ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

এবার পাকিস্তানে অর্থ সহায়তা বাতিল করছে যুক্তরাষ্ট্র

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ রবিবার, ১০:১৫ এএম
এবার পাকিস্তানে অর্থ সহায়তা বাতিল করছে যুক্তরাষ্ট্র

পাকিস্তানে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের অর্থ সহায়তা বাতিল করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটি জঙ্গীগোষ্ঠী নির্মূলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে ব্যর্থ হওয়ায় এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সামরিক বাহিনী। স্থানীয় সময় শনিবার এ ঘোষণা দেওয়া হয়। বিবিসি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পাকিস্তান কয়েক বিলিয়ন ডলারের অর্থ সাহায্য গ্রহণ করলেও সন্ত্রাস নির্মূলে যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে আসছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দীর্ঘদিন ধরে এমন অভিযোগ করে আসছিলেন। চলতি বছরের শুরুতেই তিনি এক টুইট বার্তার মাধ্যমে জানান, পাকিস্তানে সকল ধরনের অর্থ ও সামরিক সহায়তা বন্ধ করে দেওয়া হবে।

পাকিস্তানে অর্থসাহায্য বাতিল করে অন্যান্য গুরুত্বপুর্ণ খাতে তা ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগনের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল কোন ফকনার। এক বিবৃতির মাধ্যমে তিনি বলেন, ‘নির্বিচারে সব জঙ্গি গ্রুপকে টার্গেট করতে পাকিস্তানের ওপর আমাদের চাপ প্রয়োগ অব্যাহত থাকবে। অর্থ সহায়তার ৩০০ মিলিয়ন ডলার অন্যখাতে ব্যয় করা হবে।’

মার্কিন কংগ্রেসের অনুমোদন পেলেই পাকিস্তানে অর্থ সহায়তা বাতিলের সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। চলতি বছরের জানুয়ারিতেই মার্কিন সরকার ঘোষণা দেয় যে, তারা পাকিস্তানের নিরাপত্তা খাতে দেওয়া সব অর্থ সহায়তা বাতিল করবে। শনিবার মার্কিন সেনাবাহিনীর এই পদক্ষেপ ওই ঘোষণারই অংশ।

পাকিস্তান হাক্কানি নেটওয়ার্ক এবং আফগান তালেবানের কার্যক্রম বন্ধে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হওয়ায় ইসলামাবাদের কঠোর সমালোচনা করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আগামী ৫ সেপ্টেম্বর পাকিস্তান সফর করবেন। তাঁর সফরের কয়েক দিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে অর্থ সহায়তা বাতিলের এই ঘোষণা এলো।

এর আগে স্থানীয় সময় গত শুক্রবার ফিলিস্তিনি শরণার্থী বিষয়ক জাতিসংঘের তহবিলে অর্থ সহায়তা বন্ধের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। অর্থ সহায়তা বন্ধের কারণ হিসেবে সংস্থাটির কর্মকান্ডকে অস্বাভাবিক ত্রুটিপূর্ণ বলে উল্লেখ করা হয়।

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি