ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

বিশ্বের খ্যাতনামা যত পুরুষ ফ্যাশন ডিজাইনার

মোস্তাকিম ভুঞা
প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০ মঙ্গলবার, ০৮:০২ এএম
বিশ্বের খ্যাতনামা যত পুরুষ ফ্যাশন ডিজাইনার

ফ্যাশনের জগৎটি ক্রমাগতভাবে বিকশিত হয়। সময়ের সাথে সাথে যে জিনিসগুলি একসময় জনপ্রিয়তার শীর্ষে, ফ্যাশন অন্যতম। তবে অনেকেই মনে করেন ফ্যাশন বা শোবিজ মানেই যেন শুধু নারী। পুরুষদের যেন এখানে কোন অংশগ্রহণই নেই। কিন্তু প্রকৃত বিষয় হচ্ছে ফ্যাশন জগতে পুরুষেরা নিজ যোগ্যতায় বহু আগে থেকেই প্রতিষ্ঠিত। বিশ্বের নামকরা সব ফ্যাশন ডিজাইনারদের মধ্যে পুরুষরাই সবচেয়ে বেশি। তাই চলুন জেনে নেই এমন কিছু বিশ্বখ্যাত পুরুষ ফ্যাশন ডিজাইনার সম্পর্কে।

ক্যালভিন ক্লিন

ক্যালভিন ক্লিন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্যাশন ডিজাইনার, ক্যালভিন ক্লেইন ইনক ও ইউনিসেক্স শৈলীর স্রষ্টা। প্রথমদিকে শুধুমাত্র পুরুষদের জন্য পোশাক তৈরি করা হত। তবে ফ্যাশনে নান্দনিকতা ও জনপ্রিয়তার মাধ্যমে কেলভিন মহিলাদের অন্তর্বাসসহ বিভিন্ন পোশাক তৈরি করা শুরু করল। তিনি পুরোপুরি পুরুষ ও নারী উভয়ের জন্যই ফ্যাশন জগতে নতুন নতুন সব সংযোজন নিয়ে আসেন।

টম ফোর্ড

টম ফোর্ড চলচ্চিত্র পরিচালক গুচির ডিজাইনের পরিচালক হিসাবে কাজ করে ফ্যাশন ডিজাইনার হিসাবে অভিজ্ঞতা তৈরি করেন। তার উদ্যমী কার্যক্রমের জন্য প্রতিষ্ঠানের আয় উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়। সেইসাথে ফ্যাশনে টম ফোর্ডের উদ্ভাবনী কাজের জন্য সহকর্মীদের মধ্যে খুব দ্রুত স্বীকৃতি এনে দেয়। ১৯৯৬ সালে, টম ডিজাইন কাউন্সিলের ‘ডিজাইন অফ দ্য ইয়ার’ পুরষ্কার লাভ করে। তিনি ফ্যাশনের নতুন ট্রেন্ডকে ‘টম ফোর্ড’ বলেছেন। তিনি ফ্যাশনে পুরুষদের পোশাক, চশমা, আনুষাঙ্গিক এবং কয়েক ডজন নতুন বুটিক ইত্যাদি নানা সংযোজন আনেন।

পিয়ের কার্ডিন

তিনি থিয়েটার শিল্পী হিসাবে তার কেরিয়ার শুরু করেছিলেন। ‘বিউটি অ্যান্ড দ্য বিস্ট’ চলচ্চিত্রের পোশাক তৈরি করার মাধ্যেমে ফ্যাশন ডিজাইনে কাজ শুরু করেন। এক বছর পরে, তিনি ক্রিশ্চিয়ান ডায়ারের সাথে অভিজ্ঞতা অর্জনের সিদ্ধান্ত নেন। এভাবে একজন মেধাবী যুবকের নিজস্ব ফ্যাশন হাউস খোলার জন্য তিন বছর যথেষ্ট ছিল। অস্বাভাবিক নকশা তাকে বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনারদের পাশে স্থান দেয়। এবং তাদের পরিচিত করার অনুমতি দেয়। তিনিই প্রথম ডেনিম প্রবণতা তৈরি করতে শুরু করেছিলেন। যুবক ও শিশুদের জন্য এমন পোশাক তৈরি করেছিলেন বলে জানা যায়। বিশ্বখ্যাত এই ফ্যাশন ডিজাইনার ৫০০টি আবিষ্কারের পেটেন্ট করেন। এরমধ্যে রয়েছে হাই বুট, ফুলের বন্ধন, বোতামগুলির সাথে টাইট ট্রাউজার্স ইত্যাদি।

রাল্‌ফ লরেন

রাল্‌ফ লরেন একজন আমেরিকান ফ্যাশন ডিজাইনার। টিনি বিশ্বের ধনী ব্যক্তিদের করা তালিকায় তার অবস্থান শীর্ষে। তিনি সাধারণ জমির মালিকদের ইমেজ দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। পাশাপাশি ‘ওয়েস্টার্ন’ এর স্টাইলও জুড়ে দিয়েছিলেন। জিন্স দিয়েছিল, সেইসাথে ফ্রিঞ্জের সাথে চামড়ার জ্যাকেট। লরেন রোমান্টিকতা, কমনীয় তা, পুংলিঙ্গ, সরলতার সংমিশ্রণে তাঁর নিজস্ব নির্দেশিকা তৈরি করেন। তবে একই সাথে পোশাকের ফ্যাশনের ক্ষেত্রে একজন ব্যক্তির সামাজিক অবস্থান এবং আর্থিক স্বাধীনতার উপর জোর দেন। একবার ছোটবেলায় লরেনের সাথে এক ধনী পরিবারেরসন্তানের দেখা হয়। আর তখন তিনি কোটিপতি হওয়ার প্রতিশ্রুতি করেছিলেন। হয়তো এই কারণে আজ শীর্ষ ধনী রাল্‌ফ লরেন।

জর্জিও আরমানি

জর্জিও আরমানি ইতালীয় ফ্যাশন ডিজাইনার। তিনি তাঁর মায়ের পৃষ্ঠপোষকতায় এমন পেশায় আসেন বলে জানা যায়। করেছিলেন। ফ্যাশন ডিজাইনে তার দুর্দান্ত যাত্রার শুরুতে, জর্জিও ফ্যাশন ডিজাইনার নিনো চেরুট্টির সহকারী হিসাবে কাজ করেছিলেন। কাটা, সেলাই, ফ্যাব্রিক উপর একটি প্যাটার্ন দক্ষতা অর্জন করেন। ৪০ বছর বয়সে, তিনি নিজের প্রথম সংগ্রহটি উপস্থাপন করেছিলেন। তিনি একটি প্রতিষ্ঠান চালু করেন। এবং একটি হাট সিউচার পোশাকের লাইন চালু করলেন। যার নাম আরমানি প্রাইভ। আর এখন ইতালির এই বিখ্যাত ধনী ফ্যাশন ডিজাইনার নির্জনে জীবনযাপন করছেন।