ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বেরিয়ে আসুন আত্মহত্যার প্রবণতা থেকে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ মে ২০১৯ শুক্রবার, ০৮:১৪ এএম
বেরিয়ে আসুন আত্মহত্যার প্রবণতা থেকে

দিন দিন মনের মধ্যে হতাশা অনেক বাড়ছে, কিছুতেই নিজেকেথিতু করতে পারছেন নাযাতে হাত দিচ্ছেন তাতেই ব্যর্থহচ্ছেনতখন আপনি ভাববেন তাহলে আর আমার বেঁচেথেকে কি লাভতখনই মনে হচ্ছে শেষ করে দেই নিজেকে

এই আত্মহত্যা বর্তমান সমাজের অন্যতম ব্যাধিবাইরে থেকেঅনেক মানুষকে হাসিখুশি দেখালেও ভেতরে যে কতটা হতাশা ও দুঃখ তারা পুষে রাখে, যর ফলে বাধ্য হয় নিজেকে শেষ করেদিতেকিন্তু চাইলেই আত্মহত্যা প্রবণতা থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব। নিজের চেষ্টাটা খুব জরুরিকিছু বিষয় মাথায় রাখলেই এ হতাশা, আত্মহত্যা প্রবণতা থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভবআপনাকে সহজ কিছু পরামর্শ জানাচ্ছি আত্মহত্যার চিন্তামাথা থেকে দূর করতে-

যখনই আত্মহত্যাকথা মাথায় আসবে তখন নিজেকেনিজের কিছু কথা বলে নেওয়া জরুরিপ্রথমেই জানবেনমেঘের পরে নাকি রোদ আসেমানে প্রতিটি খারাপ সময়ের শেষ আছেএই খারাপ সময় কোনোদিন ভালো সময় হবে

যদি টের পান দিন দিন বেপরোয়া হয়ে যাচ্ছেন, মনে হচ্ছেআপনি আত্মহত্যা করবেনইতাহলে তাহলে আপনার নিয়মিত কাজকর্ম থেকে নিজেকে একটু সরিয়ে নিনসবারআগে পরিবারকে সময় দিন, দূরে কোথাও ঘুরতে যানমানসিক চাপকে গুরুত্ব দিন সবার আগে, নইলে নিজেই কিন্তু এই মানসিক চাপ নিতে না পেরে নিজেরে শেষ করে দেওয়ারচিন্তা মাথায় আসেতাই মানসিক চাপ হলে চেষ্টা নিজেকে খুশি রাখুনএজন্য ঘোরা ভালোপ্রকৃতির কাছাকাছি গেলেভালো লাগবেআজেবাজে চিন্তা মাথা থেকে চলে যাবে

যখন মনে আসবে আমার বেঁচে থেকে লাভ নেই, তখন নিজেরথেকে বেরিয়ে চারপাশে তাকান। পরিবার, বন্ধুদের কথা ভাবুন। আত্মহত্যার চিন্তায় একটা ঘোরের মধ্যে চলে যায়মানুষমাথায় আসে যে কেউ আমার খেয়াল নেয় না, আপনকেউ নেইকিন্তু না, ভেবে দেখেন সবাই আপনাকেভালোবাসেতাদের মুখ চেয়ে আপনাকে টিকে থাকতে হবেতারা আপনাকে হারাতে চাইবে না

আত্মহত্যার চিন্তা আসলে আশেপাশে সবকিছুই নেতিবাচকমনে হবেনিজেকে সবকিছুর জন্য দোষী মনে হবে। এ থেকেতৈরি হবে অপরাধবোধআর তা থেকেই আত্মহত্যার চিন্তাআর তাই যেটা আপনি করেননি বা আপনার প্রত্যক্ষ হস্তক্ষেপ নেই সেটার জন্য নিজেকে দোষারোপ করা বন্ধ করুন। সবকিছু সবসময় ঠিকভাবে হবে না এটাই প্রকৃতির নিয়ম।

সবসময় নিজের জীবনের দিকে তাকাবেনতরুণদের মধ্যেইআত্মহত্যা প্রবণতা বেশিএকবার চোখ বন্ধ করে ভাবুনআপনার ভবিষ্যতে কী করা বাকি আছে, কী কী করা সম্ভবহয়নিনিজেকে শেষ করে দিলে তো সেটা সম্ভব নাতাইকাজগুলোর দিকে খুব মনোযোগ দিন

মানসিক চাপ থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারছেন না, আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ছেই- এই অবস্থায় পড়লে অবশ্যই চিকিৎসকেরকাছে যানএকজন অভিজ্ঞ থেরাপিস্ট, সাইকিয়াট্রিস্টদেখাবেনতিনি আপনাকে ওষুধ, ভালো থাকার অনেকগুলোপথ দেখিয়ে দিতে পারেন

যার কারণে বা যে পরিস্থিতির কারণে কষ্ট পাচ্ছেন, তা থেকেনিজেকে সরাননিজের ছোট ইচ্ছেগুলো পূরণের চেষ্টা করুন। কোথাও খেতে ইচ্ছে করলে সেখানে চলে যান, মুভি দেখুন সিনেমা হলে গিয়ে, পছন্দের বইটি পড়ুন। সঙ্গে কাউক নাপেলে একাই বেরিয়ে পড়ুনদেখবেন আপনি সুস্থ হয়েযাচ্ছেনসময়ের সঙ্গে সঙ্গে সব মানিয়ে যাবেনিজের ওপরআত্মবিশ্বাস আনুননিজের ক্ষতি করে অন্যকে শাস্তি দেওয়াযায় নাআত্মহত্যা কোনো সমাধান নয়নিজেকে অন্যদের কাছে উদাহরণ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করুনমন খুলে হাসতেশিখুন, জীবন সুন্দর হয়ে যাবে

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ