ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮ , ৫ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

এই ফাল্গুনে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৮:০০ এএম
এই ফাল্গুনে

সবেমাত্র চাকরি জীবন শুরু করেছে নেহা। চাকরি বয়স মাত্র দেড়মাস। সকালে অফিসের জন্য তৈরি হচ্ছে। তবে আজকের সাজটা অন্যান্যদিনের চেয়ে ভিন্ন। প্রতিদিন সেলোয়াড় কামিজ হলেও আজ পরছেন হলুদ একটা জামদানি, দুই হাতে কাচের কিছু হলুদ চুড়ি, কপালে লাল একটা টিপ, আর চুলের একপাশে পানিতে ভেজানো ছোট্ট একটা ফুল। ব্যস, হয়ে গেলো তাঁর ফাল্গুনের সাজ। নতুন রোদ গায়ে মেখে পথে নামতেই চোখে পড়লো অনেক তরুণীই আজ সেজেছে তার মতো করে, বসন্তকে বরণ করে নিতে।

নতুন দম্পতি সৌরভ এবং শিখা। বিয়ের পরে এবার তাদের প্রথম বসন্ত উদযাপন। সৌরভের অফিসের পরে দুজনের জন্য আলাদা কিছু সময় বের করে নেবে বলে ঠিক করে রেখেছে। শিখার পছন্দ কাচা হলুদ আর লাল পাড়ের শাড়ি, সৌরভের সাদা পাঞ্জাবি। বিকেল থেকে তারা রিক্সা করে ঘুরবে। বইমেলায় যাবে। রাতে দুজন মিলে পছন্দের কোনো খাবার দিয়েই উদযাপন তাদের বসন্ত।

আজই প্রথম সামনাসামনি দেখা হবে অনন্যা আর আদনানের। সামাজিক মাধ্যমে পরিচয় আর প্রেমের শুরু। তাও অনেকদিন হয়ে গেলো। দেখা করা দরকার। সেজন্য দেখেশুনে ভালো একটি দিন বেছে নিতে হবে। ঠিক হলো দেখা হবে বসন্তের প্রথম দিনে, ভালোবাসা দিবসের আগের দিনে। ঠিক হলো একদম সকালে দুজন বের হবে। দেখে যাতে চিনতে পারা যায় সেজন্য পোশাক সাজসজ্জাও ঠিক করে রেখেছে দুজনে। অনন্যার সবুজ আর হলুদ শাড়ি, মাথায় ফুলের মুকুট। আদনানের কচি সবুজ পাঞ্জাবি। শহরের ব্যস্ত রাস্তায় হেঁটে বেড়িয়ে নতুন দিনের সূচনা।

আজ ফাল্গুনের প্রথম দিন। শীতের বিদায়ী ঘণ্টা বেজে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে দরজায় কড়া নেড়েছে ফাল্গুন। কর্মব্যস্ততা দিয়ে যেখানে প্রতিটা সকাল শুরু হয়, আজ শুরু হবে নতুন সূর্যের মুখ দেখে। যাপিত জীবনে আমরা বিবর্ণ শহরে প্রতিদিন কষ্ট, দৈন্যতা আর হতাশা নিয়ে নতুন দিন শুরু করি। কিন্তু এই ফাল্গুনের প্রথম দিনে শুরুটা হোক না একটু অন্যরকম। হোক একটু ভালোলাগার আর নতুন।

ফাল্গুনে বিকশিত কাঞ্চন ফুল,

ডালে ডালে পুঞ্জিত আম্রমুকুল।

কবিগুরুর এই ফাল্গুন বাণীতে প্রকৃতির একটা নতুন পরিবর্তিত আভা খুঁজে পাওয়া যায়। পৃথিবী সূর্যের দিকে ঢলে পড়ে বলেই শীত তার ইতিটানতে বাধ্য হয়। পৃথিবীজুড়ে নতুন নতুন প্রাণের সঞ্চার হতে থাকে। তারা প্রকৃতির শ্রী বৃদ্ধির পাশাপাশি টিকিয়ে রাখে পরিবেশ ও প্রতিবেশ।

বসন্ত ঋতু লুকিয়ে আছে ফাল্গুন ও চৈত্র মাসের ভিতর। তবে অনুভবের জায়গা থেকে বলতে গেলে শুধু ফাল্গুন মাসের কথাই বলতে হবে।

বর্তমান কালের অন্যতম কবি খালেদ হোসাইন লিখেছেন এভাবে...

তুমি ভালো থাকো আর না-থাকো

ফাল্গুন আসবেই এ দেশে।

ফুল যদি ঝরে যায়, নদী যদি মরে যায়

ফাল্গুন আসবেই এ দেশে।

ফাল্গুন আসবেই প্রতিবছর ঘুরে ঘুরে। বাঙালির এই প্রাণের উৎসবকে যুগ যুগ থেকেই মনে ধারণ করে আসছি আমরা। ফাল্গুন আমাদের জীবনে আরও নতুন আশীর্বাদ নিয়ে আসুক।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ

বিষয়: ফাল্গুন