ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭ , ৪ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কর্মজীবীরা আছে স্থুলতার ঝুঁকিতে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৭ বুধবার, ০৫:২১ পিএম
কর্মজীবীরা আছে স্থুলতার ঝুঁকিতে

লাঞ্চ সেরেছেন ঘন্টাখানিক আগে। এখন চোখের সামনে কলিগ এসে বিস্কিটের প্যাকেট ধরেছেন। ভদ্রতা করতে সামান্য না খেলেই নয়। তাই হাসি মুখে একটি বিস্কিট মুখে পুরে নিলেন। ঘটনাটি প্রতিদিন অফিসের সবচেয়ে পরিচিত দৃশ্য। এমনি ভাবেই একটু একটু করে অফিসে বেশি খাওয়া হয়েই যায়। আজ এর জন্মদিন তো কাল ওর বিয়ে। খাওয়ার পালা চলে হরহামেশাই।

যারা অফিসে কাজ করেন তাদের মাঝে ওজন বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি দেখা দেয়। আট ঘন্টা বসে কাজ করার কারণে খাবারের ক্যালরি খরচ হওয়ার চেয়ে শরীরে জমতে থাকে। ফলে আপনার ওজন বাড়তে থাকে। তবে শুধু যে বসে কাজ করা তা কিন্তু নয়। আরো কিছু বিষয় আছে, যা কর্মজীবীদের স্থুলতার কারন।

- ম্যানু পছন্দ না হওয়া, বাড়ি থেকে লাঞ্চ না আনা, স্পেশাল কোন দিবস ইত্যাদি নানা কারণে অফিসে বসেই খাবার অর্ডার করেন আপনি। তখন কি আর রুটি সালাদ চলে। স্বাভাবিকভাবেই তখন খাওয়াটা ভারী হয়ে যায়। আর বাড়তে থাকে আপনার ওজন।

- মনিটরের সামনে বসে অনেকেই কাজের ফাঁকে খান। তখন কতটুকু খাচ্ছেন, কি খাচ্ছেন তা ভেবে দেখার সময় কোথায় আপনার। তাই বেশি খাওয়া হয়ে যায় আপনার।

- হাতে অনেক কাজের প্রেসার থাকলে তাড়াহুড়ায় থাকেন আপনি। তাই ভালো মতো না চিবিয়েই খাওয়া শেষ করছেন। ভালোভাবে না খাওয়াও কিন্তু ওজন বাড়ার আরেক কারণ।

- আবার কখনো কাজ শেষ করে খেতে খেতে বিকেল হয়ে যায় আপনার। তখন রাতের খাওয়াও পিছিয়ে যায়। সকালে অফিস বলে খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই বিছানায় যেতে হচ্ছে। ফলে রাতের খাবার হজম হওয়ার সময় পায়না এবং শরীরে মেদ জমতে থাকে।

শুধু অফিসে থাকা অবস্থায় যে অনিয়ম ওজন বাড়ায় তা নয়। অতিরিক্ত পরিশ্রম, অনিয়ন্ত্রিত কাজের চাপ আপনার ঘুমের ওপরও প্রভাব ফেলে। তাই ঘুমের স্বল্পতা আপনার শরীরের কাজে ব্যাঘাত ঘটিয়ে মেটাবলিজম ধীর গতি করে দেয়। তাই অফিসের কর্মরত আপনি খুব অল্পতেই ওজন বাড়াচ্ছেন। এজন্য যতটুকু পারেন নিজেকে অ্যাকটিভ রাখুন। অফিসে হালকা কিন্তু ফাইবারযুক্ত খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। যখনই সময় পাবেন কাজের ফাঁকে হাঁটাচলা করুন। আর রাতে বাড়ি ফিরে অন্তত ৩০ মিনিট হেতে তারপর ঘুমাতে যান।

বাংলা ইনসাইডার/এমএ