ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নাস্তায় সিঙ্গারা কেন খাবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ মার্চ ২০১৮ শনিবার, ০৫:৪৭ পিএম
নাস্তায় সিঙ্গারা কেন খাবেন?

বাঙালির আড্ডায় এখন সিঙ্গারার সঙ্গে সমান ভাবে জায়গা করে নিয়েছে পিৎজা, বার্গার। মুচমুচে গরম ধোঁয়া ওঠা সিঙ্গারা না চিজ ভরা বার্গার কোনটা খাবেন? স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করলে বেছে নিতে দেশীয় নাস্তা সিঙ্গারাকেই। কেন? আসুন জেনে নিই: 

১. নিয়মিত জাঙ্ক ফুড খাওয়া শরীরের জন্য ক্ষতিকর। চিকিৎসকেরা জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলতে বলেন। অল্প খিদে মেটাতে বার্গার পিৎজা বহুগুণ ভালো সিঙ্গারা। সেন্টার ফর সায়েন্স অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের’ গবেষকরা বলেন, সিঙ্গারা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো না হয়েও বার্গার পিৎজার চেয়ে ভালো।

২. বার্গার বানাতে লাগে চিজ এবং সস। এই দু’টোতেই থাকে ক্ষতিকর প্রিজারভেটিভ যা স্বাস্থ্যের জন্য মোটেই ভালো নয়। অন্যদিকে, আলু, সবজি দিয়ে তেল বা ঘিয়ে ভাজা হয় সিঙ্গারা।এর সবকটি উপাদানই রাসায়নিক বা প্রিজারভেটিভ ছাড়া।

৩. ময়দা, আলু বা সবজি—টাটকা উপাদান দিয়েই সিঙ্গারা বানানো হয়। কিন্তু, বার্গার ব্রেড বা প্যাটিস কোনোটির উপাদানই টাটকা নয়। বার্গারের জন্য বিশেষ ব্রেড আগে থেকে বেকড করে প্রিজারভেটিভ দিয়ে রাখা হয়, যা শরীরে জন্য ক্ষতিকারক।

৪. বিশেষজ্ঞদের মতে, সিঙ্গারায় থাকে প্রায় ৩০৮ ক্যালোরি। বার্গারের ক্যালোরি ২৯৫ থেকে ৫০০-র মধ্যে থাকে। স্বাদ বাড়াতে চিজ এবং মেয়োনেজ ব্যবহার করা হয়। যা শরীরে ক্যালোরিও বাড়ায়।

৫. হ্যামবার্গারে প্রায় ১০৮১ মিলিগ্রাম মেয়োনেজ থাকেন এবং ছোট পার্টি বার্গারে থাকে ২৫৮ মিলিগ্রাম মেয়োনেজ। বিশেষজ্ঞদের মতে, মেয়োনেজে প্রচুর পরিমাণ সোডিয়াম থাকে। নিয়মিত বার্গার খেলে রক্তচাপ বাড়তে বাধ্য।

৬. চায়ের সঙ্গে স্ন্যাকস খাবার আলুর সিঙ্গারা খান। ভুল করেও চিজ এবং মেয়োনেজ ভরা বার্গার খাবেন না। মেয়োনেজে স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে যা শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায়।

৭. স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, সিঙ্গারা বা বার্গার কোনোটাই শরীরের জন্য ভালো নয়। তবে বার্গারের বদলে মুচমুচে সিঙ্গারা বাঙালিদের কিছুটা হলেও খাবারে তৃপ্তি দেয়। হোক না জাঙ্ক ফুড, বসন্তের বিকেলে চায়ের সঙ্গে ধোঁয়া ওঠা সিঙ্গারা, মন্দ কি!


বাংলা ইনসাইডার/এএফ/জেডএ