ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘জনগণের রায় নিয়েই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়’

মাহমুদুল হাসান তুহিন
প্রকাশিত: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ শুক্রবার, ০৪:০০ পিএম
‘জনগণের রায় নিয়েই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, নির্বাচনের প্রস্তুতির আগে তো আমরা সংগঠনকে গতিশীল রেখেছি। আমাদের নির্বাচনী এজেন্ডা তো শুরু থেকেই থাকে। আমরা ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের পর থেকেই আমাদের প্রধানমন্ত্রী দলের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন, সমৃদ্ধি, শান্তি, গণতন্ত্রের প্রতীক। তিনি নির্বাচনের কার্যক্রম শুরু করেছেন।

আওয়ামী লীগের নির্বাচন প্রস্তুতি, বিএনপির অংশগ্রহণ সহ বিভিন্ন বিষয়ে বাংলা ইনসাইডারের সাথে আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেছেন। পাঠকদের জন্য এস এম কামাল হোসেন এর সাক্ষাৎকার নিয়েছেন বাংলা ইনসাইডার এর নিজস্ব প্রতিবেদক মাহমুদুল হাসান তুহিন।

বিএনপির অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে এস এম কামাল হোসেন বলেন, বিএনপি যেকোনভাবে ক্ষমতায় থাকতে চেয়েছে। ২০০৬ সালে বেগম খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকার জন্য প্রায় ১ কোটি ২১ লক্ষ ভুয়া ভোটার করেছিলেন, ছাত্রদলের দেড়শ ক্যাডারকে নির্বাচন কমিশনে সহকারী রিটার্নিং অফিসার করেছিলেন এবং নিজেদের লোককে প্রিসাইডিং অফিসার করেছিলেন। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশেই সেদিন ভোটার বৃদ্ধি করা হয়েছিল। সংবিধান লঙ্ঘন করে পছন্দমতো লোককে তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রধান করার জন্য বিচারপতিদের বয়স বৃদ্ধি করলেন।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি ষড়যন্ত্র ছাড়া সুষ্ঠ নির্বাচন করে কখনোই ক্ষমতায় আসতে পারেনি। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে সকল অপশক্তি বিএনপির পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল, ষড়যন্ত্র করেছিল। ২০০১ সালের নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনা শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছেন।

২০১৮ সালের নির্বাচনে বিএনপি কেন অংশগ্রহণ করলো এমন প্রশ্নে এস এম কামাল হোসেন বলেন, বিএনপি ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের নির্বাচনে নির্বাচন করার জন্য যায়নি। নির্বাচন কমিশনের রেজিস্টারভুক্ত নয় এমন অনেক দলকেও গণভবনে ডেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সবাইকে বলেছেন। একটি নির্বাচনকে সুষ্ঠু করার জন্য শক্তিশালী প্রতিপক্ষ থাকে। কিন্তু বিএনপি মনোনয়ন বাণিজ্য করার জন্য নির্বাচনে গিয়েছিল।

আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে এস এম কামাল হোসেন বলেন, নির্বাচনে এখন কোথাও সংঘাত, রক্তপাত হয়না। মানুষ বিএনপির দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। নিশ্চিত পরাজয় জেনেই তারা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য এই পরিকল্পনা করেছে। ক্ষমতার পরিবর্তনের পথ কি? ক্ষমতার পরিবর্তনের পথ নির্বাচন। অন্য পথে ক্ষমতার পরিবর্তন আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বিশ্বাস করে এবং জনগণের আস্থা, ভালোবাসা অর্জন করে আওয়ামী লীগ টিকে থাকতে চায়, জনগণের রায় নিয়েই তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। এই কারণেই আওয়ামী লীগ নির্বাচনকে বেশি গুরুত্ব দেয়।