ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

হাত পুড়িয়ে রান্নাঘরে;পাখির স্বপ্ন

মিনা আক্তার
প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ শনিবার, ১১:২৩ এএম
হাত পুড়িয়ে রান্নাঘরে;পাখির স্বপ্ন

ছোট মেয়ে পাখি, ষষ্ঠ  শেণিতে পড়ে। গত ১৭ ই মার্চ থেকে তার স্কুল বন্ধ। করোনা পরিস্থিতিতে বন্ধ হয়ে গেছে তার বাবার চাকরীও। সে অনেক খুশি হয়েছিল এই ভেবে যে পরিবারের সবাই এক সাথে থাকবে আর তার সাথে  পড়াশোনার কোনো চিন্তা নাই। কিন্তু তার এই খুশি বেশিদিন স্থায়ী হলো না। কারণ তার বাবার বেকারত্ব তাদের বেশি দিন ভালো থাকতে দেইনি। সে কখনো তার বাবা মাকে এই ভাবে ঝগড়া করতে দেখে নাই। সে এখন তার বাবা মার ঝগড়া দেখে দরজার পিছনে গিয়ে লুকায়। গতকাল তার মা রান্নাঘরে রান্না করার সময় তার বাবার সাথে ঝগড়া করে। ঝগড়ার এক পযার্য়ে তার বাবা তার মায়ের গায়ে হাত তুলে। তিনি পাখির মাকে চুলে ধরে মারধরও করে। তিনি রান্না করা বন্ধ করে ঘরে দরজা বন্ধ করে কান্না করে আর পাখির বাবা ঘর থেকে বের হয়ে যায়।পাখি তার মায়ের সমাপ্ত রান্না শেষে করতে গিয়ে তার দু হাত পুড়লো চুলার আগুনে। হাতের ক্ষতে তার মা ঔষধ লাগিয়ে দিল আর তার বাবা নিয়ে আসে সেই ঔষধ। কিন্তু পাখির মন শুধু চায় জড়িয়ে ধরে তার বাবা মাকে বলতে "তোমরা আর ঝগড়া কর না,  সব ঠিক হয়ে যাবে, বাবা আবার চাকরীও পেয়ে যাবে " পাখি তার বাবা আর মারে মুখের দিকে তাকিয়ে থাকে আর কান্না করে। সে এখন শুধু একাটাই প্রার্থনা করে পৃথিবীতে সব কিছু আগের মতো হয়ে যাক। তার বাবা মা যেন আগের মতো হয়ে যাক। সে আগের মতো স্কুলে যেতে চায়। সে এখনো জানে না কি ভাবে তা সম্ভব, শুধু এতটুকু বিশ্বাস করে সব ঠিক হয়ে যাবে একদিন।

 

মিনা আক্তার

বয়স - ১৮
চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজ, নাসিরাবাদ চট্টগ্রাম।