ইনসাইড বাংলাদেশ

মিয়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ড্রোন

প্রকাশ: ০১:৪৭ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২


Thumbnail

মিয়ানমার সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ড্রোন ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এজন্য কোস্টগার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনে একটি অত্যাধুনিক ড্রোন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বর্ডার গার্ডকেও ড্রোনসমৃদ্ধ করা হচ্ছে।

রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদীয় কমিটির এক বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির আগের বৈঠকে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ড্রোন ব্যবহার করা যায় কি না, তা খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। রোববারের বৈঠকে ওই সুপারিশের অগ্রগতি জানানো হয়।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, সীমান্তে নজরদারি ও সার্বিকভাবে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বিজিবিতে ড্রোন/ইউএভি সংযোজনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বৈঠকে জানানো হয়, এ বছরের জুনে কোস্টগার্ড দুটি অত্যাধুনিক ও উন্নত ফিচারসমৃদ্ধ ফটোগ্রাফি ড্রোন কিনেছে। ভাসানচরে একটি এবং মিয়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে কোস্টগার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনে আরেকটি ড্রোন মোতায়েন করা হয়েছে। 

বৈঠকে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ বলেন, সীমান্তে উত্তেজনার কারণে চট্টগ্রামের সীমান্তবর্তী এলাকার জনসাধারণের মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পর্যটকরাও ওই অঞ্চলে যেতে ভয় পাচ্ছেন। 

তিনি বলেন, আপস চিন্তা বাদ দিয়ে কাউন্টার গুলির মাধ্যমে নিজেদের শক্তিমত্তার জানান দিতে হবে। 

জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, মিয়ানমার থেকে যাতে কেউ বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে-প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা কঠোরভাবে পালন করা হচ্ছে। মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি নিয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার জন্য তিনি সবাইকে আহ্বান জানান। 

জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি বেনজীর আহমেদ বলেন, সীমান্তে ড্রোন দিয়ে নজরদারি করার সুপারিশ করেছিল কমিটি। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ও একমত হয়। বর্তমান ভাসানচরসহ রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় ড্রোন দিয়ে নজরদারি চলছে। বিজিবির মাধ্যমে সীমান্ত এলাকায় ড্রোন ব্যবহার করে নজরদারি করা হবে বলে মন্ত্রণালয় সংসদীয় কমিটিকে জানিয়েছে।

কমিটির আগের বৈঠকের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ৩০০ ফুট (পূর্বাচল রোডে) এলাকার কাশবনসহ জঙ্গল পরিষ্কার করে ডাকাতি বন্ধে পুলিশের টহল বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া বৈঠকে ট্যুরিস্ট পুলিশ বা শিল্প পুলিশের আদলে পূর্ণাঙ্গ সাইবার ক্রাইম ইউনিট খোলার সুপারিশ করা হয়েছে। এজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বলা হয়েছে। আগারগাঁও এবং বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসে সিনিয়র সিটিজেনসহ অন্য বিশেষায়িত ব্যক্তিদের জন্য আলাদা বুথ স্থাপন ও যথাযথ সেবা নিশ্চিত করা হয়েছে বলে বৈঠকে জানানো হয়।


সীমান্ত পরিস্থিতি   মিয়ানমার   ড্রোন   বাংলাদেশ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

সরকার দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য সংরক্ষণে গুরুত্ব প্রদান করেছে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ: ০৮:৪৯ পিএম, ২২ মার্চ, ২০২৩


Thumbnail সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের সংবিধানে সাংস্কৃতিক সম্পদ ও বৈচিত্র্য রক্ষায় ম্যান্ডেট অন্তর্ভুক্ত করেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য তথা সাংস্কৃতিক সুরক্ষায় যথাযথ গুরুত্ব প্রদান করেছে এবং বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের অর্থায়নে মোগল আমলে নির্মিত লালবাগ দুর্গের ঐতিহাসিক হাম্মামখানার সংস্কার-সংরক্ষণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে। সেজন্য সংশ্লিষ্টদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

বুধবার (২২ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর লালবাগ দুর্গ মিলনায়তনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের Ambassadors Fund For Cultural Preservation (AFCP)  প্রোগ্রামের অর্থায়নে প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত 'Restoring, Retrofitting and 3D Architectural Documentation of Historical Mughal Hammam of Lalbag Fort'- শীর্ষক প্রকল্পের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মহাপরিচালক চন্দন কুমার দে- এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর। প্রকল্পটি সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত উপস্থাপনা করেন প্রকল্পের পরামর্শক ও সংরক্ষণ স্থপতি প্রফেসর ড. আবু সাঈদ এম আহমেদ।

প্রধান অতিথি বলেন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় হাম্মামখানার পাশাপাশি বেশ কিছু ঐতিহাসিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপনা সংস্কার-সংরক্ষণে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে সোনারগাঁও লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন প্রাঙ্গণে অবস্থিত বড় সরদার বাড়ি দৃষ্টিনন্দনভাবে সংস্কার করা হয়েছে। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের মাধ্যমে সোনারগাঁওয়ের ঐতিহাসিক পানাম সিটির সংস্কার-সংরক্ষণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে জরিপ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে, ডকুমেন্টেশনের কাজ চলমান রয়েছে। এটি সফলভাবে সমাপ্ত হলে দেশের প্রত্নতাত্ত্বিক সংস্কার-সংরক্ষণে একটি মাইলফলক অর্জিত হবে বলে আমার বিশ্বাস। 


মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেন, বিশ্বজুড়ে সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের প্রসার, মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে সমর্থন করা এবং সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে সংরক্ষণ করা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য অগ্রাধিকার।  আগামী প্রজন্মের জন্য আমাদের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে রক্ষা করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর বলেন, লালবাগ কেল্লা মোগল আমলে নির্মিত একটি গুরুত্বপূর্ণ পুরাকীর্তি। ১৬৭৮ খ্রিষ্টাব্দে মোগল সুবেদার মুহাম্মদ আযম শাহ এ দুর্গের নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ঐতিহাসিক গুরুত্বের সঙ্গে  প্রত্নতাত্ত্বিক ও অনন্য স্থাপত্যশৈলীর জন্য এটি বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। তিনি বলেন, ইউনেস্কো'র গাইডলাইন ও হেরিটেজ ইম্প্যাক্ট অ্যাসেসমেস্ট পূর্বক যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে লালবাগ কেল্লার হাম্মামখানার সংস্কার-সংরক্ষণ কাজ সম্পাদন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এক লক্ষ পঁচাশি হাজার নয়শত তেত্রিশ মার্কিন ডলার ব্যয়ে সমাপ্ত প্রকল্পটির কাজ ২০২০ সালে শুরু হয়। প্রকল্পের কাজে পরামর্শক হিসেবে তিনজন বিশেষজ্ঞ ও একটি বিশেষায়িত ফার্ম নিয়োজিত ছিলো।


সংস্কৃতি   প্রতিমন্ত্রী   কে এম খালিদ   পিটার ডি হাস   মার্কিন রাষ্ট্রদূত  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ভুটানের রাজার সাথে বাণিজ্যমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ

প্রকাশ: ০৮:২১ পিএম, ২২ মার্চ, ২০২৩


Thumbnail ভুটানের রাজার সাথে বাণিজ্যমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ

ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচু (Jigme Khesar Namgyel Wangchuch)- এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন দেশেটি সফররত বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। বুধবার (২২ মার্চ) থিম্পুতে বাংলাদেশ-ভুটান ট্রানজিট এগ্রিমেন্ট ও প্রোটোকল স্বাক্ষর শেষে বাণিজ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধিদল ভুটানের রাজার সাথে করেন।

সাক্ষাৎকালে বাণিজ্যমন্ত্রী ভুটানের রাজাকে বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন। এ সময় ভুটানের রাজাও বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী উভয় দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বৃদ্ধির লক্ষ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য ট্যুরিজম, বিদ্যুৎ সরবরাহসহ বিভিন্ন খাতে ভুটানের অধিকতর সহযোগিতা কামনা করেন। বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের পর প্রথম স্বীকৃতি দানকারী দেশ হওয়ায় এবং স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে পাশে থাকায় ভুটানের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।ভবিষ্যতে দুই দেশের সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন মন্ত্রী।

 ট্রানজিট এগ্রিমেন্ট সম্পাদনের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচু বাংলাদেশ ও ভুটানের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরো জোরদার করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। এছাড়া ভুটানের রাজা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশের অভাবনীয় আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ভূয়শী প্রশংসা করেন।


ভুটান   রাজা   বাণিজ্যমন্ত্রী  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

ঝুঁকি নিয়ে পিক আপে ডিজে পার্টির নাচে ঘুরাঘুরি, আটক ২২ কিশোর

প্রকাশ: ০৮:০৩ পিএম, ২২ মার্চ, ২০২৩


Thumbnail

ভোলার বোরহানউদ্দিনে পিকআপকরে উচ্চস্বরে গান বাজিয়ে ঘোরাঘুরির সময় একটি পিকআপসহ ২২ কিশোরকে আটক করেছে বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশ। 

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) দুপুরে পিকআপ সাউন্ড বক্সসহ তাদের আটকের পর থানায় নেওয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনির উদ্দিন।

পরে ভোলা জেলা সুপার নির্দেশক্রমে তাদের অভিভাবকদের থানায় ডেকে মুচলেকা নিয়ে আটককৃতদের অভিভাবকের জিম্মায় প্রেরণ করা হয়। আটককৃত পিকআপ গাড়ীর নামে ট্রাফিক আইনে মামলা দেয়া হয়েছে।

ভোলা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জনসাধারণের বিরক্তি সৃষ্টি হয় এমন কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে সকলের প্রতি আহবান জানান এবং যাঁরা জনসাধারণের বিরক্তি সৃষ্টি করে বা স্বাভাবিক জনজীবনে ব্যাঘাত ঘটে এমন কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত হবে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে জেলা পুলিশের সকল ইউনিটের প্রতি নির্দেশনা প্রদান করেন।



মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

বাগেরহাটে জলবায়ু বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ: ০৭:৫৬ পিএম, ২২ মার্চ, ২০২৩


Thumbnail

বাগেরহাটে ’’প্রেক্ষিত জলবায়ু এবং পরিবেশগত অবক্ষয়’’ বিষয়ক মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২২ মার্চ) সকালে বাঁধন মানব উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে এবং দি এশিয়া ফাউন্ডেশন এর আর্থিক সহযোগিতায় মোংলা উপজেলার উত্তর হলদেবুনিয়া সরকারী স্কুলের হলরুমে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুক্ত আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মোংলা উপজেলা কৃষি সপ্রসারন কর্মকর্তা পরমা রানী সাহা।

উত্তর হলদেবুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিমল কৃষ্ণ চক্রবর্তী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মুক্ত আলোচনায় অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জনসাস্ব্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান সহকারী মো: আব্দুর রাজ্জাক, চাদপাই ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো: কামরুল হাসান,
চিলা ইউনিয়ন পরিষদের সচিব শিবপদ পাল, সহকারী প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, এছাড়া মোংলা উপজেলার চিলা ও চাদপাই ইউনিয়নের ডি-ক্যাপের সদস্যবৃন্দ, ইউ-ক্যাট এর সদস্যবৃন্দ, জলবায়ুতে ক্ষতিগ্রস্তদের অংশবিশেষ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি সাংবাদিকসহ অন্যন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনে সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশেও এর বিরুপ প্রভাব পরছে। প্রতিনিয়ত বায়ুমন্ডলে কার্বন-ডাই অক্সাইডের পরিমান দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে সাথে সাথে সমুদ্র পৃষ্টের উচ্চতাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই এখনই আমাদের জলবায়ুর ক্ষতিকর দিক মোবাবেলায় কাজ করতে হবে। বক্তারা আরও বলেন আমরা রাতারাতি জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকাতে পারব না। আমাদের সকলকে এক যোগে কাজ করতে হবে। সর্বত্র বনায়ন সৃষ্টি করতে হবে। সরকার সকল কৃষককে লবান সহনীয় বীজ প্রদানের কাজ অব্যহত রাখবে। সভায় জলবায়ু পরিবর্তন এবং পরিবেশের অবক্ষয় রোধে সকলে একযোগে কাজ করবে বলে সবাই প্রতিশ্রুতি দেয়।



মন্তব্য করুন


ইনসাইড বাংলাদেশ

চাঁদ দেখা যায়নি, রোজা শুরু শুক্রবার

প্রকাশ: ০৭:৩৪ পিএম, ২২ মার্চ, ২০২৩


Thumbnail

বুধবার সন্ধ্যায় দেশের কোথাও পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে মুসলমানদের সিয়াম সাধনার (রোজা) মাস রমজান শুরু হচ্ছে শুক্রবার (২৪ মার্চ)। আগামী ১৮ এপ্রিল (মঙ্গলবার) দিনগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল কদর পালিত হবে।

রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে বুধবার (২২ মার্চ) সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি ও ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বাংলাদেশের আকাশে বুধবার কোথাও ১৪৪৪ হিজরি সনের পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এ কারণে বৃহস্পতিবার রমজান মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে। আগামী ২৪ মার্চ থেকে পবিত্র রমজান মাস গণনা শুরু হবে।

সভায় ১৪৪৪ হিজরি সনের পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা সম্পর্কে সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে পাওয়া তথ্য পর্যালোচনা করে চাঁদ দেখা না যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

চাঁদ   রোজা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন