ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

ওপার বাংলায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ১ লাখ কোটি রুপি!

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ মে ২০২০ বৃহস্পতিবার, ১২:৪৮ পিএম
ওপার বাংলায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ১ লাখ কোটি রুপি!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে। বঙ্গোপসাগরে উৎপন্ন এই ঝড়ের দাপটে পশ্চিমবঙ্গে ঘণ্টায় প্রায় ১৮৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া প্রবেশ করে উপকূলীয় অঞ্চলে। 

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ হতে পারে ১ লাখ কোটি রুপি এবং পশ্চিমবাংলাকে এখন সবকিছু ‘পুনর্নির্মাণ’ করতে হবে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গরাজ্যে বুধবার (২০ মে) সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা ছিলো এবং বেলা বাড়ার সঙ্গেসঙ্গে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান তাণ্ডবের আকার ধারণ করে। সেই তাণ্ডবের জেরে এখনও পর্যন্ত সেখানে মারা গিয়েছেন ১২জন। এক প্রতিবেদনে এখবর নিশ্চিত করেছে দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

রাজ্যটির সহস্রাধিক ঘর-বাড়ি গ্রাস করেছে এই ঘূর্ণিঝড়। বঙ্গোপসাগরে উৎপন্ন ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের দাপটে পশ্চিমবঙ্গে ঘণ্টায় প্রায় ১৮৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া প্রবেশ করে উপকূলীয় অঞ্চলে।

এদিকে, করোনাভাইরাসের চেয়েও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাব অনেক বেশি বলে জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ হতে পারে ১ লাখ কোটি রুপি। পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের প্রভাব করোনভাইরাস মহামারির চেয়েও মারাত্মক!”

বুধবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও জানান, রাজ্যটির উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং পশ্চিমবাংলাকে এখন সবকিছু “পুনর্নির্মাণ” করতে হবে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী জানান, শুধু দুই ২৪ পরগনাই নয়, কলকাতা হাওড়া দুই মেদিনীপুরেও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অন্যান্য জায়গাগুলিতে পরবর্তী সময়ে এর প্রভাব পড়তে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।