ইনসাইড বাংলাদেশ

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন: জনসভাস্থলে জনস্রোত

প্রকাশ: ০৮:১৭ এএম, ২৫ জুন, ২০২২


Thumbnail পদ্মা সেতুর উদ্বোধন: জনস্রোতে পরিণত হচ্ছে সমাবেশস্থল

স্বপ্নের পদ্মা সেতু এখন আর স্বপ্ন নয় বাস্তব। এই সেতু দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের স্বারক হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়ার সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার (২৫ জুন) সকালে মাওয়া পয়েন্টে উদ্বোধনী ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে পদ্মা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

এদিকে সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে দুপুরে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়িতে আওয়ামী লীগ এক জনসভার আয়োজন করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই  জনসভায় যোগ দিয়ে ভাষণ দেবেন। দুপুরে সমাবেশ শুরুর কথা থাকলেও ভোর থেকেই জড়ো হচ্ছেন দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা মানুষ।

এরইমধ্যে লাখো মানুষের উপস্থিতিতে সরব পদ্মার ওপার। পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ঘিরে সেখানে বিরাজ করছে সাজ সাজ রব। জনসভাকে কেন্দ্র করে পুরো মাদারীপুর জেলায় উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। ফেস্টুন ব্যানারে ছেয়ে গেছে পুরো মাদারীপুর।  

সরেজমিনে দেখা গেছে, ভোর থেকে ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের শিবচরের অংশ ও বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে মিছিলে-স্লোগানে উজ্জীবিত নেতাকর্মীদের স্রোত জনসভাস্থলের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। লাল-সবুজ টি-শার্ট ও মাথায় ক্যাপ পরে পায়ে হেঁটে বা পিকআপ ভ্যান, ট্রাক ও বাসে বিভিন্ন সড়ক ধরে যেভাবে পারছেন, ঘাটের দিকে আসছেন নেতাকর্মীরা।  


 
এদিকে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে সর্বাত্মক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বিশাল সমাবেশে প্রায় ১০ লাখ মানুষ যোগ দেবে বলে জানিয়েছেন মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক। 

পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত অনুষ্ঠানস্থলটি ১১টি পিলারের ওপর ১০টি স্প্যান বিশিষ্ট একটি প্রতীকী অস্থায়ী পদ্মা সেতু নির্মাণের মাধ্যমে জমকালোভাবে সাজানো হয়েছে। প্রতীকী সেতুর সামনে উদ্বোধনী মঞ্চ স্থাপন করা হয়েছে। 

অস্থায়ী সেতুটি ২০০ ফুট লম্বা ও ৮ ফুট চওড়া। মঞ্চটি ১৫ ফুট লম্বা এবং ৪০ ফুট চওড়া। মঞ্চের সামনে একটি ৬০ ফুট লম্বা বিশালাকার নৌকা পানিতে ভাসছে। এ ছাড়া সেখানে বেশ কিছু ছোট নৌকাও রয়েছে। প্রায় ১৫ একর জায়গার ওপর ভেন্যু প্রস্তুত করা হয়েছে।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। 

পদ্মা সেতু উদ্বোধন   পদ্মা সেতু   উদ্বোধন  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

তেলের পাশাপাশি বেড়েছে সিমেন্টের দাম

প্রকাশ: ০১:৫৫ পিএম, ০৯ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail তেলের পাশাপাশি বেড়েছে সিমেন্টের দাম

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়তে শুরু করেছে অন্যান্য জিনিসেও । গত শুক্রবার ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রলের দাম সর্বনিম্ন ৩৪ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৪৬ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়েছে। আর তাতেই গত ৩ দিনে সিমেন্টের দাম বেড়েছে প্রতি বস্তায় ৪০ থেকে ৫০ টাকা। গত তিন দিনে সিমেন্ট খাতের বেশির ভাগ কোম্পানিই দাম বাড়িয়েছে। আর কেউ কেউ তেলের দাম বাড়ার আগে গত সপ্তাহেই দাম বাড়িয়েছিল।

কোম্পানিসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় কাঁচামাল আমদানিতে খরচ ২০ থেকে ২৫ শতাংশ বেড়েছে। তার সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হয়েছে বাড়তি জ্বালানি খরচ। এ কারণে কোম্পানিগুলো ধীরে ধীরে দাম সমন্বয় করতে শুরু করেছে।

ভবিষ্যতে আরও দাম সমন্বয় করতে হবে বলে জানান কোম্পানিসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। একসঙ্গে বেশি দাম বাড়ালে হঠাৎ করে বিক্রি অনেক কমে যেতে পারে, এ শঙ্কায় ধীরে ধীরে দাম সমন্বয়ের পথে হাঁটছে কোম্পানিগুলো।



সিমেন্ট   দাম বৃদ্ধি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

রিমান্ড চেয়ে আদালতে তোলা হবে সেই বাস ডাকাতদের

প্রকাশ: ০১:০৪ পিএম, ০৯ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রিমান্ড চেয়ে আদালতে তোলা হবে সেই বাস ডাকাতদের

টাঙ্গাইলে গভীর রাতে চলন্ত বাস জিম্মি করে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ১০ জন আসামি‌কে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে র‍্যাব । সোমবার (৮ আগস্ট) রাতে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী রতন হোসেনসহ ১০ আসামিকে ডিবির কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) দুপু‌রে রিমান্ড চে‌য়ে আসামিদের আদাল‌তে পাঠা‌নো হবে।

র‍্যাব  জানায়, বাসের হেলপারের ছদ্মবেশে ২০১৮ সাল থেকে যাত্রীবাহী বাসসহ বিভিন্ন স্থানে ডাকাতি করে আসছিল রতন হোসেন (২১)। তিনি এ চক্রের দলনেতা। তার অধীনে ১৩ থেকে ১৫ জন সদস্য রয়েছে। ডাকাতির ঘটনায় দুই দফা কারাভোগও করেছেন তিনি। দ্বিতীয় দফায় ৯ মাস কারাভোগের পর জামিনে বের হয়ে আসেন এবং পুনরায় যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতি করে দলনেতা হন রতন হোসেন।

টাঙ্গাইল র‌্যাব-১২ এর ৩ নম্বর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান জানান, সোমবার (৮ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে রতনসহ গ্রেপ্তার ১০ জনকে ঢাকা থেকে টাঙ্গাইলে আনা হয়। এরপর রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাদের ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এর আগে রোববার (৭ আগস্ট) তাদের ঢাকা, গাজীপুর ও সিরাজগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার র‌্যাব-১২ ও ১৪।

এদিকে ঈগল এক্সপ্রেস বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণের ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী রতনের বাড়ি টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার কুড়ালিয়া ইউনিয়নের ধলপুর গ্রামে। ময়মন‌সিংহ-টাঙ্গাইল আঞ্চ‌লিক মহাসড়‌কের রক্তিপাড়ায় দুর্ঘটনার পর বাস থে‌কে নে‌মে ডাকাতরা ঘটনাস্থল থে‌কে পাঁচ কি‌লো‌মিটার দূ‌রে রত‌নের নানা বে‌লো মিয়ার বা‌ড়ি‌তে যায় ব‌লে জানা গে‌ছে। এরপর সকা‌লেই সেখান থেকে বেরিয়ে পড়ে। পরবর্তীতে ঘর পরিষ্কার করতে গিয়ে বা‌ড়ির গৃহবধূ জেরিন তিনটি মোবাইলের কভার এবং একটি ছুরি দেখতে পান।

টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, ডাকা‌তি ও ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতারকৃত ১০ জনকে সোমবার ঢাকায় সংবাদ স‌ম্মেলন শে‌ষে রা‌তে ডি‌বির কাছে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আসামিদের দুপু‌রের দি‌কে রিমান্ড চে‌য়ে আদালতে তোলা হবে। এর আগে গ্রেপ্তারকৃত তিনজন কারাগারে রয়েছে। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।


টাঙ্গাইল   বাস ডাকাতি   আদালত  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

মৃত ব্যক্তির নামে ঋণ

প্রকাশ: ১১:২৫ এএম, ০৯ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail মৃত ব্যক্তির নামে ঋণ

মৃত ব্যক্তির নামেও ঋণ দিয়েছে কৃষি ব্যংক। তাদের রাজবাড়ী শাখায় ঋণ বিতরণে অনিয়মের ঘটনা ধরা  পড়েছে। আবার একজনের কাগজপত্র ব্যবহার করে ঋণ নিয়েছেন আরেকজন।

২০১৫/১৬ বছরে ব্যাংকটির রাজবাড়ী শাখা থেকে ১ হাজার ৬০১ জনকে ঋণ দেওয়া হয়। গত ফেব্রুয়ারিতে ঋণ জালিয়াতির ঘটনা ধরা পড়ে। তাঁদের মধ্যে ৪৫৮ জনের কাছ থেকে ঋণ আদায়ের জন্য বিশেষভাবে উদ্যোগ গ্রহণের নির্দেশনা দেয় ব্যাংকের অডিট কমিটি। ওই ঘটনায় ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ব্যাংকের শাখা সূত্রে জানা যায়, ধান, পেঁপে, কলাসহ বিভিন্ন ফসল উৎপাদনের জন্য এসব ঋণ দেওয়া হয়। ঋণের পরিমাণ সর্বনিম্ন ৭ হাজার থেকে শুরু করে ১ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। তবে বেশির ভাগ ঋণ ৫০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকার মধ্যে। ১ হাজার ৬০১ জনকে ঋণ দেওয়া হয় প্রায় ১০ কোটি টাকা। এক বছরের মধ্যে পরিশোধ করার কথা ছিল। ইতিমধ্যে ৮৬৭ জন ঋণ পরিশোধ করেছেন। বকেয়া টাকার পরিমাণ তিন কোটি টাকার কিছু বেশি। আর ব্যাংকের ওই শাখায় মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ ১৪ কোটি ২৬ লাখ টাকা।

রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন রহিম ধাবক। তিনি বার্ধক্যের কারণে ২০০৫ সালে মারা যান। অথচ তাঁর নামে ২০১৫ সালের ২ আগস্ট ৬০ হাজার টাকা কৃষিঋণ নেওয়া হয়। পরিবারের সদস্যরা এই ঋণের বিষয়ে জানতেন না। গত বছর বাড়িতে নোটিশ আসার পর তাঁরা বিষয়টি জানতে পারেন।

ব্যাংকঋণের জন্য আবেদনকারীকে সশরীর ব্যাংকে উপস্থিত হতে হয়। আবেদনপত্রের সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, পাসপোর্ট আকারের ছবি, বাড়ির জমির খাজনা প্রদানের রশিদ, জমিজমার পরচা বা দলিল দিতে হয়। এরপর ব্যাংক কর্মকর্তা বা মাঠকর্মীরা তা সরেজমিনে যাচাইবাছাই করেন। তথ্যের সত্যতা পাওয়ার পর ব্যাংক ব্যবস্থাপকের কাছে প্রতিবেদন আকারে জমা দেন। এরপর ঋণ দেওয়া হয়। কিন্তু এ ক্ষেত্রে কোন ধরণের নিয়ম না মেনেই যাকে খুশি তাকে ঋণ দেয়া হয়েছে।

 


কৃষি ব্যংক   ঋণ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

রেলের ডিজিটালাইজেশনে নিয়ে জয়ের সঙ্গে রেলওয়ের বৈঠক

প্রকাশ: ১১:০৬ এএম, ০৯ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রেলের ডিজিটালাইজেশনে নিয়ে জয়ের সঙ্গে রেলওয়ের বৈঠক

রেলের কার্যক্রম ডিজিটালাইজড করতে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

সোমবার (৮ আগস্ট) অনলাইন প্লাটফর্মে বাংলাদেশ রেলওয়ের সঙ্গে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন প্লাটফর্মে এ আলোচনা সভায় আইসিটি বিভাগের কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

এ তথ্য জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বৈঠকে রেলকে ট্রাকিং সিস্টেমে আনা, টিকিট কেনায় আধুনিকায়ন, রেলের সিগন্যাল ডিজিটালাইজড করা ও রেল সেবা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

রেল   ডিজিটালাইজেশন  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

রাজধানীতে নিরাপত্তার চাদরে তাজিয়া মিছিল

প্রকাশ: ১০:৪৫ এএম, ০৯ অগাস্ট, ২০২২


Thumbnail রাজধানীতে নিরাপত্তার চাদরে তাজিয়া মিছিল

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাজধানীর ইমামবাড়া থেকে তাজিয়া মিছিল বের হয় সকাল সাড়ে আটটায়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া নিরাপত্তা দিচ্ছে এই তাজিয়া মিছিলে।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) সকাল ১০টায় রাজধানীর হোসেনি দালান থেকে এ মিছিল শুরু হয়। মিছিলটি আজিমপুর-নিউমার্কেট হয়েছে ধানমন্ডি লেকে গিয়ে শেষ হবে। তাজিয়া মিছিল শুরুর আগে মহড়া দিয়েছে শিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন।

মহররম মাসের ১০ তারিখ ইসলামের ইতিহাসে শোকের। যা মুসলমানরা আশুরার দিন হিসেবে পালন করে। মহররমের ১০ তারিখে ইমাম হোসেন (রা.) কারবালার ময়দানে শহীদ হয়েছেন। মুসলমানদের মধ্যে শিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন ইমাম হোসেন (রা.) এর শোক স্মরণে রাস্তায় ঘুরে মিছিল বা মাতম করে। রাজধানীর ইমামবাড়া হোসেনী দালান থেকে প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও শিয়া মুসলমানরা তাজিয়া মিছিল শুরু করেছে। 

সরেজমিন দেখা যায়, মিছিলে উপস্থিত বেশিরভাগই কালো পাঞ্জাবি পরে ‘হায় হোসেন, হায় হোসেন’ মাতম করছে। বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারও দেখা গেছে মিছিলে। মূল আয়োজনের রয়েছে হোসেনি দালান ইমামবাড়া ব্যবস্থাপনা কমিটি।

এদিকে পবিত্র আশুরা উপলক্ষে রাজধানীর হোসেনি দালান ইমামবাড়া, বড় কাটারা ইমামবাড়া এবং এর আশেপাশের শিয়া সম্প্রদায় কেন্দ্রিক বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া (শোক) মিছিলকে ঘিরে নেওয়া হয়েছে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আর এই নিরাপত্তা জোরদারে কাজ করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

সকালে রাজধানীর হোসানী দালান ইমামবাড়া, বড় কাটারা ইমামবাড়া ও এর আশেপাশের শিয়া সম্প্রদায়ের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে, পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা সতর্কাবস্থানে রয়েছেন। নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন র‌্যাব সদস্যরাও।

অন্যদিকে, সুষ্ঠুভাবে তাজিয়া মিছিল সম্পন্ন করতে দা, ছোরা, কাঁচি, বর্শা, বল্লম, তরবারি, লাঠি বহন নিষিদ্ধ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। একই সঙ্গে আতশবাজি ও পটকা ফোটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছে পুলিশ ও র‌্যাব।

নিরাপত্তা   তাজিয়া মিছিল   পবিত্র আশুরা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন