ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ধেয়ে আসছে ‘ফ্লোরেন্স’ এবং অন্যান্য খবর

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক 
প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার, ০৯:৩৮ এএম
ধেয়ে আসছে ‘ফ্লোরেন্স’ এবং অন্যান্য খবর

যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ’ফ্লোরেন্স’। স্থানীয় সময় আগামী বৃহস্পতিবার রাতে এটি উত্তর ক্যারোলাইনার উইলমিংটনে আঘাত হানতে পারে বলে জানানো হয়েছে। ঘূর্নিঝড় মোকাবেলায় জনগণকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে সরকার। উপকূলের অধিবাসী ও পর্যটকদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে তারা। এ ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকাগুলোতে ভারি বৃষ্টিপাত, বন্যা ও ভূমিধসের আশঙ্কা করছেন আবহাওয়াবিদরা।

অন্যান্য খবর

লন্ডনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কুলসুম নওয়াজের মৃত্যু

পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ মারা গেছেন। দীর্ঘদিন ধরে লন্ডনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন ক্যানসারে আক্রান্ত কুলসুম। স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার নওয়াজ শরিফের ভাই ও পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) প্রধান শাহবাজ শরিফ এই মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ট্রাম্পকে বৈঠকের আমন্ত্রণ কিমের

নতুন আরেকটি শীর্ষ বৈঠকের অনুরোধ জানিয়ে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে চিঠি লিখেছেন। দুই নেতার বৈঠকের দিনক্ষণ ঠিক করতে এরইমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। চলতি বছরের জুনে সিঙ্গাপুরে এই দেশ দুটির দুই শীর্ষ নেতা প্রথমবারের মতো বৈঠকে মিলিত হয়েছিলেন। তারই ধারাবাহিকতায় নতুন শীর্ষ বৈঠকের অনুরোধ করা হলো।

কাশ্মীর নিয়ে ভারতের নির্বিকার থাকা নিন্দনীয়: জাতিসংঘ

কাশ্মীর ইস্যুতে বারত সরকারের নির্বিকার থাকা আন্তর্জাতিকভাবে নিন্দনীয় বলে মন্তব্য করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল বাশেলেত। স্থানীয় সময় গত সোমবার জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার পরিষদের ৩৯তম অধিবেশনের উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন। মিশেল বাশেলেত বলেন, সারাবিশ্বের অন্যান্য মানুষের মতো কাশ্মীরের মানুষের স্বাধীনভাবে বাঁচার এবং কথা বলার অধিকার আছে। কিন্তু সেখানে তাদের অপমান, লাঞ্ছনা, এমনকি মৃত্যুর মুখোমুখি হতে হচ্ছে। তাদের ন্যূনতম সম্মান এবং মানবিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে।

মিয়ানমার স্বাধীন সাংবাদিকতাকে রুদ্ধ করতে চায়: জাতিসংঘ

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সরকার রাজনৈতিক প্রচারণার মাধ্যমে স্বাধীন সাংবাদিকতাকে রুদ্ধ করছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশন। রয়টার্স সাংবাদিকদের কারাদণ্ডসহ পাঁচটি মামলা পর্যালোচনা করে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক রিপোর্টে এই মন্তব্য করেছে সংস্থাটি। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অস্পষ্ট আইনে অনেককে গ্রেপ্তার ও বিচার করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও সরকার সংবাদ মাধ্যমগুলোকে দমিয়ে রাখছে।


বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি