ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কর্মক্ষেত্রে মার্জিত পোশাক

ফ্যাশন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সোমবার, ০৩:২০ পিএম
কর্মক্ষেত্রে মার্জিত পোশাক

ভালো কর্ম পরিবেশের খাতিরে অফিসে থাকতে হয় ফিটফাট। নিজের ব্যবহার, কথা বলার ধরন, চালচলনের সঙ্গে পোশাক পরিচ্ছদও হতে হয় মার্জিত। পোশাক হওয়া চাই অফিস পরিবেশের পরিপূরক। এক্ষেত্রে ড্রেসের ডিজাইন থেকে শুরু করে লক্ষ রাখা উচিৎ পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকেও।

ছেলেদের ক্ষেত্রেঃ

বাংলাদেশের পরিবেশে এখনো সবচেয়ে ড্রেস কোড মেনে অফিসে যেতে হয় ছেলেদের। চাকরির ইন্টারভিউ থেকে শুরু করে অফিসের বড় কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রেও থাকতে হয় মার্জিত পোশাকে। সে জন্য কাজের ধরন বুঝে বেছে নিন পছন্দের পোশাক। আপনার কর্মক্ষেত্র যদি হয় মার্কেটিং বা ব্যাংকিং খাতে, তাহলে অবশ্যই ফরমাল গেটআপ নিতে হবে। আর যদি কাজ হয় ক্রিয়েটিভ সেক্টরে তাহলে স্বাধীনতা থাকা উচিৎ আপনার অফিসিয়াল পোশাকেও। তবে তা একদমই বাসায় পরা পোশাক যেন না হয়।

মেয়েদের ক্ষেত্রেঃ

ফরমাল ড্রেস কোড দেশ, জাতি, ধর্মভেদে হতে পারে আলাদা রকম। এই বৈচিত্রতা সবচেয়ে বেশি দেখা যায় মেয়েদের ক্ষেত্রে। আমাদের দেশে মেয়েদের ফরমাল বলতে শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, শার্ট-প্যান্ট, স্যুট সবই চলে। এক্ষেত্রে অবশ্যই বেশি প্রাধান্য পাবে দেশীয় শাড়ি এবং সালোয়ার কামিজ। তবে তা অফিস ভেদে ভিন্ন ভিন্ন।

মার্জিত পোশাকের বেলায় কিছু জিনিস মাথায় রাখা জরুরি-

১। শার্ট বেশি ঢোলা এখন মানানসই নয়। আবার বেশি টাইট ফিটিংও পুরাতন হয়ে গেছে। তাই শার্টটি ভালো ফিটিং রাখতে সবার আগে ঠিক রাখুন শোল্ডারের মাপ। শোল্ডার এবং আর্মহোলের সেলাই যেন বেশি নেমে না গিয়ে কাঁধের উপরিভাগের শেষ প্রান্তে থাকে।

২। শার্টের টপ স্টিচ (ওপরের যে সেলাই গুলো চোখে পড়ে। যেমন সাইডের সেলাই, কাধের সেলাই, প্লাকেটের সেলাই) যেন অবশ্যই আঁকাবাঁকা না হয়।

৩। বাটন ভালো মানের হওয়া চাই।

৪। মেয়েদের ক্ষেত্রে নরমাল সুতি প্রিন্টেড শাড়ি না পরাই ভালো। জামদানি, সিল্ক, ট্রেন্ডি সুতিতে চোখ দিন।

৫। শাড়ির রঙ অবশ্যই মার্জিত হতে হবে। অফিসে সব সময় হালকা রঙের হলেই ভালো। যেন খুব বেশি চাকচিক্কতা (যেমন- ঝলমলা পুতি, ফেঞ্চি সুতার কাজ অথবা গ্লেজি রঙ) না থাকে।

৬। সালোয়ার কামিজ সহজে ফরমাল গেটআপ দিলেও তার রঙ অবশ্যই মার্জিত হতে হবে। তবে এতেও শাড়ির মতো একই হিসাব। যেন বেশি ঝকঝকা ডিজাইনের না হয়।

৭। অফিসে মেয়েদের অতিরিক্ত মেকআপ বা সাজগোজের দরকার নেই। এতে ফরমাল লুক ব্যাহত হয়।

বাংলা ইনসাইডার/এএসি/জেডএ