ঢাকা, শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮ , ৮ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা তদন্তে অনুমতি

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক 
প্রকাশিত: ১৭ এপ্রিল ২০১৮ মঙ্গলবার, ১১:৩৭ এএম
সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা তদন্তে অনুমতি

সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা তদন্তে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। রাশিয়া বলেছে, সিরিয়ায় অবস্থানরত রাসায়নিক পরিদর্শকদের গত বুধবার যে সব স্থানে রাসায়নিক হামলার অভিযোগ আনা হয়েছে সেই সকল স্থানে পরিদর্শনে অনুমতি দেওয়া হবে।

রাসায়নিক হামলা তদন্তের আন্তর্জাতিক দলটি শনিবার থেকে সিরিয়াতে অবস্থান করছে। কিন্তু তারা দৌমা পরিদর্শনের অনুমতি পাননি।

সিরিয়াতে ৭ এপ্রিলের রাসায়নিক হামলার জবাবে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংসে যৌথ বিমান হামলা চালিয়েছে। কিন্তু সিরিয়া ও তাঁদের মিত্র রাশিয়া রাসায়নিক হামলার ঘটনা অস্বীকার করেছে। রাশিয়া একে যুক্তরাষ্ট্র ও তাঁদের পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোর ‘মঞ্চায়িত ঘটনা’ বলে উল্লেখ করেছে।

মঙ্গলবার সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে পশ্চিমের শহর হোমসে দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জবাব দিয়েছে। অন্যদিকে ইরানপন্থী শিয়া হিজবুল্লাহ জানিয়েছে রাজধানী দামেস্কের উত্তর পূর্বের দুমাইর সামরিক বিমানবন্দরে তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা প্রতিহত করা হয়েছে। কিন্তু পেন্টাগন বলেছে, এই মুহূর্তে ওই এলাকায় যুক্তরাষ্ট্র কোনো সামরিক কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে না।

গত ৭ এপ্রিল সিরিয়ার পূর্ব ঘৌটার দৌমা শহরে রাসায়নিক হামলা চালানো হয়। শুধু দুই দিনের রাসায়নিক হামলায় নিহত হয় অন্তত ৮৫ জন। এখনো মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে পাঁচ শতাধিক মানুষ। এমন মানবেতর পরিস্থিতিতেই আসাদ বাহিনী বিমান হামলা চালাচ্ছে। বিমান হামলা থেকে বাঁচতে স্থানীয়রা আশ্রয় নিয়েছে বিভিন্ন বাড়ির বেজমেন্টে। তারপরও জীবন বাঁচাতে পারেনি সেখানকার সাধারণ মানুষ। এমন অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স তিনটি স্থানে যৌথ বিমান হামলা চালিয়েছে। দেশ গুলো দাবি করেছে ওই সকল স্থানে রাসায়নিক অস্ত্র তৈরি ও মজুদ করা হতো।

বাংলা ইনসাইডার/ডিজি/জেডএ