ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সুস্বাস্থ্যের জন্য ফল

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ৩১ আগস্ট ২০১৮ শুক্রবার, ০৮:৩৪ এএম
সুস্বাস্থ্যের জন্য ফল

আমাদের বিভিন্ন কাজের চাপে নিজের যত্ন আর সুস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করার সময় খুব কমই হয় আমাদের। সময়ের বেশ অভাব বলে সব যত্নই যেন আমরা তাড়াহুড়ো করে শেষে করতে চাই। তাই শরীরে সার্বিক পুষ্টির চাহিদা মেটাতে চাইলে সেই দায়িত্ব আমরা ‍দিয়ে দিতে পারি বিভিন্ন তাজা ফলমূলের ওপরে। কারণ আমাদের চাঙা রাখতে আর সব পুষ্টির চাহিদা মেটাতে ফলের কোনো বিকল্প হয় না। বিশেষ করে নারীদের জন্য ফল তো আরও বেশি উপকারী হয়। তাই আর কোনো ফল খান বা না খান, সুস্বাস্থ্যের জন্য এই ফলগুলো নিয়মিত খান-

টমেটো

লাইসোপিন নামের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রচুর পরিমাণে রয়েছে টমেটোতে। এই লাইসোপিন উপাদানটি মহিলাদের দেহে ক্যানসার কোষ জন্মাতে এবং বৃদ্ধি পেতে বাধা সৃষ্টি করে। সেই সঙ্গে হার্টের সমস্যাও দূর করতে পারে। সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, লাইসোপিন গ্রহণের ফলে ত্বকে বার্ধক্যও খুব দ্রুত আসতে পারে না, সেটি গবেষণাতেই প্রমাণিত। টমেটো রান্না, কাঁচা, জুস, বা মিষ্টি ছাড়া সস হিসেবে নিয়মিত টমেটো খেতে শুরু করুন।

পেঁপে

পেঁপে আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। পেঁপেতে রয়েছে ভিটামিন এ, সি, ফলেট এবং অন্যান্য ফাইটোকেমিক্যাল। পেঁপেতে আরও রয়েছে পাপাইন নামক উতসেচক থাকে, যেটি আমাদের হজম ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে পারে। এছাড়াও পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন থাকে। মিষ্টি পেঁপে ডায়বেটিস, হার্টের সমস্যা, বুকজ্বালা ইত্যাদি বিভিন্ন সমস্যার থেকে আমাদের রক্ষা করতে পারে। কাঁচা, পাকা বা রান্না- যেভাবেই হোক খাওয়া যেতে পারে।

পেয়ারা

আমাদের প্রিয় আর সুস্বাদু একটি ফল পেয়ারা। ১০০ গ্রাম পেয়ারায় ২২৮.০৩ গ্রাম ভিটামিন সি থাকে। আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী পেয়ারা। পেয়ারা আমাদের রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখে। পেয়ারায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও তন্তু থাকায় আমাদের হার্ট ভালো রাখতে সাহায্য করে। মেয়েদের পিরিয়ডের সময়ে বিভিন্ন সমস্যা ও পেটে ব্যথা কমাতে সাহায্য করে পেয়ারা। এছাড়া, মানসিক সমস্যা, দৃষ্টিশক্তি, বর্ণ, মেটাবলিজম ইত্যাদি ভালো রাখতে পারে এটি।

আপেল

আপেলে প্রচুর পরিমাণে পেক্টিন থাকে যা আমাদের দেহে অতিরিক্ত ফ্যাট সংশ্লেষিত হতে বাধা দেয়। আর একটি আপেল অনেকক্ষণ পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে। ফলে বার বার ক্ষুধা পায় না, ওজন বাড়ারও ভয় থাকে না। নিয়মিত আপেল খেলে হার্টের সমস্যা দূর হয়। এছাড়াও আপেল খেলে করোনারি সংক্রান্ত সমস্যা কম হয়। 

অ্যাভোক্যাডো

অ্যাভোক্যাডো যে শুধু আমাদের স্বাদের চাহিদাই মেটায়, এমনটা নয়। এই সুস্বাদু ফলে থাকে স্বাস্থ্যকর মনোস্যাচুরেডেট ফ্যাট, যা এলডিএল বা খারাপ কোলেস্টেরল কম উৎপন্ন করে। সেই সঙ্গে শরীরের অতিরিক্ত মেদ দূর করে।

চেরি

মধ্য বয়সী মহিলাদের গাউট এবং আর্থ্রাইটিসের সমস্যা দূর করতে পারে চেরি। এছাড়াও চেরিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। সপ্তাহে কয়েক ডজন চেরি বা মিষ্টিবিহীন চেরির রস সপ্তাহে তিন-চার দিন পান করুন। অথবা, দইসহ তাজা চেরি খেলে শরীরে ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করবে।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ