ইনসাইড বাংলাদেশ

বাংলা ব্লকেড: আন্দোলনের জেরে স্থবির রাজধানী, মেট্রোতে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়

প্রকাশ: ০৬:১৭ পিএম, ১০ জুলাই, ২০২৪


Thumbnail

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিলের দাবিতে রাজধানী ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচী পালন করছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশিরা। সকাল থেকে রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান নেন তারা। এতে স্থবির হয়ে পড়ে জনজীবন।

আজ বুধবার (১০ জুলাই) রাজধানীর শাহবাগ, সাইন্সল্যাব, ফার্মগেট ও গুলিস্তান মোড় কোটা বাতিলের দাবিতে অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। এতে রাজধানীজুড়ে দেখা দেয় তীব্র যানজট। আর এই যানজটের প্রভাবে ভোগান্তি দেখা দেয় জনজীবনে।

এদিন সকাল ১১ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সরকারি চাকরিতে সব গ্রেডে কোটা বৈষম্য দূর করে অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য ন্যূনতম ৫ শতাংশ কোটা বহাল রেখে কোটা সংস্কারের এক  দফা দাবি আদায়ে কর্মসূচিতে জড়ো হন শিক্ষার্থীরা।

পরে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ স্থান প্রদক্ষিণ করে সকাল-সন্ধ্যা ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানীর শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন। এতে প্রধান সড়কসহ আশেপাশের সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এছাড়াও রাজধানীর ফার্মগেট, সাইন্সল্যাব শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে রাজধানী জুড়ে দেখা যায় অচলাবস্থা। দুপুরের দিকে ঢাকার রেললাইন অবরোধ করার কারণে, কমলাপুর থেকে বিমানবন্দর রোডে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে ব্যাপক দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

এছাড়াও বিকেলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শিক্ষার্থীরাও ভিক্টোরিয়া পার্ক, রায়সাহেব বাজার ও তাঁতীবাজার মোড় দিয়ে সামনে এগোতে থাকেন। এরপর শিক্ষার্থীরা সিদ্দিক বাজার, ফুলবাড়িয়া হয়ে গুলিস্তান জিরো পয়েন্ট মোড়ে অবস্থান নেয়। এতে রাজধানীর ঐ অংশেও দেখা দেয় তীব্র যানজট আর জনভোগান্তি।


এদিকে ‘বাংলা ব্লকেডের’ প্রভাব পড়েছে মেট্রোরেলেও। মেট্রোরেলের স্টেশনগুলোতেও দেখা গেছে যাত্রীদের উপচে পড়া ভীড়। যাত্রীদের চাপ সামলাতে মতিঝিল স্টেশনে প্রবেশ ফটক বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।