ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ , ১০ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সুস্থ থাকতে মশলা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ বুধবার, ০১:৫৯ পিএম
সুস্থ থাকতে মশলা

রান্নাকে সুস্বাদু করে তুলতে আমাদের চেষ্টার কোনো ত্রুটি থাকেনা। এজন্য থাকে বিভিন্ন কৌশল। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো মশলা ব্যবহার। মশলার যে কতরকমের পদ আছে, তার হিসেব নেই। এক একটি খাবারের এক এক ধরণের মশলা ব্যবহার হয়। কিন্তু মশলা যে শুধু রান্নার স্বাদ বাড়ায় তা নয়। এগুলোর রয়েছে অনেক গুণ।

মশলা শরীর গঠনে নানা ভাবে আমাদের সাহায্য করে। গবেষণায় প্রমাণিত, মশলাগুলি প্রতিদিন খেলে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, ফলে বুদ্ধি ও স্মৃতিশক্তি উভয়ই ধীরে ধীরে বাড়তে শুরু করে। শরীর ঝরঝরে ও সুস্থ রাখতে, বা রোগ নিরাময়ে মশলার কোনো জুড়ি নেই। আধুনিক যুগ শুরুর আগে আয়ুর্বেদিক ও ভেষজ চিকিৎসায় মশলার ব্যবহার ছিল অন্যতম ভরসা। আজকে এমন উপকারি কিছু সবজির কথা জানবো-

রোজমেরি:
সেই সুপ্রাচীন কাল থেকে নানা ধরনের রোগ সারাতে আয়ুর্বেদিক কাজে এটি ব্যবহার হয়ে আসছে। এটি মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যরক্ষা করে, ফলে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

গোলমরিচ:
শরীরকে রোগমুক্ত রাখার পাশপাশি মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়াতেও এই মশলাটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। পরিপাকেও বেশ কাজে লাগে এটি।

থাইম গুল্ম:
এতে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা মস্তিষ্কের উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি মনোযোগ বাড়াতেও সাহায্য করে। তবে ভালো ফল পেতে প্রতিদিন নিয়মিত খেতে হবে এই ঔষধি গুল্মটি।

ভূই-তুলসি:
মস্তিস্ক সজাগ রাখতে ভূই-তুলসি অনেক কাজে আসে। এছাড়া ঠাণ্ডাজনিত সমস্যায় এটি বেশ কাজে লাগে।

হলুদ:
হলুদের গুণ সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি। হলুদ রূপচর্চায় যেমন কাজে লাগে তেমনি পরিপাকে, ঠাণ্ডা সমস্যা, রক্ত বিশুদ্ধকরণে হলুদ দারুণ ভূমিকা পালন করে।

পুদিনা পাতা:
মুখের দুর্গন্ধ দুর করে, হজম শক্তি বাড়ায়,মুখের অরুচি ও গ্যাসের সমস্যা দুর করে, কর্মক্ষমতা বৃদ্বি করে ও শরীর ঠান্ডা রাখে। এছাড়া ত্বকের সমস্যায়ও পুদিনা পাতা কাজে লাগে।

জায়ফল:
ডায়বেটিস রোগ প্রতিরোধ, চোখের চুলকানি কমাতে, পেট ব্যথা ও গ্যাস সারাতে, দাঁত ও হাড় গঠণে জায়ফল অনেক উপকারি। এবং এটি সরাসরি প্রমাণিত।

ক্যামোমিল ফুল:
ক্যামোমিল চা শরীরে খুবই কাজে লাগে। ক্ষত নিরাময়, চুলকানি দূর করা, অকালবার্ধক্য হতে রক্ষা, ত্বকের সৌন্দর্যে এই ফুলের চা টনিকের মতো কাজ করে। অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসেবেও এর জুড়ি নেই।

লবঙ্গ:
মানসিক চাপ কমাতে এটি দারুন কাজে আসে। শুধু তাই নয়, দাঁতে ব্যথা কমাতে, মুখের দুর্গন্ধ দূর, সর্দি-কাশি-গলা খুসখুসানিতে, হজম দ্রুত করতে, মুখের ব্রন দূর করতে লবঙ্গ খেলে একেবারে সরাসরি উপকার পাওয়া যায়।

দারুচিনি:
শরীরের হাজারো সমস্যা সমাধান করে দারুচিনি। যেমন- শরীরের বিভিন্ন জয়েন্টের ব্যথা কমানো, পেটের সমস্যা কমানো, কোলেস্টেরল কমানো, অবাধ রক্ত চলাচল, লিম্ফোসাইটিক লিউকোমিয়ার বিস্তার রোধ, স্মৃতিশক্তি বাড়ানো, হৃদরোগের ঝুঁকি কমানো।


বাংলা ইনসাইডা/এসএইচ/জেডএ