ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Bangla Insider

দুঃখ কষ্ট ভুলে এগিয়ে যাওয়ার নামই জীবন

মোস্তাকিম ভুঞা
প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০ মঙ্গলবার, ০৯:৫৯ এএম
দুঃখ কষ্ট ভুলে এগিয়ে যাওয়ার নামই জীবন

কষ্ট নেবে কষ্ট, হরেক রকম কষ্ট আছে, কষ্ট নেবে কষ্ট! লাল কষ্ট নীল কষ্ট কাঁচা হলুদ রঙের কষ্ট, পাথর চাপা সবুজ ঘাসের সাদা কষ্ট, আলোর মাঝে কালোর কষ্ট ‘মালটি-কালার’ কষ্ট আছে কষ্ট নেবে কষ্ট। ফেরিঅলা নামে কবি হেলাল হাফিজের একটি কবিতা এটি। কষ্ট আর দুঃখের এই মায়া যেন অনেকেই বন্দী। প্রাকৃতিক নিয়মে এই পৃথিবী প্রতিনিয়ত তার কক্ষপথে ঘুরছে। কিন্তু ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য আপনি, আমি বা আমাদের যে ছুটে চলা, তা কি কোন অংশে এই আহ্নিক গতির চেয়ে কম। মনে হয় না। হোক আহ্নিক গতি কিংবা বার্ষিক, এদের কারো গতিই মানুষের প্রচেষ্টার গতির চেয়ে বেশি হতে পারে।

মানুষ হল অদম্য, তাকে দমিয়ে রাখা যায় না। কিন্তু তবুও নানা পরিবর্তনের ভিতর দিয়ে যেতে গিয়ে অনেক সময় আমাদের পথ চলা সাময়িক সময়ের জন্য থেমে যায়। মানবীয় আবেগ বা থেমে যাওয়ার এই সময়টাকে আমরা দুঃখ কষ্ট হিসেবেই উল্লেখ করে থাকি। আমরা ভাবি, আমরা মনে করি এই দুঃখ কষ্ট হয়তো আমাদের চিরদিনের জন্য থামিয়ে দিবে। আমাদের চলমান জীবন বা পথচলাকে থমকে দিবে। কিন্তু সত্যিই কি তাই! সবকিছু দুমড়ে মুচড়ে কষ্ট শেষে জীবনটা শুরু হয় আবার নতুন করে।  

চিরস্থায়ী কিছু নেই

আমাদের জীবনের কিছুই চিরস্থায়ী নয়। আবেগ কিংবা অভিযোগ থেকে শুরু করে প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি কোনো কিছুই চিরস্থায়ী নয়। সামাজিক সম্পর্কগুলো সব সময়ই এক রকমের গাঢ় হবে না। আজ যাকে ভালো লাগছে, কালকে তাকে ভালো নাও লাগতে পারে। আজ যিনি প্রশংসা করছেন, কাল তিনি কঠোর সমালোচক হতেই পারেন। তাই বিশাল এই জগতের সকল কিছু আপনার মনের মতো হবে না। এটাই স্বাভাবিক। তাই ছোট ছোট দুঃখ কষ্ট নিয়ে ভেঙে পড়ার কিছু নেই। এটাও চিরস্থায়ী নয়।

মনোবল ধরে রাখা

নিজেকে কখনোই অন্য কারো সঙ্গে তুলনা করবেন না। বন্ধুর ভালো চাকরির খবর শুনে নিজেকে হেয় করবেন না। প্রেমিককে হারানোর বেদনা। ভালো চাকরির সুযোগ বা পরীক্ষায় ভালো ফল, নানা কারণে জীবনে দুঃখ আসতে পারে। সব দুঃখ ধীরে ধীরে হালকা হতে থাকে একসময়। তাই দুঃখের সময় ভেঙে না পড়ে, মনোবল ধরে রাখুন। এতে করে একটা সময়ে নব উদ্যমে জীবন শুরু করতে পারবেন।

বুদ্ধি খাটানো

কেবল পরিশ্রমে জীবনে সাফল্য আসে না। পরিশ্রমের সঙ্গে বুদ্ধিবৃত্তিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও সৃজনশীলতা থাকতে হয়। একই কাজ করে জীবনকে কখনোই একঘেয়েমির বৃত্তে আটকে ফেলবেন না। সিদ্ধান্ত নিয়ে ঝুঁকি নিতে শিখুন। ঝুঁকি নেওয়ার একটা সুবিধা হচ্ছে, আপনি জানেন না সামনে কী আসবে। এই অচেনা আর অজানা পথ সামনে নতুন দ্বার খুলে দেয়।

সফলতা ব্যর্থতার হিসেব নয়

অনেকেই জীবনের একেবারে শুরু থেকেই সফলতা ব্যর্থতার হিসেব কষতে থাকে। কিন্তু এতো স্বল্প সময়ে জীবনে সফলতা ব্যর্থতার হিসেব করার কিছু আছে কি। সত্যিই কিছু নেই। কারণ শুধু একটা জিনিস মনে রাখবেন আপনি সফল না ব্যর্থ, এটা কে ঠিক করে দিবে? কে বলবে আপনি এই এই কারণে সফল। আর এই এই কারণে ব্যর্থ। মানবসভ্যতার ইতিহাসে এই রকম অসংখ্য মানুষ রয়েছে যারা জানতই না যে তারা সফল। কারণ মৃত্যুর আগে কেউ তাদের কাজ নিয়ে বুঝতেই পারেনি। শুধু একজন সক্রেটিসের গল্পই বলি। তাকে যারা হেমলক পান করিয়ে মৃত্যুদণ্ড সাজা দিয়েছিলো। তারা কি জানে যে, তাদের নাম ইতিহাসে শুধু এই কারণেই স্থান পেয়েছে। কারণ তারা সক্রেটিসের হত্যাকারী। তাই সাফল্য ব্যর্থতাই জীবনের কিছুই না। সময়কে নান্দনিক উপায়ে রাঙিয়ে বেঁচে থাকাই জীবন।