ঢাকা, রোববার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বিচ্ছেদের পর কে পাবেন ‘জানাডু ২.০’ বাড়িটি?

বিশ্বজুড়ে ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ মে ২০২১ শুক্রবার, ০৫:১২ পিএম
বিচ্ছেদের পর কে পাবেন ‘জানাডু ২.০’ বাড়িটি?

মেডিনার লেক ওয়াশিংটনের তীরে তাদের ৬৬ হাজার বর্গফুটের বাড়িটির বাসিন্দা ভবিষ্যতে কে হবেন সেটি নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। বিল গেটস দম্পতির বাড়িটির বর্তমান আর্থিক মূল্য প্রায় ১২ কোটি ৪০ লাখ ডলার।

বিশ্বের অন্যতম ধনী দম্পতি বিল গেটস ও মেলিন্ডা ফেঞ্চের বিবাহ বিচ্ছেদের পর দানশীলতা, অর্থ, প্রযুক্তি এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা তাদের স্ব স্ব খাতের জন্য কী কী হতে পারে তা নিয়ে ভাবনা শুরু করেছেন। তবে এর মধ্যে কেউ কেউ ভাবছেন, এই বিচ্ছেদের পর সিয়াটলে অবস্থিত ১৩১ মিলিয়ন ডলারে বানানো গেটস পরিবারের বিলাসবহুল এই মেনশনটির মালিক কে হবে? বিল গেটস নাকি মেলিন্ডা গেটস? 

১২৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সম্পদের মালিক এই এই দম্পতি গত সোমবার তাদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের প্রোফাইলে যৌথ স্ট্যাটাস দিয়ে বিচ্ছেদের ঘোষণা দেন। তবে তারা জানান, এই বিচ্ছেদের পরও, তাদের পরিচালনায় থাকা বিশ্বের সবচেয়ে বড় দাতব্য প্রতিষ্ঠান বিল এবং মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক কার্যক্রম বা এর কাঠামোর পরিবর্তন আসবে না।

তবে মেডিনার লেক ওয়াশিংটনের তীরে তাদের ৬৬ হাজার বর্গফুটের বাড়িটির বাসিন্দা ভবিষ্যতে কে হবেন সেটি নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। বিল গেটস দম্পতির বাড়িটির বর্তমান আর্থিক মূল্য প্রায় ১২ কোটি ৪০ লাখ ডলার। এই বাড়ি তৈরিতে সাত বছর সময় লেগেছিল। প্রতি বছর সম্পত্তি কর হিসেবে ১০ লাখ ডলার দিতে হয় তাদের।

বাড়ির অন্দরে অন্দরে প্রযুক্তির ছোঁয়া থাকলেও বিল গেটস চেয়েছিলেন বাড়িটিকে আরও প্রযুক্তিবান্ধব করতে। তবে বাধ সেধেছিলেন মেলিন্ডা। তিনি চেয়েছিলেন, থাকার যায়গা যেনো অফিসের মতো না হয়।


পরবর্তীতে এক সাক্ষাতকারে মেলিন্ডা বলেছিলেন, "যেভাবে বাড়িটি বানানোর পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তাতে মনে হচ্ছিল আমাদের ভিডিও গেমসের ভেতরে থাকতে হবে।"

নির্মাণকাজ স্থগিতের পর বিখ্যাত এক ইন্টেরিয়র ডিজাইনারকে এনে বাড়ির খোলনলচে বদলে দেন মেলিন্ডা।

বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস বাড়িটি এমনভাবে তৈরি করেছেন, কেউ এই বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে ধাঁধায় পড়ে যেতে পারেন। মূল বাড়িকে তিনি অন্যন্য অংশ থেকে একেবারেই আলাদা রেখেছেন। মূল বাড়িতে রয়েছে মাত্র সাতটি শোবার ঘর। তবে বাড়ির রিসিপশন হলে প্রায় ২০০ গেস্টের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। জানাডু ২.০ এর বেশির ভাগ অংশই মাটির নিচে। দেখা যায় না। বাড়িতে প্রবেশ করলেই পাবেন ৯০ ফুট লম্বা এবং ৬৩ ফুট উঁচু সিঁড়ি যার ধাপ রয়েছে ৮০টি। সিঁড়িটি একেবারে বাড়ির নিচ পর্যন্ত পৌঁছেছে। আর মাটির ওপরে দোতলা ভবনটি কাঠ আর কাচ দিয়ে করা।

গেটস দম্পতির বাড়িতে ৬০ ফুটের একটি সুইমিং পুল আছে যেখানে পানির নিচে মিউজিক সিস্টেম আছে। এই বাড়ির একটি ঘরে বড় আকারের একটি ট্র্যাম্পোলন (লাফানোর মঞ্চসদৃশ জায়গা) বসানো আছে। ওই ঘরের সিলিংয়ের উচ্চতা ২০ ফুট।
বাড়িটিতে বিশাল একটি লাইব্রেরি আছে যা আকারে প্রায় দুই হাজার ১০০ বর্গফুট। এতে দুটি গোপন বইয়ের তাক আছে যেখানে ১৯৯৪ সালে নিলামে তিন কোটি ৮ লাখ মার্কিন ডলারে কেনা লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির বিখ্যাত পাণ্ডুলিপি কোডেক্স লিসেস্টার রাখা আছে।


সাদামাটা বাড়িগুলো থেকে এর প্রধান আলাদা বৈশিষ্ট্য হচ্ছে `ইন্টেরিয়রের সাথে আল্ট্রা ইলেকট্রনিক্স এবং কম্পিউটার সিস্টেম` ব্যবহার। এখন পর্যন্ত ২.০ সিরিজের এই একটি বাড়িই নির্মাণ করা হয়েছে। বাড়িটির আশেপাশের এলাকা কিনে নিতে গেটস কে আরো ১৪ মিলিয়ন ডলার খরচ করতে হয়েছে। পুরো বাড়িটি প্যাসিফিক লজ স্টাইলে নির্মাণ করা হয়েছে যেখানে ব্যবহার করা হয়েছে প্রায় ৫০০ বছর পুরানো ডগলাস ফির নামক কাঠ। এই কাঠ পাওয়া গিয়েছিল পরিত্যাক্ত একটি অতি পুরাতন কাঠের ইয়ার্ডে।

পুরো এই বাড়িটিকে নিজেদের মনের মতো করেই সাজিয়েছেন বিল ও মেলিন্ডা। তবে ২০১৯ সালে দ্য টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এই বাড়িটিতে ভবিষ্যতে বসবাস না করার কথা জানান মেলিন্ডা।

তিনি বলেছিলেন, "ওই বাড়িটা আমাদের কাছে চিরদিনের জন্য থাকবে না। আমি সেই দিনের জন্য অপেক্ষা করছি, যেদিন বিল ও আমি ১৫০০ বর্গফুটের একটি বাড়িতে বসবাস করবো।" 

সূত্র: দ্য সিয়াটল টাইমস