ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

সরাসরি ঠাণ্ডা পানি পান কখনোই নয়

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১১:২৭ এএম
সরাসরি ঠাণ্ডা পানি পান কখনোই নয়

প্রচণ্ড গরমের বাইরে থেকে এসেই ফ্রিজটা খুলেই ঢকঢক করে এক বোতল পানি খেয়ে নিলেন। আবার বাইরে খুব গরমে দোকান থেকেই ঠাণ্ডা পানির বোতল কিনে খেলেন। সেই শান্তি পেলেন তো অবশ্যই। কিন্তু আপনার যে কি ক্ষতি হলো সেটা তো বুঝলেন না। আপনি সাধারণ পানির সঙ্গে ঠাণ্ডা পানি মিশিয়ে খেতে পারেন সর্বোচ্চ। কিন্তু সরাসরি ঠাণ্ডা পানি আপনার জন্য অতিমাত্রায় ক্ষতিকর হতে পারে।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা বলেন, খাওয়ার পরপর ঠাণ্ডা পানি এড়িয়ে যেতে। এতে শ্বাসনালী ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। ঠাণ্ডা পানি শ্বাসনালীতে বেশি পরিমাণে শ্লেষ্মার আবরণ তৈরি করে দেয়। এটা থেকে শ্বাসনালী সংক্রমণ, ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা বাড়ে। ঠাণ্ডা পানিতে সহজে ঠাণ্ডা লাগার সম্ভাবনা থাকে বলে টনসিল ফুলে গিয়ে সমস্যা হতে পারে।

ঠাণ্ডাপানি খাওয়া একটা পর্যায়ে অভ্যাসের পর্যায়ে যায়। কিন্তু ক্রমাগত ঠাণ্ডা পানি খেতে থাকলে আমাদের রক্তনালী সংকুচিত হয়ে পড়ে। এতে কখনো কখনো হৃদরোগের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা সবসময়ে বলেন, পরিশ্রম বা গরমের মধ্যে বাইরে থেকে আসার পরে সরাসরি ঠাণ্ডা পানি খেয়ে নেওয়া ঠিক নয়। ঠাণ্ডা পানির চেয়ে কুসুম গরম পানি পান করলে বেশি উপকার পাওয়া যাবে। ঘণ্টাখানেক শরীরচর্চা করার পর শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেকটা বেশি হয়। তাই এসময় ঠাণ্ডা পানি পান করলে হজমের নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

দাঁত এবং মাড়ি খুব সেনসেটিভ। সরাসরি ঠাণ্ডা পানি পান করলে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে দাঁত আর মাড়িতে। সেটা খেয়াল করলেই বোঝা যাবে। দাঁতের চিকিৎসক আর বিশেষজ্ঞরা বলেন, অতিরিক্ত ঠাণ্ডা পানি পান করলে দাঁতের ভেগাস স্নায়ুর ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। দাঁতে শিরশিরানি বাড়ে, মাড়ি অকার্যকর হয়ে যায়। এছাড়া দাঁতের এনামেলের ক্ষতি করে, গরম থেকে ঠান্ডা পানির সংস্পর্শে আসা মাত্রই দাঁতের বহিরাবরণ সংকুচিত হয়। ফলে এনামেলে ফাটল ধরে। এছাড়া মাড়িক্ষয় হতে পারে।

ঠান্ডা পানি খেলে পাকস্থলী খাবার হজমের চেয়ে ঠাণ্ডা পানিকে শরীরের তাপমাত্রায় আনার চেষ্টা করে বেশি। ফলে খাবার হজম করতে পাকস্থলী দুর্বল হয়ে যেতে থাকে, হজমে সমস্যা হয়।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ