ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

যুবলীগ কি একটি বখে যাওয়া সংগঠন?

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৮ রবিবার, ০৮:০৪ এএম
যুবলীগ কি একটি বখে যাওয়া সংগঠন?

যুব সংগঠনের নাম শুনলেই ঘৃণা বা তাচ্ছিল্য প্রকাশ করা বাংলাদেশে একটি অতি সাধারণ চর্চা হিসেবে চালু আছে। যুব সংগঠন মাত্রই চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি নিয়ে ব্যস্ত থাকে এমন একটা ধারণা আছে আমাদের অনেকের মধ্যেই। তার ওপর যুব সংগঠনটি যদি ক্ষমতাসীন দলের হয় তাহলে তো কথাই নেই।পৃথিবীর সকল দোষ খুঁজে বেড়ানো হয় ওই সংগঠনের মধ্যে। এ যেন একটি ফ্যাশন, যুবকদের দোষারোপের ফ্যাশন। এই ফ্যাশনের অন্যতম বলি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ। তাদেরকে বখে যাওয়া যুবকদের সংগঠন হিসেবে চিত্রায়িত করতেই ভালোবাসেন অনেকে। কিন্তু আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে তাদের সুদূর ও অদূর অতীতের কর্মকাণ্ড বিশ্লেষণ করে কিন্তু পাওয়া যাচ্ছে ভিন্ন বাস্তবতা।

আমরা যদি পেছন ফিরে তাকাই তাহলে দেখবো বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটির অভ্যুদয় হয়েছে তরুণদের হাত ধরে। মুক্তিযুদ্ধে অনন্য অবদান রেখেছে তরুণ-যুবারা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার মূল হাতিয়ার এই তরুণ-যুবারাই। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড এবং তৎপরবর্তী রাজনৈতিক-সামাজিক অবক্ষয়ের দিনগুলো পেরিয়ে এসে আজকের তরুণরা যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করে চলেছে সেই প্রেক্ষাপটে যুবকদের জন্য একটি রাজনৈতিক সংগঠন থাকা অত্যন্ত জরুরি।কারণ রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি ছাড়া একজন মানুষ অসম্পূর্ণ এবং অপূর্ণাঙ্গ। রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি ও মূল্যবোধ মানুষকে পূর্ণতা দেয়। এই বাস্তবতায় রাজনৈতিক দূরদৃষ্টিসম্পন্ন, দেশপ্রেমিক তরুণ মানস গঠনে জন্মলগ্ন থেকেই ভূমিকা রেখে চলেছে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ। মুক্তিযুদ্ধে অবদান রয়েছে এই যুব সংগঠনটির। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের অমর শহীদ নূর হোসেনও একজন যুবলীগ কর্মী ছিলেন। এছাড়া সাম্প্রতিক দিনগুলোতে যুবলীগের কর্মকাণ্ড যদি আমরা দেখি তবে দেখবো সংগঠনটির ব্যতিক্রমী কর্মসূচিগুলো দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে সবার। গত কয়েক বছরে একটি সৃজনশীল ও যুক্তিবাদী সংগঠন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে যুবলীগ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীর ওপর অ্যালবাম প্রকাশ, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবনীর ওপর অ্যালবাম প্রকাশ, জনগণের ক্ষমতায়ন ও বিশ্ব শান্তির মডেল হিসেবে শেখ হাসিনার অর্জনের ওপর বই প্রকাশসহ বিভিন্ন সৃজনশীল ও মননশীল উদ্যোগের সঙ্গে জড়িত থাকছে যুবকদের এই সংগঠন। একুশে বই মেলায় বই প্রকাশ, জাতীয় ও রাজনৈতিক বিভিন্ন ঘটনাবলী উপলক্ষে লিফলেট ও ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা, ফটো অ্যালবাম প্রকাশের মতো কাজগুলো যুবলীগের ইতিবাচক রাজনীতি চর্চার প্রমাণস্বরূপ আমাদের সামনে উদ্ভাসিত হচ্ছে। যুবলীগের এই তথ্য ও গবেষণা মূলক কর্মকাণ্ডকে সাধুবাদ না দিয়ে পারা যায় না। প্রকৃতপক্ষে পেশীশক্তি এবং অস্ত্র ও কালো টাকার বাইরে গিয়ে বাংলাদেশে সুস্থ রাজনীতি চর্চার মাধ্যমে যে পরিবর্তনের সূচণা হয়েছে সেই বাক পরিবর্তনের রাজনীতির উৎকৃষ্ট উদাহরণ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ।

মূলত বাংলাদেশে বিরাজজীতিকরণের যে হীন চর্চা প্রচলিত রয়েছে তারই ফলস্বরূপ নেতিবাচকভাবে উপস্থাপিত করা হয় যুবলীগকে। দুয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা দিয়ে আড়াল করার চেষ্টা করা হয় তাদের সকল ভালো কাজ। কিন্তু বাংলাদেশে সুস্থ রাজনীতি চর্চার ধারা বজায় রাখতে হলে আওয়ামী যুবলীগের মতো যুব সংগঠনগুলোকে বিকশিত হতে দিতে হবে। আওয়ামী যুবলীগের ভালো কাজগুলোকে পাদপ্রদীপের আলোয় নিয়ে আসতে পারলে তা দেশের তরুণ-যুবাদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে উঠে সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ গঠনে অবদান রাখবে এ কথা কোনো ঝুঁকি ছাড়াই বলা যায়।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি/জেডএ 

বিষয়: যুবলীগ