ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শেখ হাসিনার জন্মদিনে ‘মুজিব আমার পিতা’র প্রিমিয়ার

নিজেস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ রবিবার, ০৭:০৮ পিএম
শেখ হাসিনার জন্মদিনে ‘মুজিব আমার পিতা’র প্রিমিয়ার

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন। আর এই বিশেষ দিনেই  হবে দেশের প্রথম ফিচার-লেংথ অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র ‘মুজিব আমার পিতা’র প্রিমিয়ার। এরপর ১ অক্টোবর থেকে চলচ্চিত্রটি সারা দেশে চলবে। শেখ হাসিনার রচনা অবলম্বনেই নির্মাণ করা হয়েছে চলচ্চিত্রটি। পরিচালনা করেছেন সোহেল মোহাম্মদ রানা।

মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তী উপলক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ নির্মাণ করেছে এই অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র। সহযোগিতা করেছে বিএমআইটি সল্যুশনস লিমিটেড এবং প্রোলেন্সার স্টুডিও। 

শেখ হাসিনার জন্মদিনে বিকেল ৩টায় চলচ্চিত্রটির প্রদর্শনীটি হবে বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের স্টার সিনেপ্লেক্সে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন পরিষদের প্রধান সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। সভাপতিত্ব করবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

চলচ্চিত্রটি নিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘নতুন প্রজন্মের শিশু-কিশোরদের কাছে বঙ্গবন্ধুর জীবনের গল্প পৌঁছে দেয়া আমাদের দায়িত্ব। আমার মনে হয় ওদেরকে জানানোর জন্য অ্যানিমেশনের চেয়ে ভালো মাধ্যম আর হতে পারে না। একই ভাবে বঙ্গবন্ধুর ছেলেবেলা সম্পর্কে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চেয়ে ভালো আর কেউ বলতে পারবে না। এই দুইয়ের যুগলবন্দি করা হয়েছে চলচ্চিত্রটিতে।’

চলচ্চিত্রটির পরিচালক সোহেল মোহাম্মদ রানা বলেন, ‘আমরা যখন কাজ শুরু করেছিলাম অনেকে বিশ্বাসই করতে পারেননি বাংলাদেশে বসে ফিচার-লেংথ অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র নির্মাণ করা সম্ভব। কিন্তু আমরা বিশ্বাস হারাইনি। এই সিনেমাটি নির্মাণ করতে গিয়ে আমাদের অভিজ্ঞতা হলো, এখনই হয়তো বিশ্বমানের অ্যানিমেশন বানানো সম্ভব নয়। তবে আমরা যাত্রাটা শুরু করেছি। শত সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সেরা কাজ করার চেষ্টা করেছি।’

অ্যানিমেশন চলচ্চিত্রটি নির্মাণে প্রায় দুই বছর সময় লেগেছে। করা হয়েছে নিবিড় গবেষণা। সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করেছেন সিআরআই-এর কো-অর্ডিনেটর তন্ময় আহমেদ। চিত্রনাট্য প্রস্তুতের পর প্রোডাকশনের কাজ শুরু হয় গত বছরের জানুয়ারিতে। শতাধিক কলাকুশলীর শ্রমে নির্মিত হয়েছে এটি।