ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ , ১০ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম বন্ধ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ জানুয়ারি ২০১৮ শনিবার, ১২:২৬ পিএম
যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম বন্ধ

সরকারের বাজেট বাড়ানোর নিয়ে মার্কিন সিনেটররা একমত না হওয়ায় দেশটির সরকারি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। যুক্তরাষ্টের পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চেলের স্থানীয় সময় শুক্রবার মধ্যরাত (বাংলাদেশ সময় শনিবার বেলা ১১ টা থেকে) থেকে এই কার্যক্রমে বন্ধ হয়ে যায়।

বাজেট পাশ করার ক্ষেত্রে রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রাটদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে মতবিরোধ থাকায় শেষ সময়ে বিল পাশ আটকে যায়। ফলে সব সমঝোতা উদ্যোগ ভেস্তে যায়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অর্থ বরাদ্দ সংক্রান্ত যেকোনো প্রস্তাব গৃহীত হতে হলে কমপক্ষে ৬০টি হ্যাঁ ভোটের প্রয়োজন ছিল। কিন্তু রিপাবলিকানদের হাতে ছিল মাত্র ৫১টি ভোট।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের এক বছর পূর্ণ করার আগের দিন দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেল। এতে করে দেশটির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা, উদ্যান ব্যবস্থাপনা এবং খাদ্য নিরাপত্তাসহ কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন কাজ আংশিকভাবে থেমে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এর আগে সর্বশেষ ২০১৩ সালে মার্কিন কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম থেমে যায়। সেবার দেশটির আইন প্রণেতাদের মধ্যে অসমঝোতা দেখে দিলে ১৬ দিনের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম বন্ধ ছিল।

বিল পাশ করার জন্য প্রয়োজনীয় ভোটের কোটা পূরণ না হওয়ায় রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রাটটের মধ্যে অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ শুরু করেছে। ট্রাম্পের রিপাবলিক দল বলছে, কেন্দ্রীয় সরকার বন্ধের দায় ডেমোক্র্যাটদের নিতে হবে। আর ডেমোক্র্যাটরা দাবি করছে, সরকারের কার্যক্রমে বন্ধ হওয়ার সব দায় ট্রাম্প ও তাঁর দল রিপাবলিকানদের।

ট্রাম্প ও রিপাবলিকানরা ধারণা করেছিল ৫১ জন রিপাবলিকানের বাইরে যে নয়টি ভোট দরকার তা তাঁরা ডেমোক্র্যাট থেকে পেয়ে যাবে। ডেমোক্র্যাট সিনেটরদের মধ্যে কমপক্ষে নয়জনের সমর্থন পেলে সমঝোতা প্রস্তাবটি গৃহীত হতো। তাঁরা ভেবেছিলো, ট্রাম্প সমর্থক বলে পরিচিত অঙ্গরাজ্য থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে কমপক্ষে নয়জন সিনেটর ডেমোক্রাটের সিদ্ধান্ত অমান্য করবে এবং রিপাবলিকানদের সঙ্গে যোগ দেবে। কিন্তু তাদের সে আশা পূরণ হয়নি।

বাংলা ইনসাইডার/এমএইচ/জেডএ