ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

করোনা পরিস্থিতিতেও নিজেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে সতেজ রাখুন

ফাতিহা নিগার অপূর্বা 
প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২০ রবিবার, ০৭:৫৮ এএম
করোনা পরিস্থিতিতেও নিজেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে সতেজ রাখুন

বিশ্বের অন্যান্য দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশকেও সংক্রমিত করেছে মহামারী করোনা। দুই মাসেরও বেশি সময় পর আজ থেকে দেশে প্রায় সবকিছুই খুলে যাচ্ছে। কিন্তু করোনার সংক্রমণ এড়াতে খুব প্রয়োজন না হলে আমাদের বাসায় থাকারই পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এতদিন বাসায় থেকে আমাদের জীবনের স্বাভাবিক চলাফেরা ব্যাহত হচ্ছে। অন্যান্য কাজের পাশাপাশি নিজের শারীরিক যত্নেরও ব্যাঘাত ঘটছে। যারা নিয়মিত জিমে যেতেন তারা এখন তা করতে পারছেন না আবার যারা সপ্তাহে একবার বা মাসে একবার পার্লারেও যেতে পারছেন না তাদের জন্যেও খুব সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সবকিছু খুলে গেলেই যে আপনি পার্লার বা জিমে গিয়ে নিজেকে সুন্দর করে তুলবেন এই মূহুর্তে এটাও বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। কারণ করোনা এখন যেন বাসা বেঁধে ফেলেছে প্রতিটি জায়গায়। আমাদের একটু সচেতনতা হয়তো আমাদের অনেক বড় বিপদ থেকে রক্ষা করতে পারে। কিন্তু ঘরে বসে থেকে অনেকেই মুটিয়ে যাচ্ছেন। সৌন্দয্যের ঘাটতি দেখা দিতে পারে ভেবে দুশ্চিন্তায় নিশ্চয়ই অনেকের কপালে বলিরেখায় ভাজও পড়ে যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে চাইলে আপনি কিন্তু ঘরে বসেই নিজের যত্ন নিতে পারেন ঘুব সহজে। করোনা পরিস্থিতিতেও নিজেকে শারীরিক ও মানসিকভাবে সতেজ রাখতে অনুসরণ করতে পারেন এই টিপসগুলো-

চুলের যত্নে

দীর্ঘদিন যেহেতু বাইরে যাওয়া হয় না চুল কিছুটা রাশের হাত থেকে এমনিতেও মুক্তি পাবে কিন্তু তারপরেও কথায় আছে যত্ন পেলে রত্ন মেলে সুতরাং চুলে কিছু প্যাক ইউজ করে চুলকে সুন্দর আকর্ষণীয় ঝলমলে ও মজবুত করে নিতে পারেন। ডিম-দই-লেবু দিয়ে প্যাক বানিয়ে চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। মেহেদী বেটে লাগাতে পারেন এবং প্রায়ই রাতে হট অয়েল দিয়ে ঘুমিয়ে পড়লেন সকালে শ্যাম্পু করে নিলেন। ঘুমটাও দারুণ হবে, সাথে চুল হবে পুষ্টিগূণে সমৃদ্ধ।

মুখের যত্নে

ত্বকের যত্নে করোনাকালীন রূপচর্চা খুব সহায়ক হবে এজন্য যেহেতু বাইরে বের হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে সুতরাং আপনি যেকোনো ফেসপ্যাক বানিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলেন এবং রোদে যাওয়ার ঝামেলা না থাকায় ত্বক হয়ে উঠবে মোহনীয়। তারপরও ঘরের কাজের ক্লান্তি চুলার কাছে যাওয়ার জন্য ত্বকে কালশে ভাব আসতে পারে। সেক্ষেত্রে বাইরে বের না হয়েও ত্বকে সানস্ক্রিন মাখতে পারেন। কারণ ঘরে ও ইউ ভি রে থাকে যা ত্বককে কালো করে ফেলতে পারে। তাছাড়া সাথে ময়েশ্চারাইজারও ব্যবহার করতে পারেন। কাঁচা হলুদ বেটে রাতে মেখে মুখ ধুয়ে ঘুমাতে পারেন। নাইট ক্রিমও মাখতে পারেন চাইলে। সকালে মধু লেবুর রস মুখে মেখে ৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে পারেন। নিজের ত্বকের লাবণ্যতা নিজেই দেখতে পারেন।

হাতে পায়ে পেডিকিওর মেনিকিওর

করোনার কারণে যদিও হাত ধুতে ধুতে এমনিতেও হাত উজ্জ্বল দেখাবে তারপরও সপ্তাহে একবার গরম পানি শ্যাম্পু ও লেবুর পানিতে হাত পা ভিজিয়ে রেখে দিতে পারেন। হাতে পায়ে লেবু ঘষতে পারেন। এতে লোমকুপে জমা ময়লা বের হয়ে এসে হাত পা উজ্জ্বল ও ঝকঝকে দেখাবে।

ঘুম, খাওয়া, ব্যায়াম

এখন রেস্তোরাঁয় খেতে যাওয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। সেক্ষেত্রে বাসায়ই মজা করে রেধে খেতে পারেন। বাসার খাবারে অভস্ত্য হওয়ার সাথে সাথে অবসরে বেশি খাওয়ার ফলে ওজনও বাড়তে পারে। সেক্ষেত্রে ক্যালরি মেপে খেতে পারেন এবং কিছু ব্যায়াম করে শরীর ফিট রাখতে পারেন। ব্যায়ামের ফলে শরীরে ঘাম ঝড়িয়ে ক্যালরি বার্ন করে নিতে পারেন। খাওয়া দাওয়াতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর খাদ্য তালিকাকে প্রাধান্য দিতে হবে। যেমন- ভিটামিন সি,ডি এবং প্রচুর পরিমাণে বিশুদ্ধ পানি পান করতে হবে।

সবশেষে ঘুম। যেহেতু সময় খুব বেশি পাচ্ছেন ঘুমটা যেন আরাম করে দিতে পারেন সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তাই বলে আবার সারারাত জেগে সকালে ঘুমাতে যাওয়ার চিন্তা করবেন না।এটা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যেতে হবে এবং সকালে খুব ভোরে উঠে পড়তে হবে। ঘুম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং ত্বক সুন্দর করে। চেষ্টা করতে হবে নিয়ম মেনে চলার।

মানসিক প্রশান্তি

করোনা পরিস্থিতিতে মনকে কোনোভাবেই দূর্বল করা যাবে না। সুস্থ বিনোদন গ্রহণ করতে হবে। যে যার নিজ নিজ ধর্ম পালন করুন। যার যে শখ সে অনুযায়ী নিজেকে সময় দিন। ছবি আঁকতে পছন্দ করলে ছবি আঁকুন, গাছ ভালোবাসলে ঘরের টবে ফুল গাছ লাগান, পরিচর্যা করুন, লিখতে ভালোবাসলে লিখে নিজের প্রতিভাকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করুন। পাশাপাশি প্রচুর বই পড়তে পারেন বই জ্ঞানের ভান্ডার বই মানুষের মনকে উদার করে। সুন্দর সুন্দর সিনেমা দেখুন, গান শুনুন। নিজেকে সুন্দর কিছু সময় দেয়ার চেষ্টা করুন। দুশ্চিন্তা এড়িয়ে মনকে সতেজ রাখুন।