ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ , ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

অপরাধীরাই গর্বিত যেখানে

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক 
প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৩:২৩ পিএম
অপরাধীরাই গর্বিত যেখানে

ভাবুন তো একটি শহরের কথা, অপরাধীরা যেখানে বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়ায় আর নিরীহ, নিরপরাধীরা আতঙ্কে বদ্ধ ঘরে দিন কাটায়। দক্ষিণ আফ্রিকার ডিয়েপস্লুট তেমনই একটি শহর। দারিদ্র্যতা সেখানকার খুব বড় একটি সমস্যা। কিন্তু তার থেকেও বড় সমস্যা হলো নিরাপত্তাহীনতা।

ডিয়েপস্লুটের প্রতিটি নারীকে প্রতিনিয়ত সেখানে আতঙ্কে দিন কাটাতে হয়। মারিয়া নামের স্থানীয় এক নারী বলেন, ‘অপরাধীরা এখানে অনেক নিরাপদ। যারা কোন অপরাধ করে না, তাদের থেকে অনেক আরামে আছে তারা। কারণ এই শহরে তারা যা খুশি তাই করতে পারে। তারা জানে তাদের ভয়ে কেউ রাতে বের হবে না।’

বিবিসি তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ডিয়েপস্লুটের অন্তত এক তৃতীয়াংশ পুরুষ নিজের মুখে স্বীকার করেছে যে তারা নারী নিপীড়নের সঙ্গে জড়িত। কেউ কেউ জানায় যে তারা নিজেকে নিপীড়ক হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করে। এমনকি তারা ক্যামেরার সামনে নিজেদের সেসব অপকর্মের কথা নির্দ্বিধায় বর্ণনাও করেছে।

গত পাঁচ বছরে শহরটির পুলিশের কাছে অন্তত ৫০০টি নারী নির্যাতনের মামলা দায়ের করা হলেও বিচার হয়েছে মাত্র একটির। বিচারহীণতার কারণে এলাকার মানুষের সহিংস হয়ে ওঠার মতো ঘটনাও ঘটেছে। কয়েক মাস আগে কয়েকজন সন্দেহভাজন অপরাধীকে পিটিয়ে এবং পুড়িয়ে হত্যা করে স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা।এই ঘটনার জের ধরে শহরটিতে দাঙ্গা শুরু হয়। কিন্তু আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি সেখানে পুলিশের ভূমিকা ছিল শুধুই দর্শকের।

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি/জেডএ