ঢাকা, শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ , ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

দুরত্বেই গাঢ় হয় ভালোবাসা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯ জুলাই ২০১৮ সোমবার, ০৫:৩৫ পিএম
দুরত্বেই গাঢ় হয় ভালোবাসা

কিছু প্রতিশ্রুতি, ভালোবাসা, বিশ্বাস আর ভবিষ্যতের স্বপ্ন নিয়ে গড়ে ওঠে মধুর সম্পর্ক। আস্থা রেখেই চলে সেই সম্পর্কের চাকা। এরমধ্যে হঠাৎ টের পেলেন সম্পর্ক আর জমছে না, কাছে থেকেও সঙ্গীকে দূরের মনে হচ্ছে। এটা ভালো লক্ষণ নয়, এতে বুঝবেন সম্পর্কে একঘেয়েমি চলে এসেছে, আপনারা বৈচিত্র্য খুঁজে পাচ্ছেন না। এই অবস্থায় নিজে থেকেই একটু দূরে থাকুন। দেখবেন দূরে গেলে সঙ্গীর প্রতি আলাদা একটা অনুভূতি তৈরি হয়েও যেতে পারে, সম্পর্কটা আগের থেকে জোরালো হতেও পারে। দুরত্ব থেকে সম্পর্কের ইতিবাচক দিক কি হতে পারে দেখে নিন একবার:

সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে শেখায়

দূরত্ব আপনাকে শেখাবে কীভাবে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে হয়। আপনি সঙ্গীকে ভালোবাসেন ঠিকই, কিন্তু কোনো কারণে বনিবনা নাও হতে পারে। তাই তখন চাইবেন দূরে থাকতে, দূরে থেকে ঝামেলাগুলো হবে না। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার কৌশল আপনি শিখে যাবেন।

অতীতের সুখের কথাগুলো মনে করায়

আপনারা কিছু ঘাটতির কারণে হয়তো দূরে সরে গেছেন। কিন্তু আপনাদের মনের মধ্যে সুখের স্মৃতিগুলো এখনো জড়িয়ে আছে। হয়তো সেগুলো মনে করার সময় পান না আপনারা। কিন্তু দূরে গেলে দেখবেন সেগুলো মনে করার সময় পাচ্ছেন, আপনাআপনি মনে সেই কথাগুলো ভেসে উঠছে।

সম্পর্কের গুরুত্ব বোঝায়

সবাই জানে যে দূরে গেলেই নাকি ভালোবাসা ভালোভাবে উপলব্ধি করা যায়। কাছে থাকলে মনে হয় সে তো আমারই আছে। তাকে সব কথা বলতে হবে, সবকিছু শেয়ার করতে হবে এমন তো না। কিন্তু দূরে গেলে বুঝবেন যে তাকে সব কথা বলতে না পারলে অস্থির লাগছে। তাকে প্রতিনিয়ত মনে পড়ছে। তার মানে আপনার জীবনে সে মূল্যবান। তখনই সম্পর্কের গুরুত্বটা আপনি বুঝতে পারবেন।

ত্রুটিগুলো উপলব্ধি করা যায়

দুজনেরই কোনো না কোনো ভুল বা ঘাটতি থেকেই আপনাদের দুরত্ব তৈরি হয়েছে। দূরে গেলে সেই ভুলত্রুটিগুলো নিয়ে আপনি ভাবতে পারবেন। দেখবেন যে দুরত্বের কারণ কি এটা ভাবলেই নিজেদের সমস্যাগুলো বের হয়ে আসতে থাকবে। তখন সেটা সমাধানেরও পথ থাকবে।

ধৈর্যশীল হতে শেখায়

সম্পর্কের একটা পর্যায়ে আমাদের ধৈর্য কমে যেতে থাকে। দেখা যায় কোনো ছোটখাট কারণেও ঝামেলা বেধে যায়, ঝগড়া শুরু হয়ে যায়। একজন আরেকজনকে সহ্যও করতে পারে না অনেক ক্ষেত্রে। তখন দূরে থাকা প্রয়োজন। এই মাথা গরম পরিস্থিতি প্রশমিত হতে থাকে। ধৈর্য বাড়ে, উপলব্ধিও বাড়ে।

ভালোবাসা তীব্র করে

দূরে না গেলে নাকি ভালোবাসার মর্ম বোঝা যায়না। তাই একে অপরের প্রতি বিরক্ত হয়ে গেলে একটু বিরতি নিন। দেখবেন দূরে গেলে সঙ্গীর ভুলত্রুটিগুলো থেকে তাঁর সঙ্গে কাটানো সুখের সময়ের কথা বেশি মনে পড়ছে। এতে করে আপনি নতুন করে ভালোবাসা ধারণ করতে পারছেন।

দুইজন দুইজনকে বুঝতে সাহায্য করে

দুইজন দুজনকে না বুঝলে সম্পর্ক ধরে রাখা মুশকিল। কাছে থাকলেই একজন আরেকজনকে বুঝবে এমন কোনো বিষয় নেই। একজন আরেকজনকে বুঝতে হলে অবশ্যই কিছুটা দুরত্ব তৈরি করুন। দেখবেন তখন বুঝবেন সঙ্গীর কোনটা পছন্দ, সঙ্গী কোন সময়ে কি করতে বা খেতে পছন্দ করতো এগুলো মনে আসবে। তাঁর ভুলগুলোকে তেমন গুরুত্বপূর্ণ মনে হবে না। আপনি তাকে বুঝতে শুরু করবেন।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ