ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

ঘরবাড়িরও দরকার বাড়তি পরিচ্ছন্নতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪ এপ্রিল ২০২০ শনিবার, ০৭:৫৮ এএম
ঘরবাড়িরও দরকার বাড়তি পরিচ্ছন্নতা

করোনা মোকাবেলায় আমাদের নিজেদের সতর্কতার কোনো কমতি রাখছি না আমরা। লক্ষ্য একটাই, নিজেকে এবং প্রিয়জনকে করোনার থাবা থেকে নিরাপদে রাখা। কিন্তু শুধু নিজেকে পরিষ্কার, পরিচ্ছন্ন রাখলে তো চলবে না। নিজের যেখানে বসবাস, সেই বাড়িঘরেরও তো বাড়তি পরিচ্ছন্নতার প্রয়োজন। তাই করোনা মোকাবিলায় শুধু নিজেকেই নয়, সুরক্ষায় রাখতে হবে বাড়িঘরকেও। অসাবধানতা ও অসতর্কতায় ঘরবাড়িকে যদি জীবাণুমুক্ত না করা যায়, তাহলে কিন্তু বিপদ বাড়বেই। ঘরবাড়ির দিকে নজর দিতে এই কয়দিন মেনে চলুন একটু বাড়তি পরিচ্ছন্নতা।

১. ঘরের প্রতিটি অংশ নিয়মিত সাবান কিংবা জীবানুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে। লাইটের সুইচ, টেবিল, কম্পিউটারের কিবোর্ড, দরজার হাতল, জানালার চারিপাশ, আলমারি ও ওয়্যারড্রোব পরিষ্কার করতে হবে। জানলা-দরজার গ্রিল ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। গ্লাভস পরে এ সব কাজ করুন।

২. প্রতিদিন রান্না করার পর রান্নাঘর পরিষ্কার করতে হবে। রান্নাঘরে যা নিত্যদিন ব্যবহার করতে হয়, সেগুলো পরিস্কার করুন। বিশেষ করে পানির ট্যাপ, বক্স, বোয়াম, চুলার চারপাশ ঠিকমতো পরিষ্কার রাখুন। প্রতিদিন যে থালা-বাসনে খান, তা গরম জলে ধুয়ে নিন। রান্নাঘরে ব্যবহৃত বাসন ও জামাকাপড়ও নিয়মিত পরিষ্কার করুন।

৩. বাইরে পরার জুতা নিয়ে ঘরের প্রবেশ করা যাবে না। জুতা বাইরে রাখবেন। আর ভেতরে রাখতে হলে অবশ্যই জীবাণুমুক্ত করে নেবেন। সবচেয়ে ভালো হয় আপনি যদি জুতা কোনো পলিব্যাগের মধ্যে রাখতে পারেন।

৪. বাইরে থেকে সদাই কিনে আনার পর ব্যাগটি ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে। প্রয়োজনে ব্যাগটিকে ঘরের বাইরে ফেলে রাখুন ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টা। আর সদাই বাসায় আনার পর ‘পটাশিয়াম পারম্যাঙ্গানেট’ দ্রবণে পরিষ্কার করতে হবে। এই রাসায়নিক উপাদানটি পাওয়া না গেলে ৫ থেকে ১০ মিনিট গরম পানিতে ধুয়ে নিতে হবে।

৫. বাজারে গেলে মানুষের থেকে যতটা দূরে থাকা যায় ততই ভালো। ঘরে ফিরে প্রথমে হাত ধুয়ে নিন। সম্ভব হলে পরিহিত কাপড় ধুয়ে গোসল করতে হবে। বাইরে থেকে কেউ বেড়াতে বা কোনো কাজে এলে তাকেও জীবাণুমুক্ত হতে বলুন।

৬. আপনার টয়লেটের ব্যাপারে একটু বেশি সতর্ক থাকতে হবে। টয়লেটের আনাচে কানাচে, টয়লেটে ব্যবহার্য জিনিস, বালতি, মগ, পানির ট্যাপ, আয়না পরিষ্কার রাখুন।

৭. নিয়মিত ঘর বাড়ি পরিষ্কার করার সময় নিজের মুখ, হাত, মাথা ঢেকে নিন। কোনোভাবেই নিজের চোখেমুখে হাত দেবেন না। ঘর পরিষ্কারের পর নিজের হাত খুব ভালো করে সাবান বা অ্যালকোহল মেশানো হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে ধুয়ে নিন।

৮. দিন কয়েক বালিশ-বিছানা কড়া রোদে দিন। জামাকাপড় বদ্ধ বারান্দায় না মেলে ছাদে বা সূর্যের আলো আসে, এমন জায়গায় মেলুন। বাজারের ব্যাগ, থলে ইত্যাদিও কেচে রোদে শুকোতে দিন। বাজারের ব্যাগ রোজ কাচতে না পারলেও অন্তত কড়া রোদে দিন। প্রতিদিন ঘর মুছবেন। ফিনাইল বা অন্য কোনো জীবানুনাশক লোশন দিনে একবারের বদলে এই কয়দিন বার দুয়েক মুছে নিন ঘর। বিছানার চাদর, বালিশের কভার, সোফার কভার, ফ্রিজ ও টিভির কভারও বদলান ঘন। এগুলো গরম পানিতে ধুয়ে নিন।

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ