ঢাকা, শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কভিড ভ্যাকসিনের অর্ধেকই ধনী দেশের দখলে

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০ শনিবার, ০৭:০২ পিএম
কভিড ভ্যাকসিনের অর্ধেকই ধনী দেশের দখলে

গত ৯ নভেম্বর ওষুধ কোম্পানি ফাইজার ও বায়োএনটেক ঘোষণা দেয় যে, তাদের পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিন প্রাথমিক ট্রায়ালে ৯০ শতাংশের বেশি কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। যদিও সারা বিশ্বে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভ্যাকসিন সরবরাহের জন্য আরও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে।

নিজেদের নাগরিকদের জন্য টিকা নিশ্চিত করতে ভ্যাকসিন গুলোর কার্যকারিতা প্রমাণিত হওয়ার আগেই সেগুলো আগাম চুক্তিতে কিনে রাখছে বিশ্বের ধনী দেশগুলো। ওষুধ কোম্পানিগুলোর সঙ্গে অগ্রিম চুক্তির বেশির ভাগই করেছে উন্নত দেশ।

গবেষকদের তথ্যমতে, করোনাভাইরাসের সম্ভ্যাব্য টিকার অর্ধেকের বেশি অগ্রিম কেনার চুক্তি সম্পন্ন করেছে উচ্চ-আয়ের দেশগুলো। প্রি-অর্ডারের প্রায় ছয় ভাগের এক ভাগ কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেরই দখলে। দেশটি আধা ডজন ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানির কাছ থেকে এক বিলিয়নের বেশি ডোজ প্রি-অর্ডার করে রেখেছে। অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি নাগরিকের জন্য তিনটি করে করোনার টিকা ইতোমধ্যে বরাদ্দ হয়ে গেছে!

অন্যদিকে কানাডা আরও এক কদম এগিয়ে। তারা প্রতি নাগরিকের জন্য দশটি করে ডোজের বন্দোবস্ত আগাম করে রেখেছে। প্রায় ৬০০ মিলিয়ন ডোজ অগ্রিম কেনার চুক্তি সম্পন্ন করে ফেলেছে গুটিকয়েক দেশ। গবেষকরা বলছেন, দরিদ্র দেশগুলিকে মূলত নির্ভর করতে হবে কোভ্যাক্সের ওপর। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উদ্যোগে যে ভ্যাকসিনটির কার্যক্রম চলছে। এই উদ্যোগের অংশ নেওয়া দেশগুলোর জন্য ৫০০ মিলিয়ন ডোজ কেনার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।