ঢাকা, রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

ফ্রিজে ডিম রাখছেন, নিজের ক্ষতি করছেন জানেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ রবিবার, ১০:২৬ এএম
ফ্রিজে ডিম রাখছেন, নিজের ক্ষতি করছেন জানেন?

বাজার থেকে ডিম কিনে সবগুলো খেতে পারেননি, স্বচ্ছন্দ্যে ফ্রিজে রেখে খেতে পারছেন। ফ্রিজে ডিম রাখেন না, এমন পরিবার খুঁজে পাওয়া যাবে না। এজন্য ফ্রিজের দরজার উপরের তাকে নির্দিষ্ট তাকও রয়েছে ডিম গুছিয়ে রাখার জন্য। সব ফ্রিজেই ডিম রাখার জন্য একটি নির্দিষ্ট ট্রে রাখা থাকে। ডিম বেশিদিন বাইরে রাখলে সেটা নষ্ট হয়ে যেতে পারে, এমন একটা আশঙ্কার জায়গা থেকে আমরা সকলে বাজার বা দোকান থেকে কিনে এনে ডিম ফ্রিজেই সাজিয়ে রাখি। কিন্তু এতে ডিমের স্বাস্থ্য ঠিক থাকলেও আপনার স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে, সেটা কি জানেন? বিশেষজ্ঞরা এমনটাই জানিয়েছেন যে ফ্রিজে ডিম রাখলে সেটা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ফ্রিজের ভিতর ডিম রাখলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক। পুষ্টিবিদদের মতে, ফ্রিজের তাপমাত্রা শূন্যেরও বেশ খানিকটা নীচে থাকে বলে এখানে খাবার-দাবার রাখা নিরাপদ। কিন্তু ডিমের ক্ষেত্রে ব্যপারটা ঠিক উল্টো। ফ্রিজে ডিম রাখলে তার মধ্যে এক ধরনের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া জন্ম নেয়। আমাদের মধ্যে বেশিরভাগই ফ্রিজ থেকে ডিম বের করেই রান্না করে ফেলি। তাপমাত্রার পরিবর্তন না ঘটায় ওই সব ক্ষতিকর ব্যাকটিরিয়া ডিমের মধ্যে জীবিত অবস্থাতেই থাকে। ফলে খাদ্যে বিষক্রিয়া বা নানা রকমের সংক্রমণের আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যায়। পেটের সমস্যাও হতে পারে এর থেকেই। পুষ্টিবিদদের মতে, ফ্রিজ থেকে ডিম বের করে বাইরের স্বাভাবিক তাপমাত্রায় অনেক ক্ষণ রেখে ডিম রান্না করলে বিপদের ঝুঁকি খানিকটা কম।

তাই ফ্রিজে দীর্ঘদিন সংরক্ষণ করতে চাইলে ডিম ভেতরের দিকে রাখা উচিত। কক্ষ তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করলে ডিম এক থেকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত খাওয়ার যোগ্য থাকে।

শীতের দিনে কক্ষ তাপমাত্রায় ডিম রাখলে তা সাত থেকে ১০ দিন ভালো থাকবে, তবে গ্রীষ্মকালে তিন থেকে চারদিনের বেশি সংরক্ষণ না করাই ভালো বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

গরমকালে সাধারণত চারদিন পর থেকে ডিমের গুণ খারাপ হতে শুরু করে। আর তাপমাত্রা ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের দিকে যেতে থাকলে সেটা ডিমের জন্য মোটেই সুখকর নয়।

বিশেষজ্ঞরা এই সমস্যার খুব সহজ সমাধান দিয়েছেন। ডিম কিনুন অল্প সংখ্যায়, ঠিক যতটুকু প্রয়োজন বা দুই থেকে একদিনেই যাতে সব রান্না করে ফেলা যায়। আর ফ্রিজ থেকে ডিম বের করে বাইরের স্বাভাবিক তাপমাত্রায় অনেকক্ষণ রেখে তবেই রান্না করুন। তাহলেই আর কোনও সংক্রমণের আশঙ্কা থাকবে না।

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ