ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

মোবাইল ব্যবহারের যত আদব কায়দা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫ জুলাই ২০২০ রবিবার, ১০:৫৭ এএম
মোবাইল ব্যবহারের যত আদব কায়দা

মোবাইল ফোন দৈনন্দিন যোগাযোগের একটা অবিচ্ছেদ্য অংশ। বিজ্ঞানের এই আবিষ্কারটি খুব দ্রুত আমাদের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। মোবাইল ফোন আকারে ছোট হওয়ায় খুব সহজেই ব্যবহার করা যায়। তবে মোবাইল ব্যবহারেরও কিছু আদব কায়দা আছে। অনেকেই এটা খেয়াল করেন না। মোবাইল ব্যবহার করতে গিয়ে এমনভাবে কথা বলা যাবে না। যা আমাদের নেতিবাচক ভাব প্রকাশ পায়। তাই চলুন জেনে নেই মোবাইল ফোন ব্যবহারের কিছু আদবকেতা সম্পর্কে।


বারবার ফোন

আমাদের অনেকেই শুধু শুধু বারবার ফোন করে থাকেন। এই বিষয়টা খুব বিরক্তিকর। একটা বিষয় মনে রাখতে হবে। যদি কেউ ফোন না ধরে তাহলে বুঝতে হবে সে ব্যস্ত। আর না হয় এখন কথা বলতে চাচ্ছে না। ফলে বারবার কল দেওয়াটা আশোভন বা বিরক্তিকর একটি কাজ। খুব প্রয়োজনে একটা মেসেজ দিয়ে রাখা যায়। কিন্তু বারবার কল দেওয়ার কোন মানে হয় না।


অফিসে মোবাইল

অফিসে মোবাইল ব্যবহারের ক্ষেত্রে সতর্ক হতে হবে। কারণ অফিস হলো কাজের জায়গা। সেখানে যদি মোবাইল ফোনে অতিরিক্ত ব্যক্তিগত কথা বলা হয়। তাহলে আপনার কাজের ক্ষেত্রে যেমন সমস্যা হতে পারে। আবার আপনার পাশের সহকর্মীও বিরক্ত হতে পারে। তাছাড়া অফিসের শৃঙ্খলা বজায় রাখতেও এ ব্যাপারে দরকার বাড়তি সতর্কতা। তাই মোবাইল ফোনে ব্যক্তিগত কথাগুলো বাড়িতেই সেরে আসা ভালো।  

পারিবারিক আলোচনা

আমাদের অনেকেই রাস্তায়, বাসে, ট্রেনে এমনকি অফিসে অন্যদের সামনে পারিবারিক আলোচনা চালিয়ে যান। এতে ব্যক্তিগত গোপন আলোচনা অন্যেরা শুনতে পান। সেইসাথে কথোপকথনে পাশের বা সামনের মানুষটিরও বিরক্তির কারণ হতে পারে। জাপানসহ বেশ কয়েকটি দেশে পাবলিক বাসে মোবাইলে কথা বলা নিষেধ। কারণ এতে করে শব্দ দূষণের সাথে সাথে বাসে হট্টগোল তৈরি হয়।

মার্জিত ফোন কল

আপনি রাস্তায়, যানবাহনে বা অফিসে যেখানেই থাকুন। হতে পারে গার্লফ্রেন্ড, বয় ফ্রেন্ড, স্ত্রীর বা স্বামীর কল। তার সঙ্গে অতি মাত্রায় ব্যক্তিগত কথা না বলে। মার্জিত ভাষায় অল্পতেই জরুরি কথা সারুন। অনেকে মোবাইল ফোনে স্ত্রী বা বন্ধুর সঙ্গে চিৎকার, চেঁচামেচি করেন। বন্ধুকে সবার সামনে ঠাট্টার ছলে অশ্লীল ভাষায় গালিও দেন। এরকম করা থেকে বিরত থাকুন। ২ থেকে ৩ মিনিটে দরকারি কথা সেরে নেন।  

বিরক্তিকর কল নয়

সমাজে এক শ্রেণির মানুষ আছে যারা অপরিচিত, কম পরিচিত মেয়েদের ফোন নম্বর সংগ্রহ করে। মেয়েদের কারণে অকারণে কল দিয়ে বিরক্ত করে। আপত্তিকর মেসেজ দেয়। এ ধরনের কাজ করা আসলে অপরাধ। সম্পর্কের ওপর ভিত্তি করে কারো সঙ্গে কথা বলা মেসেজ আদান প্রদান হতে পারে। তবে তা আপত্তিকর, অরুচিকর না হওয়া উচিত।