ঢাকা, শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘কাদের মির্জার বিষয়টি এখন ফয়সালার পথে’ 

জুয়েল খান
প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শুক্রবার, ০৩:৫৮ পিএম
‘কাদের মির্জার বিষয়টি এখন ফয়সালার পথে’ 

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম বলেছেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ভাই আবদুল কাদের মির্জার লগামহীন কথাবার্তা ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কথাবার্তার বিষয়ে দ্রুতই ফয়সালা হবে এবং এ বিষয়টি এখন ফয়সালার পথেই আছে। 

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের লাগামহীন কথাবার্তা এবং দলীয় শৃঙ্খলার বিভিন্ন দিক নিয়ে বাংলা ইনসাইডারের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় এসব কথা বলেছেন আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম। পাঠকদের জন্য বাহাউদ্দিন নাসিমের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বাংলা ইনসাইডারের নিজস্ব প্রতিবেদক জুয়েল খান। 

বাহাউদ্দিন নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অধিকার কাদের মির্জাকে কে দিয়েছে। কাদের মির্জাকে আওয়ামী লীগ ও দলের নেতাকর্মীদেরকে নিয়ে যেখানে-সেখানে, রাস্তা, ফুটপাতে দাঁড়িয়ে অথবা জনসভা ও সাংবাদিক সম্মেলন করে এ ধরনের কথা বলার এখতিয়ার কে দিয়েছে। রাজনৈতিক সংগঠনের কোনও কাঠোমোর মধ্যে কি পড়ে এগুলো। এভাবে কোনও রাজনৈতিক দলের সংবিধিবদ্ধ কাঠামোর মধ্যে থেকে এ ধরনের কথাবার্তা বলতে পারে কোনও নেতাকর্মী?

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ অনেক বড় দল এবং লাখো নেতাকর্মী রয়েছেন কাজেই কে কখন কি ধরনের কথা বলছেন সেটা দেখা আওয়ামী লীগের জন্য কঠিন। তবে কেউ যদি দলীয় কাঠামো বা গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে কথা বলেন তাহলে সেইসব লাগামহীন কথাবার্তার দায় আওয়ামী লীগ নেবে না। যার যার কথার দায় তাকেই নিতে হবে। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রে বিশ্বাসী একটি দল কাজেই কিছু নেতা অতিউৎসাহি হয়ে লাগামহীন কথাবার্তা দলের জন্য মঙ্গলজনক নয়।

কাদের মির্জা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খান ও সাধারণ সম্পাদক নুর নবী চৌধুরীকে বহিষ্কার করেছেন কিন্তু তিনি এটা করতে পারেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, কে কার ভাই সেই বিবেচনায় আওয়ামী লীগ চলে না। আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কাউকে বহিষ্কার করার ক্ষমতা রাখে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ এবং সবার ওপরে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা। এ ছাড়া কোনও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদককে বহিস্কার করার এখতিয়ার একজন ব্যক্তির নেই। গঠনতন্ত্রের কোন ধরা অনুযায়ী কাদের মির্জা এটি করতে পারেন সেই প্রশ্ন তাকেই করা উচিৎ।