ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

কিছুতেই লম্বা হচ্ছে না চুল?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ জুন ২০১৯ বুধবার, ০৫:১২ পিএম
কিছুতেই লম্বা হচ্ছে না চুল?

 

আজকাল চুল আচড়াতে খুব ভয় পান আপনি। কারণ আচড়ানোর পরে চিরুনিতে একগাদা চুল দেখে মনটা অসম্ভব খারাপ হয়ে যায়। মনে হয় আশ্চর্য! এতো চুল পড়ছে কেন আমার! তারচেয়েও বড় দুঃখ হলো চুলগুলো কিছুতেই লম্বা বানাতে পারছেন না। অথচ কতোজনের মাথাতেই তো কতো বড় চুল। কতকিছুই তো ট্রাই করলেন চুলে, সমস্যা যাচ্ছে না। সবার প্রথমে আপনাকে জেনে নিতে হবে এই সহজ বিষয়গুলো, যদি সত্যি সত্যিই চুল বড় করতে চান-

তেলকে এড়িয়ে চলবেন না

আজকাল চুলে কেউ তেল দিতে চান না। অথচ প্রায় প্রতিদিনই শ্যাম্পু ঠিকই করেন। কন্ডিশনারসহ শ্যাম্পু চুলের জন্য উপকারী ঠিকই। কিন্তু তেলও আপনার চুলের জন্য জরুরি। সপ্তাহে দুইদিন নারকেল তেল ও ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে গরম করে মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করুন। বালিশে যাতে তেল না লাগে,  সেভাবে মাথায় কাপড় বা নরম তোয়ালে জড়িয়ে নিন। সকালে উঠে শ্যাম্পু করে ধুয়ে নিন। এতে চুলের গোড়া শক্ত হবে ও চুল সহজে ভাঙবে না।

রাসায়নিকযুক্ত শ্যাম্পু একেবারেই নয়

সিলিকন, সালফাইটমুক্ত কম ক্ষারযুক্ত শ্যাম্পু চুলের জন্য ভালো। অতিরিক্ত রাসায়নিকযুক্ত শ্যাম্পু স্টাইল ও ফ্যাশনে সাহায্য করলেও তা চুলের গোড়ার ক্ষতি করে ও বৃদ্ধি আটকায়। শ্যাম্পু চুলে খুব বেশি ঘষাঘষিও করারও ভালো নয়। শ্যাম্পুর সময় প্রয়োজনের বেশি চুল ঘষবেন না এবং চুলে কখনই গরম পানি দেবেন না।

কন্ডিশনার

কন্ডিশনারের বাছাইয়ের বিষয়ে খুব সাবধান হতে হবে। রাসায়নিকমুক্ত ও প্রাকৃতিক তেলযুক্ত কন্ডিশনার নির্বাচন করুন। কন্ডিশনার কখনো ভুলেও মাথার ত্বকে লাগাবেন না। শুধু চুলে লাগিয়ে তাৎক্ষণিক ধুয়ে ফেলবেন। কন্ডিশনার মাথার ত্বকে লাগলে ত্বক নরম হয়ে চুল ভেঙে যায়।

বালিশ ও বালিশের কাভারেও নজর দিন

চুল নিজেই প্রাকৃতিক উপায়ে তেল তৈরি করে তার গোড়াকে ভালো রাখার চেষ্টা করে। কিন্তু একটানা সুতি, পলিয়েস্টার বা রেয়নের কাভার দেওয়া বালিশে ঘুমালে সেগুলো চুলের তেল শুষে নেয়। তাই উপরে আরেকটা কাপড় দিতে পারেন।  আর ঘুমনোর সময় চুল বেঁধে নিন। এটা বালিশের সঙ্গে ঘষা কম লাগবে।

কিছু বিষয় এড়িয়ে চলবেন

চুলের বৃদ্ধি স্বাভাবিক রাখতে চাইলে আপনাকে কিছু অভ্যাস ছাড়তে হবে, কিছু মেনে চলতে হবে। চুলে বেশি হিট দেওয়া যাবে না। কিছু স্টাইলে চুল কাটা, যেখানে প্রচুর কুচো চুল বাদ পড়ে যেমন মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ, ক্রিয়েটিভ কাট ইত্যাদি বাদ দিন। এসব হেয়ারকাটে চুলের গোছা পাতলা হয় ও সামঞ্জস্য আসে দেরিতে। ফলে চুল সমান হতে চায় না।

কিছু খাবারকে না করুন

চুল ভালো রাখতে হলে কিছু খাবারকে এড়িয়ে চলতে হবে। বেশী ঝাল-মশলা, তেল, ভাজাভুজি কিন্তু আপনার চুলের বারোটা বাজিয়েই দিতে পারে। আর ডায়েটে যদি ভিটামিন কম থাকে, তাহলে চুলের বৃদ্ধি কমেও যেতে পারে। তাই হেলদি খাবার খান। দেখবেন আপনার খাবারে যেন ফেরিটিন, ভিটামিন বি ১২, জিঙ্ক থাকে।

স্ট্রেস নেওয়া যাবে না

আপনার মানসিক চাপ চুলকেও প্রভাবিত করতে পারে। ঠিকমতো ঘুম, খাওয়া, বিশ্রাম, ব্যায়াম না করা হলে শরীর ফিট থাকে না, ফলে চুল পড়ে আর লম্বা হতে চায় না। আর অতিরিক্ত চিন্তা করলেও চুল পড়ার সমস্যা দেখা দেয়। তাই জীবন নিয়ে এতো চিন্তা না করে চুলের যত্নে একটু সময় দিন। চুলগুলোর চর্চা করে বড় ঝলমলে চুলে আরও অনেক সুন্দর হয়ে উঠুন।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ