ঢাকা, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

যেভাবে কাটাতে পারেন সাপ্তাহিক ছুটি

লাইফ স্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১৪ আগস্ট ২০২০ শুক্রবার, ০৮:০১ এএম
যেভাবে কাটাতে পারেন সাপ্তাহিক ছুটি

সপ্তাহ জুড়ে টানা কাজ করে ক্লান্ত। অপেক্ষায় আছেন, কবে শেষ হবে সপ্তাহ? আসবে ছুটির দিন। একটু প্রশান্তিতে থাকবেন। ঘুমিয়ে আরাম করতে পারবেন। নিজের জন্য একটু সময় বের করতে পারবেন। জানা যায়, অনেকেই ছুটির দিনটা শুধু ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কাটিয়ে দেয়। কেউ আবার কাটিয়ে দেন ভুঁড়িভোজ করে। এতে করে ছুটিটি যেমন সুন্দরভাবে উদযাপন করা যায় না। সেইসাথে বেশি খাবার খেয়ে বা অতিরিক্ত ঘুমে স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্ভাবনাও থাকে। সাপ্তাহিক ছুটির এই দিনটি কাটানো উচিত পরিকল্পনা মতো। তাই তৈরি করে নিতে পারেন কার্যকর পরিকল্পনা। তাই চলুন জেনে নেই সাপ্তাহিক ছুটির এই দিনটি কাটাতে বেশ কিছু পরিকল্পনার বিষয়ে।
     
হাতের কাজ

পুরো সপ্তাহ জুড়ে থাকে কর্মব্যস্ততা। আর এতে করে হাতে টুকিটাকি কাজ জমেই থাকে। তাই ছুটির এই দিনে সেরে নিতে পারেন দরকারি সব টুকিটাকি কাজ। জামা কাপড় ধৌত করা থেকে শুরু করে নিজেকে একটু গুছিয়ে নেওয়া। সেইসাথে নখ কাটা কিংবা চুল কালি করা ইত্যাদি কাজগুলোও করে নিতে পারেন। তাছাড়া, সাপ্তাহিক ছুটির এই দিনে আগামী সপ্তাহের কর্মপরিকল্পনাও করে নিতে পারেন। আগামী সপ্তাহে কোন গুরুত্বপূর্ণ কাজ থাকলে, তা নোট করে নিতে পারেন। সেইসাথে কোন দিন কোন জামা পড়বেন তাও গুছিয়ে নিতে পারেন।  

সময় দেওয়া

ছুটির দিনটা আনন্দঘন করে তুলতে প্রিয় মানুষকে সময় দিন। সেইসাথে সময় দিন পরিবারকে। কর্মব্যস্ততার কারণে পুরো সপ্তাহ পরিবারকে সময় দেওয়া হয় না। এতে করে পরিবারের সদস্যদের সাথে দূরত্ব তৈরি হয়। এমনটা করা উচিত নয়। আরামের প্রয়োজন আছে। তবে পুরোটা দিন না ঘুমিয়ে, পরিবারের সঙ্গে কাটান। বেশি কাজ থাকলে পরিবারের সবাই মিলে করতে পারেন। প্রতিদিনের কাজের চাপে একসঙ্গে হয়তো খাওয়া হয় না। ছুটির দিনে পরিবারের সবাই একসঙ্গে খাবার খেতে পারেন। চাইলে বাইরে পছন্দের কোন খাবারের খেতে যেতে পারেন।

বেড়াতে যাওয়া

ঘুরতে কে না পছন্দ করে? তাই ছুটির এই দিনটা ঘুরেও কাটাতে পারেন। এতে করে প্রিয়জনদের সঙ্গে সম্পর্ক আরো ভালো হয়ে যাবে। পুরো দিনটা হাসি আনন্দে কাটাতে বেড়াতে যাওয়া অনেক ভালো একটা উপলক্ষ্য হতে পারে। চাইলে সবাই মিলে সিনেমা দেখতে যেতে পারেন। সময়টা যেমন ভালো কাটবে, তেমনি ভালো স্মৃতিও ধরে রাখা যাবে। সেইসাথে সবাই মিলে আড্ডা বা গল্প করতে পারেন।

না করা ভালো

জীবন জীবিকা বা কর্মব্যস্ততার কারণে পুরো সপ্তাহ আমাদের ব্যস্ত থাকতে হয়। তাই ছুটির এই দিনটিতে পরিবারকে সময় দিন। পরিবারের কনিষ্ঠ সদস্যদের মানসিক বিকাশে তা ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। ছুটির এই দিনটিতে ব্যক্তিগত কাজ না রাখাই ভালো। অনেকেই ছুটির দিন ঘুমিয়ে বা ভুঁড়িভোজ করে কাটিয়ে দেয়। এই কাজগুলো করা একদমই ঠিক নয়। ছুটির দিনটি আপনার নিজের জন্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ। তেমনি গুরুত্বপূর্ণ আপনার কাছের মানুষদের জন্য। তাই ছুটির দিনটা পরিবারের সবাইকে সাথে নিয়েই কাটান।