্যাম্বার। এত দিন যাবৎ অ্যাম্বার হার্ডের প্রধান অ্যাটর্নি ছিলেন এলাইন ব্রেডহফট। কিন্তু তাকে চাকরিচ্যুত করে ডেভিড এল এক্সেলরড এবং জে ওয়ার্ড ব্রাউনকে নিজের আইনি দলে ভিড়িয়েছেন এই অভিনেত্রী। একটি সংবাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী এই তথ্য জানা যায়।  

প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের কাছে মানহানি মামলায় হেরে কম আলোচনা ও সমালোচনার শিকার হননি হলিউড অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। আর মামলায় হেরে যাওয়ার পেছনে নিজের আইনজীবীদের ভূমিকা নিয়ে সন্তুষ্ট নন অ্যাম্বার। সে কারণেই নিজের আইনি দলে পরিবর্তন আনছেন ‘অ্যাকুয়াম্যান’ খ্যাত এই অভিনেত্রী!

অ্যাম্বার হার্ডের নতুন আইনজীবী এক্সেলরড এবং ব্রাউন যৌথ বিবৃতির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন যে তারা অ্যাম্বার হার্ডের আইনি দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন। আপিল করার পর আদালত আইনের সদ্ব্যবহার করবেন এবং ন্যায়বিচার দেবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

বহুল আলোচিত এই মানহানি মামলার রায় ঘোষণার পর পেরিয়ে গেছে দুই মাসেরও বেশি সময়। অবশেষে সোমবার (১৫ আগস্ট) সকালে অ্যাম্বার হার্ডের আপিল করার খবরটি জানা গেছে। ভার্জিনিয়ার আদালতের রায়ে ডেপ ও হার্ড দুজনকেই দোষী সাব্যস্ত করা হলেও, অ্যাম্বার হার্ডের দোষের পাল্লাই বেশি ভারী বলে রায় জুরিদের। ফলে ডেপকে ১০.৪ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দেওয়া হয় অ্যাম্বার হার্ডকে।

জনি এবং অ্যাম্বার প্রায় তিন বছর ডেট করার পর ২০১৫ সালে তাদের লস অ্যাঞ্জেলেসের বাড়িতে একটি গোপন অনুষ্ঠানে বিয়ে করেছিলেন। ২০১৬ সালের মে মাসে অ্যাম্বার জনির কাছ থেকে বিবাহবিচ্ছেদের জন্য আবেদন করেন এবং তাঁর বিরুদ্ধে একটি অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ পান। তিনি বলেছিলেন যে জনি তাদের সম্পর্কের সময় তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেছিল। জনি এটি প্রায়ই করত, যখন নেশায় থাকত।

জনি ডেপ   অ্যাম্বার হার্ড  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন