ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

স্মার্ট হবেন কীভাবে?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ০৬:২০ পিএম
স্মার্ট হবেন কীভাবে?

সবাই নিজেকে স্মার্ট বা অকর্ষণীয় করে উপস্থাপন করতে চান। ভাষা, পোশাক ও আচরণে হয়ে উঠতে চান স্বতন্ত্র। এ চেষ্টা চলতে থাকে। বয়স অনুযায়ী বিভিন্ন সময় চাওয়া বদলালেও প্রত্যাশা কমে না এক সুতোও। কীভাবে এই কাঙ্ক্ষিত ব্যক্তিত্ব অর্জন সম্ভব?

‘রিডার্স ডাইজেস্ট’ সাময়িকী স্মার্ট বা ব্যক্তিত্বপূর্ণ হওয়ার কিছু পরামর্শ দিয়েছে।

সঠিক যোগাযোগ

ভার্বাল (সক্রিয়) যোগাযোগে (লেখা ও বলা) ভাষার ব্যবহার ব্যক্তিত্বের আভিজাত্য নির্ধারণ করে। আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলসের ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড্যানিয়েল অফেনহেইমার বলেন, স্মার্ট লোকদের শব্দ চয়ন ভালো হয়। শব্দভাণ্ডার সমৃদ্ধ থাকে। তিনি আরও বলেন, মানুষের ধারণা, শুদ্ধ ভাষায় কথা বলতে পারা মানেই স্মার্টনেস। তাই কথা বলা বা লেখার সময় সহজ বাক্য ও শব্দের প্রয়োগও ব্যক্তির স্মার্টনেস বাড়িতে দেয়।    

চশমা ব্যবহার  

যুক্তরাজ্যের ইউকে কলেজ অব অপটিমেট্রিস্টসের এক গবেষণায় উঠে এসেছে, ওই দেশের শতকরা ৪৩ জন লোক মনে করেন চশমা পরলে স্মার্টনেস বাড়ে। আর ৪০ শতাংশ ব্রিটিশ সাধারণত চশমা অথবা কৃত্তিম লেন্স ব্যবহার করেন। প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে গবেষকরা বলছেন, চশমা পরার মাধ্যমেও ব্যক্তিত্বের জৌলুস বা স্মার্টনেস কিছুটা হলেও বাড়ানো সম্ভব।   

কৌতুক করা

ফ্রান্সের এক গবেষণার তথ্য বলছে, যে সব পুরুষ হাস্যরস বা কৌতুকপূর্ণ গল্প করতে পারেন ফ্রান্সের নারীরা তাদেরকেই বেশি পছন্দ করেন। অপরদিকে গোবেচারা বা পাগলাটে ধরনের লোকদের তারা খুব একটা পছন্দ করেন না। তাই দৈনন্দিন আচরণে নিরেট গাম্ভির্যতা ধরে না রেখে মাঝেমধ্যে কৌতুকের চেষ্টা করলেও স্মার্টনেস বাড়বে।

নির্মল হাসি

‘দ্য জার্নাল অব ননভার্বাল বিহেবিয়ার’ সাময়িকীর এক গবেষণায় উঠে এসেছে, যারা বিশ্বাসযোগ্য ও নির্মল হাসি হাসেন তারা বুদ্ধিসম্পন্ন এবং ব্যক্তিত্বপূর্ণ। এবার হাসির ভেতরে লুকানো শঠতা ঝেড়ে ফেলুন, স্নিগ্ধ হাসিই স্মার্টনেস ধরে রাখবে।

বই পড়ার অভ্যাস

যুক্তরাজ্যের এক গবেষণায় দেখা গেছে, যারা বই (মানসম্মত উপন্যাস, কবিতা) পড়েন, তারা উন্নত রুচির অধিকারী হন। এই গুণ অন্যের কাছে ব্যক্তির চিন্তাশক্তির গভীরতা জানান দেয়। যা ব্যক্তিত্বের দ্যুতি বাড়িয়ে দেয় কয়েকগুণ। তাই বই পড়া, সাহিত্য ও শিল্প-সংস্কৃতি বিষয়ক আলোচনায় অংশ নেওয়া শুরু করতে পারেন।

চোখে চোখ রাখা

সম্মুখ কথপোকথনের সময় চোখে চোখ রেখে কথা বললে ব্যত্বিত্বের দৃঢ়তা প্রকাশ পায়। এতে করে ব্যক্তির প্রতিক্রিয়াশীল মনোভাব প্রকাশ পায়। পাশাপাশি যার সঙ্গে কথা হচ্ছে তাঁকে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলা যায়। যা স্মার্টনেস বাড়ায়।       

বিবেচনাবোধ

এটা স্মার্ট লোকদের বিশেষ গুণ। এ গুণবলেই ব্যক্তিত্ববান লোকেরা সবাইকে সমান গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করার ক্ষমতা রাখেন। পাশাপাশি অন্যের প্রতি অনুভূতিপ্রবণ ও সহমর্মিতার মানসিকতাও ব্যক্তিত্বের শির উন্নত করে।

বাংলা ইনসাইডার/আরজে/জেডএ