ইনসাইড ওয়েদার

বৃষ্টি কমবে কাল তবে বাড়বে শীত

প্রকাশ: ০৮:৪৫ এএম, ২৪ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail বৃষ্টি কমবে কাল তবে বাড়বে শীত

কয়েক দিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। বেশির ভাগ জায়গায়ই আকাশ ছিল মেঘলা, দেখা মেলেনি সূর্যের। আজ সোমবারও এমন অবস্থা অব্যাহত থাকবে। তবে কাল মঙ্গলবারের পর থেকে অবস্থার উন্নতি হবে। তবে আগের চেয়ে শীত বাড়বে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।  

গতকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, সারা দেশে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।

আগামী দুই দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ সময়ের শেষের দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমতে পারে। আগামী পাঁচ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ সময়ের শুরুতে রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে। গতকাল চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫.৬, ময়মনসিংহে ১৩.৮, চট্টগ্রামে ১৬.২, সিলেটে ১৩.৫, রাজশাহীতে ১৩.৭, রংপুরে ১৩.৪, খুলনায় ১৪.৮ এবং বরিশালে ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

রাজবাড়ীতে টানা তিন দিন ধরে সূর্যের দেখা নেই। প্রায় সারা দিনই কুয়াশার চাদরে ঢাকা থাকছে জেলার বেশির ভাগ জায়গা। একই সঙ্গে গতকাল দিনভর থেমে থেমে নেমেছে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। এতে বেড়েছে শীত। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। বিশেষ করে নিম্ন আয়ের মানুষ, কৃষক ও খেটে খাওয়া মানুষ বিপাকে পড়েছে। শীতের কারণে ফসল বপন ও চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস   শৈত্যপ্রবাহ  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড ওয়েদার

রাজধানীতে সন্ধ্যার পর বৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রকাশ: ০১:৩২ পিএম, ১৭ মে, ২০২২


Thumbnail রাজধানীতে সন্ধ্যার পর বৃষ্টির সম্ভাবনা

রাজধানীসহ সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে মানুষ। এর মধ্যে কোথাও আবার বৃষ্টি হচ্ছে। সেই বৃষ্টিতে কিছুটা স্বস্তি মিললেও তারপর আবার গরম। বিশেষ করে গত কয়েক দিন ধরে বৃষ্টিশূন্য রাজধানীতে গরমে অতিষ্ঠ মানুষ। অন্যদিকে, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট জেলায় হঠাৎ বন্যা আঘাত করেছে। এ পরিস্থিতিতে দেশের তিন জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহের কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (১৭ মে) সন্ধ্যার পর রাজধানীতে বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক।

তিনি বলেন, আজ সকালে একদফা বৃষ্টির সম্ভাবনা ছিল, তবে তা হয়নি। আজ সন্ধ্যার আগপর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে সন্ধ্যার পর রাজধানীতে বৃষ্টি হতে পারে। রাজশাহী,চাঁদপুর ও যশোর জেলায় মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে অনেক জায়গায়, রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় বজ্র ও ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে। এই বৃষ্টির সম্ভাবনা দেশের বিভিন্ন জায়গায় থাকলেও তাপপ্রবাহ বইবে তিন জেলায়।

আজ সকাল সাতটায় দেওয়া আবহাওয়া অধিদপ্তরের ঢাকা ও আশপাশের অঞ্চলের আগামী ছয় ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ মেঘলা থাকবে। এ ছাড়া অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় খুলনায়। এ সময় দেশে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয় নীলফামারীর ডিমলায়, ৮২ মিলিমিটার।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে বলে জানায় আবহাওয়া অধিদপ্তর।

বৃষ্টি  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড ওয়েদার

সারাদেশে ঝোড়ো বৃষ্টির আভাস

প্রকাশ: ০১:০৩ পিএম, ১৭ মে, ২০২২


Thumbnail সারাদেশে ঝোড়ো বৃষ্টির আভাস

দেশের ৮ বিভাগে বৃষ্টিসহ দমকা ও ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদপ্তর। এ সময় বাতাসের গতি প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৪০-৫০ কিলোমিটার হতে পারে। এছাড়া দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ও ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

অন্যদিকে দেশের চারটি অঞ্চলে তাপপ্রবাহ চলমান রয়েছে। আবহাওয়া পূর্বাভাস অনুযায়ী চাঁদপুর, রাজশাহী, খুলনা ও যশোর জেলা সমূহের উপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) আবহাওয়া অফিস সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ বলেন, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়, রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার বয়ে যেতে পারে। এ সময় প্রতি ঘণ্টায় বতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ হতে পারে ৪০-৫০ কিলোমিটার। দকমকা হাওয়া বয়ে যাওয়ার সময় বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও তিনি জানান।


সারাদেশে   ঝোড়ো   বৃষ্টির  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড ওয়েদার

দেশের ১৬ অঞ্চলে ঝড়ের পূর্বাভাস

প্রকাশ: ০৮:১৬ এএম, ১৪ মে, ২০২২


Thumbnail দেশের ১৬ অঞ্চলে ঝড়ের পূর্বাভাস

দেশের ১৬ অঞ্চলের ওপর দিয়ে সর্বোচ্চ ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড় বয়ে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে দুই নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ মে) সন্ধ্যায় আবহাওয়া অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে এই পূর্বাভাস দেওয়া হয়।

আবহাওয়াবিদ মো. তরিফুল নেওয়াজ কবির জানিয়েছেন- রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা এবং সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০-৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে দুই নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরসমূহকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

অন্য এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূল ও তৎসংলগ্ন এলাকার অদূরে অবস্থানরত লঘুচাপটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। বর্তমানে পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

এ অবস্থায় শনিবার (১৪ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

ঢাকায় দক্ষিণ/দক্ষিণপূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ থাকবে ১০-১৫ কিলোমিটার, যা অস্থায়ীভাবে পশ্চিম/উত্তরপশ্চিম দিক থেকে দমকা হাওয়ার আকারে ঘণ্টায় ৩০-৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত উঠে যেতে পারে।

রোববার (১৫ মে) নাগাদ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা হ্রাস পেতে পারে এবং তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। বর্ধিত পাঁচ দিনের শেষের দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।

ঝড়   আবহাওয়া   পূর্বাভাস  


মন্তব্য করুন


ইনসাইড ওয়েদার

ভারি বৃষ্টির আশঙ্কা, নদীবন্দরে ২ নম্বর সংকেত

প্রকাশ: ০৯:৫৬ পিএম, ১৩ মে, ২০২২


Thumbnail ভারি বৃষ্টির আশঙ্কা, নদীবন্দরে ২ নম্বর সংকেত

দেশের সাত বিভাগে অতিভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া ১৬টি অঞ্চলে কালবৈশাখী বা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোতে ২ নম্বর সর্তকতা সংকেত দেখাতে বলেছে সংস্থাটি।

বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ সৃষ্টি হওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ৯ তারিখ থেকে দেশে বৃষ্টি শুরু হয়। উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে বৃষ্টির প্রবণতা বেশি ছিল, বৃষ্টি কম ছিল উত্তরাঞ্চলে। এখন উত্তরাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বেড়ে গেছে, কমে গেছে উপকূলীয় অঞ্চলে। রোববার (১৫ মে) থেকে বৃষ্টির প্রবণতা কমে যেতে পারে। তবে আগামী সপ্তাহের শেষের দিকে আবার বৃষ্টি বেড়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে দিনাজপুরে, ২০১ মিলিমিটার। এ সময়ে ঢাকায় এক মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার ঢাকার আকাশে মেঘের আনাগোনা থাকলেও সারাদিন বৃষ্টির দেখা মেলেনি।

শুক্রবার (১৩ মে) সন্ধ্যায় ভারি বর্ষণের সতর্কবাণীতে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জলীয়বাষ্পের সংমিশ্রণে বাংলাদেশ অঞ্চলে গভীর সঞ্চরণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। এতে সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তীসময়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী, খুলনা, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি (২৩ থেকে ৪৩ মিলিমিটার) থেকে অতিভারি (৮৯ মিলিমিটার বা এর বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

অন্যদিকে, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে দিবাগত রাত ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্র বৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, এছাড়া দেশের অন্যত্র পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্র-বৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।


মন্তব্য করুন


ইনসাইড ওয়েদার

দেশের সাত অঞ্চলে কালবৈশাখীর পূর্বাভাস

প্রকাশ: ০৮:১৯ এএম, ১৩ মে, ২০২২


Thumbnail দেশের সাত অঞ্চলে কালবৈশাখীর পূর্বাভাস

ঢাকাসহ দেশের সাত অঞ্চলের ওপর দিয়ে সর্বোচ্চ ৮০ কিলোমিটার বেগে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। তাই ওইসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে দুই নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সন্ধ্যায় এমন পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম জানিয়েছেন, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুমিল্লা এবং সিলেট অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০-৮০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র পশ্চিম/উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কি.মি. বেগে বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে এক নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

অন্য এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ভারতের অন্ধ্র উপকূলের অদূরে পশ্চিম মধ্য-বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে প্রথমে গভীর নিম্নচাপ এবং পরবর্তীতে ক্রমাগতভাবে নিম্নচাপ, সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও লঘুচাপে পরিণত হয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় অন্ধ্র উপকূলীয় এলাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় অবস্থান করছে।

পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এই অবস্থায় শুক্রবার (১৩ মে) সন্ধ্যা পর্যন্ত ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়ার সাথে বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে। সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পাবে। ঢাকায় দক্ষিণ/দক্ষিণপূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ১০-১৫ কি.মি., যা অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া আকারে ঘণ্টায় ৫০-৬০ কি.মি. পর্যন্ত উঠে যেতে পারে।

শনিবার (১৪ মে) নাগাদ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা হ্রাস পাবে। বর্ধিত ৫ (পাঁচ) দিনের আবহাওয়া সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

কালবৈশাখী   আবহাওয়া  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন