ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

১০ দিনের আবহাওয়া পূর্বাভাস দেবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সোমবার, ০২:১৭ পিএম
১০ দিনের আবহাওয়া পূর্বাভাস দেবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট

আমাদের স্বপ্নের বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সুফল ইতিমধ্যেই আসতে শুরু করেছে। আমরা এখন তিনদিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাস পাই। কিন্তু স্যাটেলাইটের সুবাদে টানা ১০ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাস পাওয়া যাবে এখন থেকে। সেই সঙ্গে মিলবে দুর্যোগের সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ ও স্থায়িত্বকাল।

এই স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া সংকেত সারাদেশে নির্ভুলভাবে পৌঁছে দিতে নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। সারাদেশে স্থাপন করা হচ্ছে আরও ২০০টি আবহাওয়া সতর্ককরণ কেন্দ্র। এরই মধ্যে নিজস্ব স্যাটেলাইটের সর্বোচ্চ ব্যবহারে অঞ্চলভিত্তিক স্যাটেলাইট কেন্দ্র করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

বর্তমানে দেশের আবহাওয়া পরিমাপ কিংবা জলবায়ু পরিবর্তনের সমীক্ষা তৈরিতে বর্তমানে আলাদা আলাদা স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক ব্যবহার হয়। ফলে আবহাওয়ার সঠিক তথ্য বা সংকেত যথাসময়ে পাঠানো সম্ভব হয় না। আবার অপরদিকে বিদেশি স্যাটেলাইটের জন্য অর্থ খরচও বেশি হচ্ছে।

কিন্তু এবার নিজস্ব বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে থাকা যন্ত্রপাতির মাধ্যমে সারাদেশে আবহাওয়ার সঠিক পূর্বাভাস সময়মত পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে। তাই তথ্য উপাত্ত পর্যবেক্ষণের সক্ষমতা বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ইন্টারনেট কিংবা মোবাইল সংযোগ না থাকলে তখন আবহাওয়ার পূর্বাভাস পাওয়া যায় না। কিন্তু বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর মাধ্যমে সব তথ্য ঢাকায় ঝড় সতর্কীকরণ কেন্দ্রে নিয়ে আসা যাবে।

আর এখন থেকে তিন দিনের পরিবর্তে ১০ দিনের পূর্বাভাসের পাশাপাশি দুর্যোগের দিনক্ষণ ও স্থায়িত্বকাল উল্লেখসহ আবহাওয়ার প্রতিঘন্টার অগ্রগতি তুলে ধরা হবে আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে। কোথায় কখন বৃষ্টি হবে, সেই বৃষ্টি ভারী নাকি মাঝারি হবে, আদ্রতা কেমন থাকবে তার সবই উল্লেখ থাকবে আবহাওয়া পূর্বাভাসে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে সব ধরনের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়লে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সারাদেশে তথ্য উপাত্ত আদান-প্রদানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে স্যাটেলাইট কেন্দ্র স্থাপনের পরামর্শ বিশেষজ্ঞরা দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ সালাউদ্দীন সেলিম বলেন, যখন দুর্যোগ হয় তখন পুরো যোগাযোগ ব্যবস্থা বিকল হয়ে যায়। স্যাটেলাইটে যেহেতু ক্যাবলের কোনো ঝামেলা নেই তাই এটি আবহাওয়ার তথ্য পৌঁছানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

নিজস্ব স্যাটেলাইট ব্যবহার করে অঞ্চলভিত্তিক পরিবর্তনশীল আবহাওয়া পরিস্থিতি সরাসরি পেতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিচ্ছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। এজন্য সারাদেশে হ্যাজার্ড ম্যাপ তৈরি করা হয়েছে যার অ্যাকুরেসি ১০০ শতাংশ। এক্ষেত্রে স্যাটেলাইট বেশ সহায়ক হবে।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ