ঢাকা, রোববার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ , ৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ভালোবাসার দিনে রাজধানীতেই ঘোরাঘুরি

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বুধবার, ০১:১৯ পিএম
ভালোবাসার দিনে রাজধানীতেই ঘোরাঘুরি

শহরের ব্যস্ত জীবনে প্রাণ ভরে দম নেওয়া হয়ে ওঠে না। আর ভালোবাসা দিবসে সঙ্গীকে নিয়ে নিজের মতো করে সময় কাটাতে দূরে কোথাও যাওয়ারও সময় কোথায়। তবে এই মহানগরীতেই আছে ঘুরে বেড়ানোর জন্য সুন্দর ও নির্মল জায়গা। কম সময়ের মধ্যেই ঘুরে আসা যায় এসব স্থান। তার আগে জানা দরকার কোথায় সেই জায়গাগুলো:

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা
ঢাকা বিশ্বাবদ্যালয়ের পুরো এলাকাটিই ঢাকার প্রাণকেন্দ্র। ভালোবাসার দিনে এই মুক্ত পরিবেশে সঙ্গীকে নিয়ে প্রাণ জুড়ানোই যায়। এখানে দেখা, ঘোরা আর উপভোগের মতো অনেক কিছুই আছে। দোয়েল চত্বর, চারুকলা, টিএসসি জায়গা গুলোতে লোক সমাগম অনেক হয়। সেই সঙ্গে চলমান বইমেলা তো আকর্ষণ ধরেই রাখছে। আরেকটু এগোলেই থাকছে ঢাকা মেডিকেল কলেজের পাশেই শহীদ মিনার।

ধানমণ্ডি লেক



এই লেকে এমনি সময়ে যথেষ্ট লোক সমাগম থাকে। আর ভালোবাসার এই দিনে সেই লোক সমাগম আরও বেড়ে যায়। এতে রয়েছে সুন্দর মনোরম পরিবেশ। লেকে নৌকা করে ঘুরে বেড়ানো, নির্মল গাছের নিচে পাশে বসে কিছুটা সময় কাটিয়ে দেওয়া। ৮নম্বর সেতুর কাছে রয়েছে রবীন্দ্র সরোবর, এটি সুন্দর বসার জায়গা।

হাতির ঝিল



গুলশানের পাশেই অবস্থিত হাতির ঝিল। লেক ও দৃষ্টিনন্দিত ব্রিজের সমাহার রয়েছে এখানে। অনেকখানি এলাকা জুড়ে ব্রিজ রয়েছে। বিশেষ আকর্ষণ হচ্ছে ওয়াটার বাসে চড়ে ঘুরে বেড়ানো। রাতে দারুণ রংবেরঙের আলোকসজ্জায় ঘুরে বেড়াতে মন্দ লাগেনা।

সংসদ ভবন
বিশ্ববিখ্যাত আমেরিকান স্থপতি লুইকান বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ ভবনের নকশা করেন। তার নকশা অনুয়ায়ী ঢাকার শের-এ-বাংলা নগরে ২০৮ একর জমির উপর নির্মিত জাতীয় সংসদ ভবন এ উপমহাদেশের অন্যতম স্থাপত্য নিদর্শন। এর বিশাল খোলামেলা এলাকা একান্তে অনেকখানি সময় কাটিয়ে দেওয়া যায়।

চিড়িয়াখানা
মিরপুরের বোটানিক্যাল গার্ডেনের পাশেই চিড়িয়াখানা অবস্থিত। বিশাল এই চিড়িয়াখানার বিস্তৃতি ৯৩ হেক্টর। বিভিন্ন প্রজাতীর প্রচুর প্রাণী এখানে মিলবে বিভিন্ন খাঁচায়। বিচিত্র এই প্রাণীদের দেখে ভালোবাসা দিবস কাটিয়ে দেওয়াটা শুনতে একটু কেমন লাগলেও ঘুরতে খারাপ লাগবেনা।

শিশুপার্ক
ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে অবস্থিত শাহবাগ শিশুপার্কট। ১৪টি রাইড এখানে রয়েছে বাচ্চাদের জন্য। এখানে যে শুধু বাচ্চারা ঘুরতে আসে তা কিন্তু নয়। সব বয়েসিদের জন্য এই পার্ক আনন্দের। বিভিন্ন উৎসবে এই পার্ক জনসমুদ্রে পরিণত হয়। ভালোবাসার দিনে ঘুরে আসা যায় এই শিশু পার্ক থেকে।

ভাসানি নভোথিয়েটার



সংসদ ভবনের কাছাকাছি বিজয় সরণিতে এই আধুনিক তারামণ্ডল বা নভোথিয়েটারটি অবস্থিত। ঘোরার মতো উপযুক্ত জায়গা না হলেও এখানে দেখার আছে অনেক অজানা কিছু। তাই ব্যস্ত শহরে ঘুরতে না চাইলে নির্দিষ্ট এই জায়গায় ঘুরে আসা যায় সঙ্গীকে নিয়ে।

বোটানিক্যাল গার্ডেন
জাতীয় উদ্ভিদ উদ্যান বা বাংলাদেশ ন্যাশনাল হার্বেরিয়াম বাংলাদেশে উদ্ভিদ প্রজাতি সংরক্ষণ, গবেষণা ও প্রদর্শনের সবচেয়ে বড় কেন্দ্র হিসেবে বিবেচিত। কেন্দ্রটি ন্যাশনাল বোটানিক্যাল গার্ডেন নামেও পরিচিত। উদ্যানটি ঢাকার মিরপুরে ঢাকা চিড়িয়াখানার পাশে অবস্থিত। এতে আছে পুকুর খাল ও সরু রাস্তা। সরু রাস্তা ধরে এগিয়ে গেলে দেখা যাবে গোলাপ বাগান, রাস্তার পাশে আকাশমনি, শাপলাপুকুর, বাঁশঝাড়, পাদ্মপুকুর, ইউক্যালিপটাসের বাগান, গ্রিনহাউজ, ক্যাকটাসঘর ও গোলাপ বাগান। এই পরিবেশে দুজনে কিছুটা সময় স্বাচ্ছন্দ্যে কাটানো যায়।

জাদুঘর
ঢাকায় অসংখ্য জাদুঘর রয়েছে। কম বেশি ৪০টির মত। যেমন- বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, পোস্টাল জাদুঘর, জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর, মিরপুর চিড়িয়াখানার ভেতরে রয়েছে প্রাণী জাদুঘর।

রমনা পার্ক
শিশু পার্কের উল্টো পাশেই এই রমনা পার্ক অবস্থিত। এটি প্রতি দিন খোলা থাকে, কোনো প্রবেশ মূল্য নেই। এর ভিতরে আছে চমৎকার খাল, সরু পায়ে চলার রাস্তা, অসংখ্য গাছ আর সবুজ ঘাসের লন। ভেতরে রয়েছে চাইনিজ রেস্তোরাও। চাইলে ঘুরে আসাই যায়।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ