ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

লবঙ্গের বিস্ময়কর সব গুণ

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৯ আগস্ট ২০১৮ বুধবার, ০৮:৩২ এএম
লবঙ্গের বিস্ময়কর সব গুণ

মশলা হিসেবে লবঙ্গ আমাদের কাছে যথেষ্ট জনপ্রিয়। আমাদের প্রায় অনেক রান্নাতেই লবঙ্গ ব্যবহার হয়। রান্নার স্বাদ বৃদ্ধি, সুঘ্রাণ আনার জন্যেই লবঙ্গের এতো কদর। কিন্তু এই গুণগুলো ছাড়াও লবঙ্গের যে আরও কতো স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে, তা আমরা ভাবতেও পারি না। লবঙ্গে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, প্রোটিন, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, জিঙ্ক, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, ভিটামিন সি এবং ভিটামিন বি আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অন্যতম পথ্য হিসেবে খনেক কাজে লাগতে পারে।

১. লবঙ্গে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে থাকা টক্সিক উপাদানগুলো বের করে দেয়। ফলে শুধু লিভারের পাশাপাশি শরীরের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দিতে পারে।

২. লবঙ্গতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান শরীরে যাওয়ার পর কিছু বিক্রিয়া শুরু হয়। এর ফলে নিমেষে দাঁতের যন্ত্রণা কমে যায়। তাই দাঁতে অস্বস্তি বা মাড়ি ফুলে গেলে কয়েকটা লবঙ্গ দিয়ে চা খেয়ে নেবেন, উপকার পাবেন।

৩. গবেষণায় দেখা গেছে, লবঙ্গে থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল প্রপাটিজ যেকোনো ধরনের জীবাণুকে মেরে ফেলতে পারে। তাই শরীরের বিভিন্ন সংক্রমণ থেকে বাঁচতে নিয়মিত লবঙ্গ খেতে পারেন।

৪. যেকোনো ধরনের ত্বকের সংক্রমণ হলে সেই ক্ষতস্থানে লবঙ্গের রস লাগিয়ে নিন। এতে প্রথমে কিছুটা জ্বালাপোড়া করলেও ক্ষত বেশ দ্রুত সেরে যেতে থাকবে। কারণ লবঙ্গে থাকা ভোলাটাইল অয়েল শরীরের টক্সিক উপাদান বের করে দেয়। সেই সঙ্গে জীবাণুদেরও মেরে ফেলে।

৫. লবঙ্গে থাকা ভিটামিন কে এবং ই রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে। ফলে শরীরে থাকা ভাইরাস নষ্ট হয়ে যায়। তাই ভাইরাল ফিবার হলে লবঙ্গ খেয়ে দেখতে পারেন। আবার রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা বাড়ায় বলে খুব ঘন ঘন জ্বর হওয়ার প্রবণতাও কমায়।

৬. দুপুরে বা রাতে খাবার আগে লবঙ্গ দিয়ে বানানো এক কাপ গরম চা খেলে হজম সহায়ক অ্যাসিডের ক্ষরণ বেড়ে যায়। সেই সঙ্গে পেটের দিকে রক্ত প্রবাহেরও উন্নতি ঘটে। ফলে খাবার হজম হতে সময় লাগে না।

৭. লবঙ্গ শরীর থেকে ক্ষতিকর উপাদানগুলো সরিয়ে রক্তকে পরিশোধন করতে ভূমিকা রাখে। লবঙ্গের তেলের জীবাণুনাশক গুণ রয়েছে। এটি ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া দূর করতে বেশ কার্যকর।

৮. পেশীর প্রদাহ এবং বাতের ব্যথা দূর করতেও লবঙ্গের জুড়ি নেই। বাতের ব্যথার স্থানে লবঙ্গের তেল ম্যাসাজ করুন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যে ব্যথা কমে গেছে।

৯. এক গ্লাস দুধে লবঙ্গের গুঁড়ো এবং লবণ মিশিয়ে পান করুন। এটি মাথা ব্যথা দ্রুত কমবে। আবার লবঙ্গ ব্রেস্ট ক্যানসার, ওভারিয়ান ক্যানসার প্রতিরোধ করে থাকে।

১০. তুলসি, পুদিনা, এলাচ ও লবঙ্গ মেশানো পানির শরবত মানসিক চাপ দূর করতে সহায়তা করে।

১১. উচ্চ ডায়বেটিস রোগীদের জন্য লবঙ্গ অনেক উপকারি। এটি শর্করার মাত্রা স্বাভাবিক রেখে শরীরের রক্ত থেকে কোষের মধ্যে বাড়তি চিনি পরিবহন করতে সাহায্য করে, নিয়মিত লবঙ্গ খেলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা সহজ হবে।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ