ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সাড়া দিচ্ছেন না প্রণব মুখার্জী

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ আগস্ট ২০২০ বুধবার, ১২:৪৭ পিএম
সাড়া দিচ্ছেন না প্রণব মুখার্জী

দিল্লির আর্মি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির অবস্থা সংকটজনক। তিনি চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন না। হাসপাতালের চিকিৎসকরা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সর্বশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানান। এ খবর শুনে দ্রুত হাসপাতালে ছুটে যান প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিত মুখার্জি ও মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখার্জি।

সোমবার রাতে প্রণব মুখার্জির মস্তিষ্কে জটিল অস্ত্রোপচার হয়। এরপর তাকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে অভিজিৎ মুখার্জি জানিয়েছিলেন, তার বাবার মস্তিষ্কে জমে থাকা রক্ত সরাতে অস্ত্রোপচার সফল হয়েছে, চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। তবে আগামী ৯৬ ঘণ্টা সাবেক রাষ্ট্রপতি চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণেই থাকবেন। প্রতি ঘণ্টায় তার মেডিকেল বুলেটিন প্রকাশ করবে বিশেষজ্ঞ টিম।

প্রণব মুখার্জির স্বাস্থ্যের খবর নিতে সোমবার রাতে হাসপাতালে যান ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। এদিন টেলিফোনে সাবেক রাষ্ট্রপতির স্বাস্থ্যের খবর নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী থেকে শুরু করে দেশ-বিদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা।

উল্লেখ্য, মস্তিষ্কের এ অস্ত্রোপচারের কারণে কোভিড পরীক্ষা করতে গিয়েই দেখা যায় প্রণব মুখার্জির করোনা পজিটিভ। করোনা সংক্রমিত অবস্থায়ই তার মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। বাড়ির বাথরুমে রোববার রাতে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান প্রণব মুখার্জি। রক্তপাত না হলেও সোমবার সকাল থেকে স্নায়ুঘটিত সমস্যা দেখা দেয় তার। বাঁ-হাত নাড়াচাড়া করতে সমস্যা হচ্ছিল। তাই চিকিৎসকের পরামর্শে আর্মি হসপিটাল রিসার্চ অ্যান্ড রেফারালে ভর্তি হন। এমআরআই স্ক্যানে দেখা যায়, আঘাত পাওয়ার ফলে তার মাথার ভেতর রক্ত জমাট বেঁধে রয়েছে। তাই জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। কিন্তু অস্ত্রোপচারের আগে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গিয়ে দেখা যায়, শরীরে দানা বেঁধেছে কোভিড-১৯। তিনি ডায়াবেটিসের রোগী। তাই তার ওপর নজর রাখতে ডা. সিমরন কাশ্যপের নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

প্রণব মুখার্জির দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। মঙ্গলবার প্রণব মুখার্জির অফিসে পাঠানো এক বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রণব মুখার্জি বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। তিনি ১৯৭৩-৭৪ সালে ভারতের বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী থাকাকালে তার সঙ্গে আমার সাক্ষাতের সুযোগ হয়েছিল। আমি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর আমার প্রথম সফর ছিল ভারতে। তখন আমি সস্ত্রীক তার সরকারি বাসভবনে গিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য বাংলাদেশ সফরে আসার অনুরোধ করেছিলাম। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি প্রত্যাশা করি, তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে বাংলাদেশ সফরে আসবেন।