ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘পদত্যাগ করা উচিত ছিল সু চির’

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক 
প্রকাশিত: ৩০ আগস্ট ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ১১:১৮ এএম
‘পদত্যাগ করা উচিত ছিল সু চির’

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ব্যর্থ হওয়ায় দেশটির নেত্রী অং সান সু চির পদত্যাগ করা উচিত ছিল। এমন মন্তব্যই করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের বিদায়ী প্রধান রাদ আল হুসেন। রাখাইনে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর চালানো গণহত্যার ওপর জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রকাশ পাওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই এই মন্তব্য করলেন তিনি। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবিসি’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হুসেন বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকট বিষয়ে নোবেলজয়ী এই নেত্রীর ভূমিকা ছিল অত্যন্ত দুঃখজনক। পরিস্থিতি সমাধানে ব্যবস্থা নেওয়ার মতো ক্ষমতা সু চির ছিল।

সু চির মিয়ানমার সেনাবাহিনীর মুখপাত্র হওয়ার প্রয়োজন ছিলো না মন্তব্য করে রাদ আল হুসেন বলেন, ‘তিনি সেনাবাহিনীর সঙ্গে সুর না মিলিয়ে চুপ থাকতে পারতেন। সবচেয়ে ভালো হতো যদি তিনি পদত্যাগ করতেন।’

মিয়ানমার রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযানের কারণ হিসেবে গত বছরের ২৫ আগস্ট একটি নিরাপত্তা চৌকিতে বিদ্রোহি গোষ্ঠী আরসার হামলাকে দায়ী করে আসছে। কিন্তু বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন ও সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে,  রাখাইন থেকে রোহিঙ্গাদের উচ্ছেদ করতে এবং তাদের ফেরার সব পথ বন্ধ করতে আরসার হামলার আগে থেকেই পরিকল্পিত সেনা-অভিযান শুরু হয়েছিল।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনেও জাতিগত নিধন হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার সহিংসতা ও নিপীড়নের ঘটনায় সেনাবাহিনীকে দায়ী করা হয়েছে। এছাড়া বেসামরিক সর্বোচ্চ নেতা অং সান সু চিরও সমালোচনা করা হয়েছে ওই প্রতিবেদনে। তবে মিয়ানমার এই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। তাদের দাবি, তারা জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিশনকে প্রবেশ করতে দেয়নি। তাদের কোনও অভিযোগের সঙ্গেও তারা একমত নন।

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি