ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বারান্দা সাজাবেন যেভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৮:৩০ এএম
বারান্দা সাজাবেন যেভাবে

বাড়ির বারান্দা নিয়ে কিছু ভাবলে প্রথমেই ‘বারান্দায় রোদ্দুর, আরাম কেদারায় বসে দু’পা নাচাই রে’ গানটার কথাই মনে পড়ে। হালকা মিষ্টি রোদের মধ্যে আরাম কেদারায় বসে আরাম করার মতো শান্তিই আলাদা। আমাদের শহুরে জীবনে হাত পা ছড়িয়ে থাকার মতো বড় একটা ফ্ল্যাটবাড়ি পাওয়াটাই মুশকিল। সেখানে বারান্দার আশা করাই যায় না। আর যে ছোট বারান্দা থাকে, সেখানে দম ফেলাও যায় না। কিন্তু মোটামুটি আকারের একটা বারান্দা থাকলেই যথেষ্ট আপনার মনের মতো করে সাজিয়ে নেওয়ার জন্য। বারান্দায় পা দিলে এক চিলতে রোদ্দুর আর আকাশের দেখা যাবে, মন ভরে শ্বাস নেওয়ার মতো করেই সাজিয়ে ফেলুন। 

বারান্দায় বসার জায়গা

পুরনো কাঠের বাক্স বা বেতের টুল দিয়ে এক টুকরো বসার জায়গা তৈরি করে ফেলুন বারান্দায়। এরপর এখানে রেখে দিন কয়েকটা কুশন। বেশ আয়েশ করে এখানে সময় কাটাতে পারবেন গরমের বিকেলগুলোতে। চা-কফির সাথে আড্ডাও চলতে পারে। আর বৃষ্টি হলে চট করে এগুলোকে ঘরেও ঢুকিয়ে ফেলতে পারবেন কষ্ট ছাড়াই।

চাইলে বারান্দার এক কর্নারে রকিং চেয়ার বা ছোট একটা দোলনা বসাতে পারেন। যাদের বারান্দায় বসে বই পড়ার অভ্যাস আছে তারা বারান্দার এক কর্নারে রাখতে পারেন বইয়ের তাক। তবে এ ক্ষেত্রে বারান্দার একটি নির্দিষ্ট স্থান বাছাই করুন, যেখানে বৃষ্টি পড়ার আশঙ্কা থাকে না।

বারান্দায় সবুজ

বাগান করতে ভালোবাসলেও জায়গার অভাবে সেই শখ আর পূরণ হয়না। তবে বারান্দায় ছোটখাট বাগান করার কথা তো সবারই জানা। আর সারা সপ্তাহের স্ট্রেস কাটাতে গাছের পেছনে সময় কাটানোর মতো আর কিছুই হয় না। বারান্দার সিলিং থেকে ঝুলিয়ে দিতে পারেন কয়েকটা অর্কিড বা ফার্ন, পাতাবাহার,  নিচেও রাখতে পারেন ছোটখাটো কয়েকটা ফুলগাছের টব।

মনের মত সাজান

বারান্দাকে আরও সুন্দর করতে ঝুলিয়ে নিন মাটির ছোট ঘন্টা বা উইন্ড চাইম। বাতাসের সঙ্গে মৃদু ধাতব ধ্বনিতে মন শান্ত হয়ে উঠবে। দেয়ালে পছন্দমত ছবি আঁকিয়ে নিতেও পারেন। বারান্দার প্রান্তে ঝুলিয়ে দিতে পারেন চাটাই। এতে করে প্রখর রোদের হাত থেকে বেঁচে ছায়ায় জিরিয়ে নিতে পারবেন। আবার ছাদের সঙ্গে ঝুলিয়ে দিতে পারেন পাটের শিকা। তাতে বসিয়ে দিতে পারেন নকশা করা মাটির হাঁড়ি।

বারান্দার দেয়ালে সেট করতে পারেন বিভিন্ন টেরাকোটার সরঞ্জামাদি। মুখোশ, পেঁচা, ভাস্কর্য, ফুল, ঘণ্টার আদলে তৈরি বিভিন্ন টেরাকোটার এবং মাটির শোপিস পাওয়া যায়, এগুলো বারান্দার দেয়ালের জন্য খুব মানানসই। বারান্দার দেয়ালে গাঢ় রঙ করলে ভালো দেখাবে। গাছের ফাঁকে বিভিন্ন রঙিন লাইট ব্যবহার করে রাতের বেলা তৈরি করতে পারেন আলো-আঁধারির নান্দনিক পরিবেশ।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ/জেডএ