ঢাকা, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শক্ত মানসিকতার নারীরা স্বচ্ছন্দ্যে একা থাকে, কেন?

শাহরিনা হক
প্রকাশিত: ০৫ নভেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার, ০৮:০০ এএম
শক্ত মানসিকতার নারীরা স্বচ্ছন্দ্যে একা থাকে, কেন?

সবাই বলে নারী জাতটাই নরম আর কোমল মনের অধিকারী। এরা অল্পতেই ভেঙে পড়ে, নিজেকে সামলাতে পারে না। কিন্তু এ কথা ভুলও হয়। নারী কখনো কখনো কঠিন হয়ে যেতে পারে, আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠতে পারে অনেকটাই। তবে সেটা অনেক ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে। বিরক্তিকর পরিবেশ, কাছের লোক আর সঙ্গীকে সারাজীবন আগলে চলার চেয়ে তখন মনে হয় একা জীবনটাই তো ভালো। আর তাই যতদিন সম্ভব সঙ্গীবিহীন একাকীত্বকেই বেছে নেয় তারা।

এর নির্দিষ্ট কিছু কারণ অবশ্য রয়েছে। সেগুলোই আলোচনা করবো আজ-

বেশি চমককৃত কথাবার্তায় বিশ্বাসী না হওয়ায়

নারীর পক্ষে মনটাকে শক্ত করা খুব সহজ কাজ নয়, আর এটা হুট করেও হয়ে যায় না। বিশেষ করে যে নারী জীবনে বার বার কঠিন পরিস্থিতির পার করে আসে, তার জন্য জীবনটা বেশ চ্যালেঞ্জিং। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে গিয়েই একজন নারী মানসিকভাবে ভীষণ শক্তিশালী ও দৃঢ় হয়ে উঠতে পারে।

এই নারীরা বুঝতে পারে কীভাবে মানুষ কীভাবে বেশি চমকে দেওয়া কথা বলে সুবিধা আদায় করতে চায়। আর সে তাই চায় না চটকদার কথাবার্তার ভেতর দিয়ে কেউ তার সুযোগ নিক। তারা নিজের অভিজ্ঞতা দিয়েই বুঝতে পারে যে আশেপাশে কে বা কারা সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করছে। এই সুযোগসন্ধানী মানুষের সঙ্গে মেলামেশার চেয়ে একা থাকাকেই নিরাপদ মনে করে।

নিজের কাজকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করে

যে নারী শক্ত মনের হয়, সে সর্বদা নিজের কাজের প্রতি আগ্রহী হয়। অন্য যাই হোক, নিজের কাজটা সবচেয়ে জরুরি। সে জানে সম্পর্কে কী করা প্রয়োজন, নিজের কাজ থেকে কখনো সে পিছু হটে না। তার আশেপাশের লোক তাকে মূল্যায়ন না করলেও সে নিজেকে ঠিকই মূল্যায়ন করে। কেউ তার কাজে বাধা দিলে সেই সম্পর্ক শেষ করতেও দ্বিধা করে না সে। তার চেষ্টা থাকে কীভাবে আরও নিজেকে শক্তিশালী আর সম্মানিত করে তোলা যায়।

সম্পর্ক, প্রেম-ভালোবাসার বাইরেও সুন্দর জীবন রয়েছে

অন্ধভাবে কাউকে ভালোবাসার চেয়ে শক্ত মানসিকতার নারীরা নিজেদের ক্যারিয়ারকে বেশি গুরুত্ব দিতে চায়। একজন দৃঢ় নারীর জন্য তার ক্যারিয়ার খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রেম, সম্পর্ক এসবের বাইরেও একটি জীবন রয়েছে, আর সেটিকেও অনেক সুন্দর করা যায়, এটি সে জানে।

তার সঙ্গী অলস হলে এবং সম্পর্কের প্রতি যত্নবান না হলে সে নিজেকে একা রাখতেই পছন্দ করে। নিজেকে গুছাতে, মন ভালো রাখতে সব রকমের চেষ্টাই সে করে।

নিজের ভালোর চিন্তা সবার আগে

একজন শক্ত মনের নারী সবসময় নিজের সুখের কথা চিন্তা করে। এর মানে এই নয় যে সে স্বার্থপরের মতো কেবল নিজের কথাই ভেবে যায়। সে তার চারপাশের সবার সুখের কথাও কিন্তু চিন্তা করে। সম্পর্ক সুন্দর করার জন্য সে তার সর্বোচ্চটি করে এবং একে বাঁচিয়ে রাখারও চেষ্টা করে। তারপরেও কাছে লোকগুলো পাশে না থাকলে আলাদা বা একা থাকাটাই তার জন্য সুখের এবং সে সেই পথই বেছে নেয়।

দায়িত্ববোধ এড়িয়ে না যাওয়া

একজন শক্তিশালী নারী নিজের দায়িত্বের প্রতি সচেতন ও যত্নবান। সে নিজের দায়িত্বকে বেশ ভালোভাবে ব্যবস্থাপনাও করতে পারে। সে যেমন নিজের প্রতি দায়িত্বশীল তেমনি সঙ্গী ও পরিবারের সদস্যদের প্রতি পূর্ণ দায়িত্ব পালন করে। তবে এরপরও যদি কেউ তার অসম্মান করে এবং তাকে মূল্যায়ন করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে সে সেখান থেকে সরে আসে আর একা থাকতে চায়।

শক্তিশালী নারী সাধারণত চায় না বিষাক্ত কোনো সম্পর্ককে জিইয়ে রাখতে। বিষাক্ত সম্পর্ক বা ভুল সম্পর্কে  জড়িয়ে পড়ার চেয়ে একা থাকাকেই আরামদায়ক বলে মনে করে এই নারীরা।

আশেপাশের কটূকথা, বিড়ম্বনাকে এড়িয়ে চলে

আমাদের সমাজে অনেকেই মনে করেন, যে নারী একা থাকে তার নিশ্চয়ই কোনো সমস্যা আছে। নইলে সে একা থাকবে কেন? অথচ তারা বোঝে না যে নিজেদের শক্ত মানসিকতার কারণেই তাদের এমন একা থাকা সম্ভব। তাতেই হয়ত সে খুশি। যে নারী দৃঢ় মনোবলের, সে অবশ্যই আশেপাশের এসব কথাবার্তাকে গুরুত্ব দেবে না। নিজের শক্তিতে সে নিজেই এগিয়ে যাবে।

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ