ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ঈদের যাত্রায় থাকুন সাবধানে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ১০:০০ এএম
ঈদের যাত্রায় থাকুন সাবধানে

ঈদকে সামনে রেখে অনেকেই রওনা দিয়েছেন বাড়ির পথে, এখনো অনেকের বাড়ি ফেরা বাকি। এই সময় যাত্রাপথটা বেশ বড় আর ঝামেলার মনে হয়। চারিদিকে মানুষের ভিড়, চুরি-ছিনতাইয়ের ভয় সবকিছুকে ছাপিয়ে নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়া, স্বজনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নিতে চাইলে পথে অবশ্যই সাবধান থাকুন এই বিষয়গুলোতে-

১. বাসা থেকে বের হওয়ার ঠিক আগে দেখে নিয়ে বের হন যে সবখানে ঠিকমতো তালা দিয়েছেন কিনা। সঙ্গের ব্যাগটি ভালো করে গোছানো হয়েছে কিনা তা শেষবার পরীক্ষা করে নিন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো বাস, ট্রেন বা প্লেনের টিকিট সঙ্গে নিয়েছেন কিনা তা দেখে নেওয়া।

২. বাসা থেকে গন্তব্যে যাওয়ার জন্য আপনাকে প্রথমে যেতে হবে বাস কাউন্টার বা রেলস্টেশনে। এইটুকু পথও যথেষ্ট সতর্ক থাকার চেষ্টা করুন। রাস্তায় ঈদের আগের অরাজকতা বেড়ে যাওয়ার ফলে সাবধানতা প্রয়োজন। ব্যাগপত্র সামলে রাখুন। মালামাল নামানোর সময়েও দেখে নিন সব ঠিকমত আছে কিনা। আর যেহেতু বৃষ্টির মৌসুম, তাই বাড়তি সতর্কতা প্রয়োজন।

৩. যানবাহনের নির্দিষ্ট সময়সূচি সম্পর্কে ভালো করে জেনে নিন। বাহন না আসা পর্যন্ত মালামাল সাবধানে রাখুন। সম্ভব হলে বাসের নম্বরটি টুকে রাখুন নিজের কাছে। যাত্রাপথের পাশের ব্যক্তিটিকে একটু পর্যবেক্ষণ করুন। অতিরিক্ত যাত্রী হওয়ার প্রবণতা ছাড়তে হবে।

৪. ছিনতাই- চুরি, পকেটমার থেকে মোবাইল, মানিব্যগ ও মালামাল সাবধানে রাখুন। সঙ্গে শিশু থাকলে তাদেরও যথেষ্ট সামলে রাখা প্রয়োজন।

৫. বাইরের কেনা খাবার কিংবা পানীয় না খাওয়াই ভালো। পাশের ব্যক্তিদের সঙ্গে খাওয়াদাওয়া শেয়ার করবেন না। বাসা থেকে খাবার এবং পানীয় নিয়ে বের হওয়ার চেষ্টা করুন।

৬. বের হওয়ার আগেই আপনার প্রয়োজনীয় কিছু ওষুধ সঙ্গে রাখুন। চলার পথে কিংবা ছুটিতে কাজে লাগতে পারে সেগুলো। এছাড়া আপনার নিত্যদিনের ওষুধ সঙ্গে নিয়ে নেবেন। কারণ সবখানে সব ওষুধ পাওয়া নাও যেতে পারে।

৭. অনেকেরই যাত্রাপথে ঘুমানোর অভ্যাস আছে। সেটা পরিত্যাগ করুন। কেননা এসময় চুরি বা মালপত্র হারানোর শঙ্কা বেশি থাকে। বিশেষ করে রাতের বেলা যাত্রা করলে ঘুম এলেও একটু চোখ খোলা অর্থাৎ মনোযোগ রাখুন আশেপাশে।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ