ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চান প্রধান বিচারপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ১০:০০ পিএম
রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চান প্রধান বিচারপতি

বিচার বিভাগের সঙ্গে নির্বাহী বিভাগের চলমান সংকট নিরসনে উদ্যোগ নিচ্ছেন স্বয়ং প্রধান বিচারপতি। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা মহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। একই সঙ্গে তিনি আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হকের সঙ্গে বৈঠকের ইচ্ছা পোষণ করেন। সুপ্রিম কোর্ট সূত্রে এ খবর জানা গেছে।

জাপান থেকেই দেশে ফিরেই প্রধান বিচারপতি মহমান্য রাষ্ট্রপতির কাছে সময় চেয়েছেন বলে জানা গেছে। বঙ্গভবন থেকে তাঁকে আনুষ্ঠানিক সময় দেওয়া হয়নি। তবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বঙ্গভবনের অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কিন্তু এ ধরনের অনুষ্ঠানে এসব আলোচনার সুযোগ নেই। প্রধান বিচারপতির ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো জানাচ্ছে, বিচার বিভাগের মর্যাদা প্রসঙ্গে তিনি মহামান্য রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতে আগ্রহী। তাঁর অনুপস্থিতি জাতীয় সংসদে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আলোচনায় অনেক সদস্য প্রধান বিচারপতি এবং বিচার সম্পর্কে বেশ কিছু আপত্তিকর এবং অশোভন মন্তব্য করেছেন। প্রধান বিচারপতি তাঁর ঘনিষ্ঠদের বলেছেন, প্রধান বিচারপতি কোনো ব্যক্তি নয়, এটা একটা প্রতিষ্ঠান। তাঁর মতে , ষোড়শ সংশোধনী রায়ের পর যেভাবে তাঁকে ব্যক্তিগত আক্রমণ এবং তাঁর বিরুদ্ধে কুৎসা রটানো হচ্ছে, তাতে বিচার ব্যবস্থা সম্পর্কে মানুষের আস্থা নষ্ট হবে। বিচারপতি এস কে সিনহা এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ চাইবেন। প্রধান বিচারপতির ঘনিষ্ঠ সূত্র গুলোর মতে, প্রধান বিচারপতি রাষ্ট্রপতিকে এই বার্তা দিতে চান যে,ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করার সুযোগ আছে। রিভিউ পিটিশনে তিনি রায়ের আপত্তিকর বিষয় গুলো দেখবেন বলেও মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করতে চান।

বঙ্গভবনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে জানা যায়, বঙ্গভবন এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধান বিচারপতির কাছ থেকে সময় প্রার্থনার চিঠি পাননি। তবে অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, বঙ্গভবন প্রধানমন্ত্রীর ফেরার অপেক্ষা করছে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেই, প্রধান বিচারপতির সঙ্গে কথা বলতে চান রাষ্ট্রপতি।

এদিকে, প্রধান বিচারপতি আইনমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলতে চান। অ্যাটর্নি জেনারেলকে প্রধান বিচারপতি আগামী ৮ অক্টোবরের আগে একটা বৈঠকের ব্যবস্থা করার অনুরোধ করেছেন। তবে আইনমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কারণ ভিন্ন। আগামী ৮ অক্টোবর অধঃস্তন আদালতের বিচারকদের আচরণবিধি সংশোধিত আকারে আপিল বিভাগে উপস্থাপন করার কথা। কিন্তু আইন মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, প্রধান বিচারপতি যেভাবে আচরণ বিধি চাইছেন তাতে রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হয়। তাই আইন বিভাগ সুপ্রিম কোর্টের চাহিদা অনুযায়ী আচরণ বিধি সংশোধন করতে পারবে না। একারণেই, প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ এড়িয়ে চলছেন আইনমন্ত্রী। তবে বিচার বিভাগের সঙ্গে নির্বাহী বিভাগের এই বিরোধের শেষ পর্যন্ত কোথায় দাঁড়ায় তা বোঝা যাবে সুপ্রিম কোর্ট খুললেই।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ