ইনসাইড এডুকেশন

যে উদ্যোগে অনশন ভাঙ্গলো

প্রকাশ: ১১:৪৫ এএম, ২৬ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail যে উদ্যোগে অনশন ভাঙ্গলো

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের অনশন শেষ পর্যন্ত ভঙ্গ হয়েছে। সাতদিন পর অনশন ভেঙ্গেছে শিক্ষার্থীরা। অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল ও তার স্ত্রী ইয়াসমিন হক আজ বুধবার ভোরে শাবিপ্রবিতে পৌঁছানোর পরপরই শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন এবং তাদের কথায় আশ্বস্ত হয়ে শিক্ষার্থীরা অনশন ভাঙ্গতে রাজি হন। এরপর হাসপাতাল থেকে ১১ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে আসা হয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অনশন ভাঙ্গা হয়। কিন্তু এই অনশন ভাঙ্গার ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক ব্যক্তিদের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল।

যখন শিক্ষা মন্ত্রণালয় আন্দোলন থামাতে পারছিলো না এবং অনশন ভাঙ্গানোর ক্ষেত্রে কোনো রকম অগ্রগতি হচ্ছিল না, শিক্ষামন্ত্রীর সাথে বৈঠক করতেও যখন শিক্ষার্থীরা অস্বীকৃতি জানাচ্ছিল, সেই সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী লীগের একটি রাজনৈতিক দল এই উদ্যোগ নেয়। জাহাঙ্গীর কবির নানকের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংকট সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন এবং তারা সেখানকার  শিক্ষার্থী, শিক্ষকসহ বিভিন্ন মহলের সাথে কথা-বার্তা বলতেন। এ রকম কথা-বার্তা বলার পরেই জাহাঙ্গীর কবির নানক প্রধানমন্ত্রীকে জানান যে, যদি ড. জাফর ইকবালকে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, সেক্ষেত্রেই এই সংকটের একটি সমাধান করা সম্ভব হবে। 

প্রধানমন্ত্রীর সবুজ সংকেত পাওয়ার পর জাহাঙ্গীর কবির নানকের নেতৃত্বে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আসীম কুমার উকিল এবং সুভাষ সিংহ রায় অধ্যাপক জাফর ইকবালের বাসায় যান গতকাল। সেখানে জাফর ইকবালের সাথে পুরো পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন এবং শেষ পর্যন্ত জাফর ইকবালকে সিলেট যাওয়ার ক্ষেত্রে রাজি করাতে সক্ষম হন। জাফর ইকবাল আজ সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন যে, আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা তার বাসায় এসেছিলেন।

শাবিপ্রবি   অনশন   আওয়ামী লীগ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

কক্সবাজার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধ ঘোষণা: ইউজিসি

প্রকাশ: ১২:৪৭ পিএম, ২৩ মে, ২০২২


Thumbnail কক্সবাজার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধ ঘোষণা: ইউজিসি

কক্সবাজার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস শিক্ষার্থীবান্ধব না হওয়ায় নতুন করে কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে না প্রতিষ্ঠানটি। 

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি সম্পূর্ণ বন্ধ ঘোষণা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। ক্যাম্পাস স্থানান্তর না করা পর্যন্ত এই আদেশ বহাল থাকবে। 

নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি সম্পূর্ণ বন্ধ ঘোষণা করে গত ১৭ মে ইউজিসি থেকে চিঠিটি দেওয়া হয়। ইউজিসির বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার পরিচালক মো. ওমর ফারুক স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অবস্থা দেখতে ইউজিসির তদন্ত কমিটি সরেজমিন পরিদর্শন করে। বিশ্ববিদ্যালয়টির ক্যাম্পাসের শ্রেণিকক্ষসহ কোনো কক্ষই শিক্ষার্থীবান্ধব নয়। সেখানে শিক্ষার্থী–সহায়ক পরিবেশ নেই।

এতে বলা হয়, শ্রেণিকক্ষগুলোতে প্রাকৃতিক আলো প্রবেশ ও বায়ু চলাচলের কোনো ব্যবস্থা নেই। ভবনটি শহরের ব্যস্ততম সড়কের মোড়ে অবস্থিত। এর সামনের সড়ক মারাত্মক দুর্ঘটনাপ্রবণ। সেখানে মাঝেমধ্যেই প্রাণঘাতী দুর্ঘটনা ঘটে।

চিঠিতে বলা হয়, নিরিবিলি পরিবেশে যথাযথভাবে ক্যাম্পাস স্থানান্তর না করা পর্যন্ত কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধ থাকবে। স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণে আইন অনুযায়ী দুই একর নিষ্কণ্টক, অখণ্ড ও দায়মুক্ত জমি কিনতে হবে। অন্যথায় সাময়িক সনদের মেয়াদ আর বাড়ানো হবে না। সাময়িক সনদের মেয়াদের মধ্যে এ কাজ শেষ করতে বলা হয়েছে।

কক্সবাজার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি   বন্ধ ঘোষণা   ইউজিসি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির আসন বিন্যাস প্রকাশ, পরীক্ষা ২৭ মে

প্রকাশ: ০৪:১৯ পিএম, ২২ মে, ২০২২


Thumbnail ৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির আসন বিন্যাস প্রকাশ, পরীক্ষা ২৭ মে

৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামী ২৭ মে (শুক্রবার) অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে রোববার (২২ মে) পরীক্ষার আসন বিন্যাস প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল্লাহ আল মামুন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৪৪তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষা আগামী শুক্রবার ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষা সংক্রান্ত জরুরি নির্দেশনা

১. প্রার্থীদের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ৮ (আট) ডিজিট সংবলিত হতে হবে। রেজিস্ট্রেশন নম্বরের ডিজিটগুলো উত্তরপত্রের প্রযোজ্য ঘরে কালো কালির বল পয়েন্ট কলম দিয়ে লিখে প্রযোজ্য বৃত্ত ভরাট করতে হবে।

২. প্রতিটি উত্তরপত্রে সেট নম্বরের নির্ধারিত স্থানে সেট নম্বর এবং সেট নম্বরের জন্য নিচের সংশ্লিষ্ট বৃত্তটি মুদ্রিত থাকবে। প্রার্থীদের উত্তরপত্রে সেট নম্বর লেখা এবং সেট নম্বরের বৃত্ত ভরাট করার প্রয়োজন হবে না। সকাল ১০টায় প্রশ্নপত্র পাওয়ার পর প্রার্থী তার প্রশ্নপত্রের সেট নম্বর এবং উত্তরপত্রের সেট নম্বর অভিন্ন কি না, তা চেক করে নিশ্চিত হবে। প্রশ্নপত্র ও উত্তরপত্রের সেট নম্বর অভিন্ন না হলে সঙ্গে সঙ্গে পরিদর্শককে জানাবে।

৩. প্রশ্নপত্র দেওয়ার পর (সকাল ১০টা) কোনো প্রার্থীকে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। প্রশ্নপত্র নেওয়ার পর পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত (দুপুর ১২টা পর্যন্ত) কোনো প্রার্থী পরীক্ষা কক্ষ ত্যাগ করতেও পারবেন না।

৪. কোনো প্রার্থীর ছবি, স্বাক্ষর, প্রবেশপত্র এবং উত্তরপত্রের নাম ও রেজিস্ট্রেশন নম্বরের গরমিলসহ কোনো ধরনের অনিয়ম ধরা পড়লে ওই প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিলসহ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

৫. পরীক্ষা কেন্দ্রে বই-পুস্তক, সব ধরনের ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যাংক কার্ড/ক্রেডিট কার্ড সদৃশ কোনো ডিভাইস, গহনা ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

৬. পরীক্ষা হলের গেটে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পুলিশের উপস্থিতিতে প্রবেশপত্র এবং মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে মোবাইল ফোন, ঘড়ি, ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ নিষিদ্ধ সামগ্রী তল্লাশির মধ্য দিয়ে প্রার্থীদের পরীক্ষা হলে প্রবেশ করতে হবে।

৭. পরীক্ষার সময় প্রার্থীরা কানের ওপর কোনো আবরণ রাখবেন না, কান খোলা রাখতে হবে। কানে কোনো ধরনের হিয়ারিং এইড ব্যবহারের প্রয়োজন হলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শপত্রসহ কমিশনের অনুমোদন নিতে হবে।

৮. কোনো প্রার্থী পরীক্ষায় নকল করলে বা ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসের মাধ্যমে অসদুপায় অবলম্বন করলে কিংবা কোনো অসদাচরণের জন্য দোষী সাব্যস্ত হলে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

৯. প্রার্থীদের কেন্দ্র পরিবর্তনের কোনো আবেদন বিবেচনা করা হবে না।

১০. প্রার্থীর আবেদনপত্রে গুরুতর ত্রুটি ধরা পড়লে পরীক্ষার আগে বা পরে যেকোনো পর্যায়ে উক্ত প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল হবে।
আসনবিন্যাস দেখতে ক্লিক করুন।

বিসিএস  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

জাবির দুই শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার ২

প্রকাশ: ০১:৪৭ পিএম, ২২ মে, ২০২২


Thumbnail জাবির দুই শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার ২

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে শনিবার রাতে সাভারের একটি শপিং সেন্টারে দুই শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টার অভিযোগে দুই বিক্রয়কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

শনিবার (২১ মে) রাতে ওই দুই শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি চেষ্টার অভিযোগে সাভারের নিউমার্কেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর রোববার (২২ মে) দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়। 

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দুপুরে অভিযুক্তদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত করে বিস্তারিত জানানো হবে।

গ্রেপ্তারকৃত বিক্রয়কর্মীরা হলেন- সাভারের রাজাশন এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে মো. শাহীন (২৭) ও দেওগাঁ এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (২৪)। তারা দুজনই সাভার নিউমার্কেটের ম্যাস্ট্রো নামে একটি কাপড়ের দোকানের বিক্রয়কর্মী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী কেনাকাটা করতে যান। প্রথমে তারা মার্কেটের তৃতীয় তলার ইজি ও মিলান নামে শো-রুমে কাপড় দেখেন। পরে ম্যাস্ট্রো নামে ওই দোকানের সামনে গেলে দুই বিক্রয়কর্মী তাদের কাপড় দেখার আহ্বান জানান। 

এদিকে দোকানের একটি শাটার আগে থেকেই বন্ধ ছিল। শিক্ষার্থীরা দোকানের ভেতরে গেলে অপর শাটার বন্ধ করে দেয় বিক্রয়কর্মীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা চেঁচামেচি করলে তারা মজা করেছে বলে জানায় এবং শাটার খুলে দেয়। পরে মার্কেট কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে সাভার থানায় মামলা করা হয়। পরে তাদের গ্রেপ্তার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়   শিক্ষার্থী   শ্লীলতাহানি   অভিযোগ   গ্রেফতার  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু আজ

প্রকাশ: ১২:২৬ পিএম, ২২ মে, ২০২২


Thumbnail জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু আজ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির আবেদন শুরু হচ্ছে আজ (২২ মে) বিকেল থেকে। যা চলবে আগামী ৯ জুন রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত।

আগ্রহীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে এবং প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ২৫০ টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজ নির্ধারিত মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ১১ জুনের মধ্যে অবশ্যই জমা দিতে হবে। এ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ক্লাস ৩ জুলাই থেকে শুরু হবে।

ভর্তি কার্যক্রমে আবেদনকারীদের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে বিষয়ভিত্তিক মেধা তালিকা প্রণয়ন করা হবে। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।
 
অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ ও এর প্রিন্ট/পিডিএফ কপি সংগ্রহ করতে হবে ২২ মে থেকে ৯ জুনের মধ্যে। আবেদনের প্রাথমিক ফি জমা দিতে হবে ২৩ মে থেকে ১১ জুনের মধ্যে। কলেজ কর্তৃক অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ফরম নিশ্চয়ন করা হবে ২৩ মে থেকে ১২ জুনের মধ্যে।
 
আবেদন ফি’র জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশ সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখায় জমা দেওয়ার লক্ষ্যে কলেজকে লগইনের মাধ্যমে Application Payment Info (Honours) অপশনে ক্লিক করে Pay Slip ডাউনলোড করতে হবে এবং এর প্রিন্ট কপি নিয়ে নিকটস্থ সোনালী ব্যাংক শাখায় ১৩ জুন থেকে ২০ জুনের মধ্যে নির্ধারিত ফি জমা দিয়ে রশিদ সংগ্রহ করতে হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়   ভর্তি   আবেদন   শুরু  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড এডুকেশন

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, গ্রেফতার ১৩

প্রকাশ: ০৯:৫০ পিএম, ২০ মে, ২০২২


Thumbnail প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতি, গ্রেফতার ১৩

রাজবাড়ীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার (২য় পর্যায়ের) প্রশ্নপত্র জালিয়াতি চক্রের ১৩ সদস্যকে আটক করেছে রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। 

শুক্রবার (২০ মে) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য নিশ্চিত করেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণবন্ধু চন্দ্র কৃঞ্চ বিশ্বাস।

এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রশ্নের ফটোকপি, ২০টি মোবাইল ফোন, ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। 

আটকরা হলেন- ইব্রাহীম হোসেন, সাগর আহম্মেদ, বিজয় বালা, মো. নুরুল হক হাওলাদার, মো. হারুন সরদার, রেজাউল করিম, আবু সালাম, মুনছুর মন্ডল, রুবেল মাহমুদ, মিজানুর রহমান, রুমান হাসান, মাইনুল ইসলাম ও ফরিদা বেগম। আটকদের মধ্যে পাচঁজন প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক রয়েছেন।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) প্রাণবন্ধু চন্দ্র কৃঞ্চ বিশ্বাস জানান, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামানের নির্দেশনায় গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে জেলা শহরের নতুন বাজার এলাকার আবুল খায়েরের ছেলে মিজানুর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১৩ জনকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রশ্নের ফটোকপি, ২০টি মোবাইল ফোন, ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


নিয়োগ   পরীক্ষায়   জালিয়াতি   গ্রেফতার ১৩  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন